Select Page

গল্পের সত্ত্ব দাবি করে অনন্তকে নোটিশ

গল্পের সত্ত্ব দাবি করে অনন্তকে নোটিশ

2_219430

কয়েক মাস আগে অনন্ত জলিল নতুন চলচ্চিত্র ‘দ্য স্পাই’ এর ঘোষণা দেন। বর্তমানে চলচ্চিত্রটির পোস্ট প্রডাকশন চলছে। এবার ওই সিনেমার গল্পের সত্ত্ব দাবি করে নোটিশ পাঠিয়েছেন হবিগঞ্জের মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক ও স্থানীয় লেখক উজ্জল। তিনি অভিযোগ করেন, অনন্ত তার গল্প নিজের নামে প্রচার করছে। তবে অনন্ত বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। তিনি জানান, এখনো সিনেমাটির গল্প লেখা শেষ হয়নি।

এ সংক্রান্ত প্রতিবেদনে কালের কণ্ঠে লেখা হয়, উজ্জলের পক্ষে মো. হাফিজুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট, জজকোর্ট, হবিগঞ্জ সদর এ বিষয়ে অনন্ত জলিলকে একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন। অভিযোগে বলা হয়, ২০১৩ সালে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ‘নিঃস্বার্থ ভালোবাসা‘র স্টল পরিদর্শনকালে স্টলকর্মী সনেট জানান, মুনসুন ফিল্মসের ব্যানারে নতুন চলচ্চিত্র নির্মাণের জন্য চিত্রনাট্য কিংবা গল্প প্রয়োজন। তার পরিপ্রেক্ষিতে তিনটি গল্প পাঠান উজ্জল।

পরে মুনসুন ফিল্মসের মিডিয়া ম্যানেজার সজীবের সঙ্গে কথা হলে তিনি অনন্ত জলিলের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে গল্প বাছাইয়ের বিষয়টি জানাবেন বলে জানান। কিন্তু গল্প পাওয়ার দীর্ঘদিন পরও এ বিষয়ে কোনো পূর্ণ সিদ্ধান্ত না জানিয়ে বরং অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়। কিন্তু গত ১০ ও ২৪ ফেব্রুয়ারি একটি পত্রিকায় প্রকাশিত ‘দ্য স্পাই’ ছবির সংবাদ পড়ে উজ্জল বুঝতে পারেন, এটি তাঁর লেখা গল্প। ফলে এ বিষয়ে আইনি সহায়তা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

উজ্জল জানান, গত ১৯ এপ্রিল মুনসুন ফিল্মসের কাকরাইলস্থ কার্যালয় থেকে নোটিশ রিসিভ করা হয়েছে। কিন্তু মুনসুন ফিল্মস নোটিশটি পায়নি বলে জানালে পুনরায় ই-মেইলের মাধ্যমে নোটিশটি পাঠানো হয়েছে।

তবে অনন্ত জলিল এ অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। অনন্ত জলিল বলেন ইতিমধ্যে আমার আইনজীবীর সাথে কথা হয়েছে। ওই ব্যক্তির নোটিশের জবাব দেওয়া হবে। যেহেতু আমরা এখনো গল্প লেখার কাজ শেষ করিনি সেহেতু উজ্জল যদি প্রমাণ করতে না পারেন তাহলে আমরা মানহানি মামলা করবো।  ২০১৩ সালের বাণিজ্যমেলায় গল্প আহ্বান করেছি মর্মে যে কথা বলা হয়েছে আদতে সেটা সম্পূর্ণ মিথ্যা বলেও জানান এই অভিনেতা।

এ বিষয়ে মনসুন ফিল্মস সংবাদমাধ্যমকে তাদের অবস্থান ব্যখ্যা করেছে। তাদের ব্যখ্যায় বলা হয় অনন্ত জলিলের ‘দ্য স্পাই–অগ্রযাত্রার মহানায়ক’ চলচ্চিত্রের গল্প লেখার কাজ এখনও শেষই হয়নি। চলচ্চিত্রটির গল্পের মূল ভাবনা অনন্ত জলিলের এবং এর কাহিনী, সংলাপ এবং চিত্রনাট্য নিয়ে এখনও কাজ করছেন ছটকু আহমেদ। খুব শিগগিরই ‘দ্য স্পাই’ চলচ্চিত্রের জন্য সারা দেশব্যাপী অডিশনের মাধ্যমে ‘ট্যালেন্ট হান্ট’ নামক একটি কার্যক্রম শুরু হতে যাচ্ছে, যার অফিসিয়াল ঘোষণা আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যেই দেওয়া হবে। এই কার্যক্রমের মাধ্যমে অনন্ত জলিল এবং বর্ষার সাথে ‘দ্য স্পাই’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য বিভিন্ন চরিত্রের মোট ১১ জন নতুন মুখ সুযোগ পাবেন।
ব্যাপক এই কার্যক্রম সম্পন্ন হতে কয়েক মাস সময় লেগে যাবে এবং নতুন মুখ নির্বাচনের পর এই চলচ্চিত্রের শ্যুটিং শুরু হবে। নোটিশ প্রেরক ব্যক্তি অনন্ত জলিল বা মনসুন ফিল্মসের কোনও পরিচিত ব্যক্তি নন বা এর পূর্বে কখনও কোথাও চলচ্চিত্রের গল্প বিষয়ক কোনও আলোচনাও হয় নাই বলে জানিয়ে মুনসুন ফিল্মস।

এ ব্যাপারে ছটকু আহমেদ বলেন, ব্যাপারটি আমার কাছে খুবই হাস্যকর। কারণ অনন্ত জলিলের ‘দ্য স্পাই’ চলচিত্রের গল্প নিয়ে আমি এবং অনন্ত মোটামুটি দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছি। অনন্ত সবসময়ই একজন ফুল পারফেকশনিস্ট পার্সন, যার কারণে তার প্রতিটি কাজ সময় নিয়ে খুব সুচারুভাবে সম্পন্ন করতে হয়। চলচ্চিত্রটির গল্পের মূল ভাবনা অনন্ত জলিলের নিজের আর বরাবরের মত আমি এর কাহিনী, সংলাপ ও চিত্রনাট্যের কাজ করছি। দ্য স্পাই চলচ্চিত্রের গল্প লেখার কাজ এখনও আমাদের সম্পন্ন হয় নাই। আর সেখানে অপরিচিত কোনও ব্যক্তি দাবি করছে চলচ্চিত্রের গল্পটি তার। যেখানে চলচ্চিত্রের গল্প লেখা পুরোপুরি সম্পন্ন হয় নাই, সেখানে ঐ ব্যক্তির এই দাবি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক এবং নিছক উদ্দ্যেশ্য প্রণোদিত ছাড়া আর কিছু নয়। অনন্ত জলিলের মত সম্মানিত এবং যোগ্য ব্যক্তির অন্য কারো গল্প নিজ নামে ব্যবহার করে চলচ্চিত্র নির্মানের প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না।  অতএব, এটা সুস্পষ্ট যে, ব্যাপারটি পুরোপুরি ভিত্তিহীন এবং উদ্দ্যেশ্য প্রণোদিত।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares