Select Page

এবারও কি অনিশ্চিত ঈদের ছবি?

এবারও কি অনিশ্চিত ঈদের ছবি?

সিনেমা হল মালিকরা এতদিন ধরে ঈদ মৌসুমে ছবি মুক্তি দিয়ে অতীতের লোকসান পুষিয়ে নেওয়ার যে স্বপ্ন দেখছিল তা বলতে গেলে ভেস্তে গেল।

করোনার কারণে গত বছরের দুই ঈদে নতুন কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। তার কোনো কোনোটি বরাবর এক বছর পিছিয়ে গেছে। সিনেমা হল বন্ধ ছিল টানা কয়েক মাস। এবার নতুন করে করোনা বেড়ে যাওয়া ও দেশে ‘কঠোর বিধিনিষেধের’ কারণে চরম দুশ্চিন্তায় পড়েছেন সংশ্লিষ্ট ছবির প্রযোজকরা।

ঈদে মুক্তির জন্য এখন পর্যন্ত পাঁচটি সিনেমা মুক্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন নির্মাতারা। ছবিগুলো হলো- শাকিব-বুবলী জুটির ‘বিদ্রোহী’, শাকিব-দর্শনার ‘অন্তরাত্মা’, আরিফিন শুভ-ঐশী জুটির ‘মিশন এক্সট্রিম’, সিয়াম-পূজা জুটির ‘শান’, নিরব-বুবলী জুটির ‘ক্যাসিনো’। এসব ছবির বেশির ভাগই গত বছরের ঈদে মুক্তির জন্য চূড়ান্ত ছিল। কিন্তু করোনার কারণে মুক্তি দেওয়া যায়নি। দীর্ঘদিন ধরে পড়ে থাকলে ছবির ম্যারিট নষ্ট হয়ে যায়। এখন এই দুশ্চিন্তায় লোকসানের মুখোমুখি বলে জানিয়েছেন ছবির প্রযোজকরা।

চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মিয়া আলাউদ্দীন বলেন, ‘আসন্ন রমজানের ঈদে ছবি মুক্তি নিয়ে ফের অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। করোনার কারণে ঘোষিত লকডাউনের ফলে আবারও লোকসানের মুখে পড়ছেন সিনেমা হল মালিকরা। একই সঙ্গে ছবির প্রযোজকরাও। জনগণকে রক্ষায় সরকার আবারও দেশে লকডাউন দিতে বাধ্য হয়েছে। এতে করে অন্যসব বিনোদন কেন্দ্রের মতো সিনেমা হল আবারও বন্ধ হলো।’

‘লকডাউন শেষ হলেও কয়টি সিনেমা হল খুলবে তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যায়। আর পর্যাপ্ত পরিমাণে সিনেমা হল না খুললে উন্নত বাজেটের ছবি মুক্তি দেবেন না প্রযোজকরা। কারণ তাঁরা ব্যবসা মানে মুনাফা করার জন্যই তো ছবি নির্মাণ করেছেন। অল্পসংখ্যক সিনেমা হলে ছবি মুক্তি দিলে মুনাফা দূরে থাক লগ্নিকৃত মূল টাকাই তো ফেরত আসবে না। ফলে ছবির ব্যবসার অন্যতম মৌসুম ঈদ হলেও অল্পসংখ্যক সিনেমা হলে কোনো প্রযোজকই বিগ বাজেটের ছবি মুক্তি দিতে চাইবে না। এতে গত বছরের মতো এবারের ঈদেও ছবি মুক্তি পাবে কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দিল নতুন করে।’

চলচ্চিত্র প্রযোজক খোরশেদ আলম খসরু বলেন, ‘সিনেমা হল এখনই খুলে দিলে যে দর্শক ছবি দেখতে আসবে এর কোনো গ্যারান্টি নেই। কারণ আমরা তাদের নিরাপত্তার ব্যবস্থা কতটা করতে পারব সে প্রশ্ন রয়েই যায়।’

ঈদের সিনেমার মধ্যে মিশন এক্সট্রিম ও শান ইতিমধ্যে প্রচারণা শুরু করেছে। যা নিয়ে ভক্তদের মাঝে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। এখন দেখার অবস্থা সাম্প্রতিক ‘কঠোর বিধিনিষেধে’ করোনা হার মানে কিনা!

/বাংলাদেশ প্রতিদিনের প্রতিবেদন অবলম্বনে


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares