Select Page

ঈদুল আজহার তিন সিনেমাই ফ্লপ

ঈদুল আজহার তিন সিনেমাই ফ্লপ

গত কয়েকবছর ধরে ঈদুল আজহায় মুক্তি পাওয়া সিনেমা খুব একটা ব্যবসা করছে না। তার ধারাবাহিকতা সর্বশেষ ঈদেও বজায় ছিল। যা সিনে ব্যবসার জন্য আরো একটা অশনি সংকেত।

ঈদে মুক্তি পায় ওয়াজেদ আলী সুমন পরিচালিত ও শাকিব খান-শবনম বুবলি অভিনীত ‘ক্যাপ্টেন খান’, একই পরিচালকের ও মাহি-বনি সেনগুপ্ত অভিনীত ‘মনে রেখো’ এবং মোস্তাফিজুর রহমান পরিচালিত ও মাহি-সাইমন সাদিক অভিনীত ‘জান্নাত’।

এছাড়া একটি হলে মুক্তি পায় রাজ চন্দ পরিচালিত ও রোশান-ববি অভিনীত ‘বেপরোয়া’। তবে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া জানায়নি কোথায় সিনেমাটি মুক্তি পেয়েছে!

বরাবরের মতো হল সংখ্যা ও ব্যবসায় এগিয়ে ছিল ‘ক্যাপ্টেন খান’। আর এটিই ছিল এবারের ঈদে একমাত্র ভারতীয় সিনেমার অনুকরণ। পরের অবস্থানে ছিল ‘মনে রেখো’। তবে অনেকেই মনে করেন সমসাময়িক গল্পের ‘জান্নাত’ সিনে রাজনীতির কারণেই হল সংখ্যায় পিছিয়ে ছিল প্রথম থেকে।

একাধিক সূত্র জানায়, ‘ক্যাপ্টেন খান’ এর মাধ্যমে প্রযোজকের পকেটে ফেরত গেছে ৭০ লাখ টাকার মতো। এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে ঈদের পরে আর ভালো হল পায়নি সিনেমাটি। অন্যদিকে, ‘মনে রেখো’ প্রথম ২-৩দিন ভালো চললেও পরবর্তীতে কোনো সুখবর পাওয়া যায়নি। আয় করেছে ৫০ লাখ টাকার মতো। আর প্রথম থেকেই হল সংখ্যায় পিছিয়ে ছিল ‘জান্নাত’। পরে ধীরে ধীরে বড় হলগুলোতে আসতে শুরু করলেও দর্শক কমতে থাকে। আয় হয়েছে ৩০ থেকে ৪০ লাখের মধ্যে।

এদিকে সিনে দর্শক ও সমালোচকদের মতে, এবারের ঈদের সিনেমাগুলো একেবারে ফেলনা- এমন নয়। নানা ত্রুটি-বিচ্যুতি সত্ত্বেও বিনোদনের পর্যাপ্ত খোরাক ছিল। কিন্তু বিপনন ব্যবস্থা বা প্রচারণায় অবহেলায় ভরাডুবি হয়েছে। এছাড়া গত কয়েকবছর ধরে দেখা যাচ্ছে ঈদের দুই-তিনদিন আগেও নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না কোন সিনেমা মুক্তি পাবে। যা ব্যবসার জন্য খুবই নেতিবাচক বিষয়।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares