Select Page

ঈদের দশ ‘রোমান্টিক’ নাটক-টেলিফিল্ম, সাথে লিংক

ঈদের দশ ‘রোমান্টিক’ নাটক-টেলিফিল্ম, সাথে লিংক

প্রতি ঈদেই অসংখ্য রোমান্টিক ধারার নাটক-টেলিফিল্ম প্রচার হয়। দর্শকদের কাছেও বেশ আগ্রহে থাকে নাটকগুলো, ঈদুল ফিতর ২০১৮ এ প্রচার হওয়া অন্যতম দশটা আলোচিত রোমান্টিক নাটক=টেলিফিল্ম নিয়ে এই আয়োজন।

নীল গ্রহ : নীল আর গ্রহ ভালোবেসে বিয়ে করেছেন, তবে সংসারে তিক্ত অভিজ্ঞতার কারণে বিচ্ছেদ চাচ্ছেন দুজনই, তবে আলাদা এক টান রয়েছে তাদের মাঝে। আলাদা বাসায় উঠে যান গ্রহ,তবুও জন্মদিনে অপেক্ষার করেন নীলের। অভিমান ভেঙ্গে নীল কি আসবে? ভালোবাসা কি বিচ্ছেদে রূপ নিবে!

সাগর জাহানের রচনা ও পরিচালনায় অনেকদিন পর জুটি হয়ে ফিরেছেন মাহফুজ-অপি করিম। অভিনয়ে অপি করিম বেশ সুযোগ পেয়েছেন, সেটার সঠিক ব্যবহারও করেছেন।

সিনেমা জীবন : আশির দশকের শেষদিকে দুই তরুণ-তরুণীর ভালোবাসার গল্প হাবিব শাকিলের নাটক ‘সিনেমা জীবন’। ভিসিআরে সিনেমা দেখে নিজেদের স্বপ্নের নায়ক=নায়িকা ভাবতে থাকেন। অভিনয় করেছেন আফরান নিশো, মেহজাবীন ও তানহা।

বুকের বাঁ পাশে : এই ঈদের সবচেয়ে আলোচিত টেলিফিল্ম ‘বুকের বাঁ পাশে’। জনপ্রিয় নির্মাতা মিজানুর রহমান আরিয়ানের নির্মাণে এই নাটকে জুটি বেঁধেছেন নিশো-মেহজাবীন। রোমান্টিক নাটক হিসেবে এটি বহু দর্শকদের মন ছুঁয়ে গেছে, পাশাপাশি মাহতিম সাকিবের কণ্ঠে টাইটেল সংও দারুন। নাটকটি প্রথম থেকে উপভোগ্য হলেও শেষটা ভালো হয়নি, আরো মনোযোগ দেয়া যেত।

শেষ পর্যন্ত : ঈদ আয়োজনে শিহাব শাহীনের টেলিফিল্ম মানেই আগ্রহের শীর্ষে। সেই ধারাবাহিকতায় এইবার অপূর্ব-মমকে নিয়ে প্রচারিত হলো ‘শেষ পর্যন্ত’। নির্মাতা তার প্রথাগত রূপ নিয়েই বানিয়েছেন, অভিনয়শিল্পীরাও ভালো। সহজ-সরল গল্প জটিল বানিয়ে ফেললেও দেখতে খারাপ লাগবে না।

হ্যালো ১১১ লাভ ইমারজেন্সী : জনপ্রিয় নির্মাতা মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজের টেলিফিল্ম। এক রেডিওর সিইও, সাথে জনপ্রিয় আরজে। বিভিন্ন জনের প্রেমের সমাধান করেই, হঠাৎ করেই অনুষ্ঠান চলাকালীন একজন আপত্তিকর মন্তব্য করেন, তারপর তাকে ডাকা হয় অনুষ্ঠানে, বেরিয়ে আসে অজানা সত্য। মারুফ রেহমানের রচনায় নাটকটিতে আরজের ভূমিকায় পূর্ণিমা ভীষন দারুণ, আর তাকে সঙ্গ দিয়েছেন ইরফান সাজ্জাদ।

এই শহরে কেউ নেই : ঢাকা শহরে পড়তে আসা এক মেয়ের সাথে এক বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পরিচিত হয় চাকুরীজীবী এক ছেলের সাথে, ঘটনাক্রমেই সেই পরিচিতি ভালো লাগায় রূপ নেয়, কিন্তু প্রকাশ হয় না। মেয়েটি ঢাকা শহরে একা থাকে, আর তার পাশে থাকার চেষ্টা করে ছেলেটি। টেলিফিল্মটির গল্প সুপরিচিত হলেও শেষে এসে আপনাকে আকর্ষিত করবে। এটি যতটুকু রোমান্টিক ধারার, ততটুকু ইসামাজিক ইস্যুর, শেষটা ভাবাবেই। তৌসিফ ও তানজিন তিশা নিজেদের মতো করে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছেন।

 

জলসাঘর : অমর কথাশিল্পী শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের জনপ্রিয় উপন্যাস ‘দেবদাস’-এর আধুনিক রূপে জাফরিন সাদিয়ায় নাট্যরুপে জাকারিয়া সৌখিনের টেলিফিল্ম ‘জলসাঘর’। অভিনয়ে অপূর্ব, মম নিজেদের মত করে ভালো করেছেন, তবে ছাপিয়ে গেছেন মম। দেবদাসের গল্প সবারই জানা, দেখতে ভালোই লাগছিল, কিন্তু শেষটা নিজেদের মত করতে গিয়ে খেই হারিয়েছে।

হয়তো তোমার কাছেই যাবো : পরিবারের অমতে ভালোবেসে বিয়ে করেছেন দুইজন, ভালোই দিন কেটে যাচ্ছিল। হঠাৎ একটি দুর্ঘটনায় মেয়েটি চলনশক্তি হারিয়ে ফেলে, ছেলেটি দূরে সরে না গিয়ে পাশে দাঁড়ায়। প্রতিভাবান নির্মাতা আশফাক নিপুণের পরিচালনায় এই নাটকে অনেকদিন পর একসাথে অভিনয় করেছে অপূর্ব-মোনালিসা।

আনমনে তুমি : অপূর্ব-মম জুটি আর সাথে পিয়া বিপাশাকে নিয়ে নির্মিত টেলিফিল্ম ‘আনমনে তুমি’। জীবনের একটা পর্যায়ে এসে ভালোবাসাকে নতুনভাবে অনুভব করার এই গল্প নিয়ে নির্মাণ করেছেন মাহমুদুর রহমান হিমি।

নীল ফড়িঙের গল্প : এই সময়ের এক প্রেমিক-প্রেমিকার গল্প এটি। দুইজনেরই বেশ ভালো সময় কেটে যাচ্ছিল, তবে তাদের মনে হতে লাগলো আগের সেই টানটা নেই, দুজনেরই অন্যদিকে আগ্রহ যেন বেশি,শুরু হয় দূরত্ব। এই নিয়েই গল্প মেহেদির হাসান জনির নাটক ‘নীল ফড়িঙের গল্প’। এই নাটকে আছেন অপূর্ব ও মিথিলা, বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন গাজী রাকায়েত।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares