Select Page

এবার চলচ্চিত্রের মানুষদের হেয় করায় অনন্য মামুনের ছবি নিষিদ্ধ

এবার চলচ্চিত্রের মানুষদের হেয় করায় অনন্য মামুনের ছবি নিষিদ্ধ

অনন্য মামুনের ওপর থেকে ফাড়া কাটছেই না! এবার বাধার মুখে পড়েছে ‘মেকআপ’ সিনেমাটি। মঙ্গলবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড থেকে নিষিদ্ধের ঘোষণা এসেছে।

অভিযোগ— এতে সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির মানুষদের বাজেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। তাই এটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সেন্সর বোর্ডের সদস্য ও প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু।

তারিক আনাম খান, রোশান ও নিপা আহমেদ ছবির প্রধান তিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন এ ছবিতে। গতকাল ‘মেকআপ’ দেখে নিষিদ্ধ করেছেন বোর্ড সদস্যরা।

কালের কণ্ঠকে খসরু বলেন, ‘চলচ্চিত্রের মানুষ মানেই খারাপ এটা ভাবা অন্যায়। আমরা চাই না সারা দেশের মানুষ ছবিটি দেখে ভুল কোনো ধারণা তৈরি করুক। তাই ছবিটি ব্যান করা হয়েছে।’

তবে এ বিষয়ে লিখিত কোনো নোটিশ এখনো পাননি নির্মাতা মামুন। তিনি বলেন, ‘আমি ঢাকার বাইরে আছি। তবে শুনেছি এমন একটা সিদ্ধান্ত হয়েছে। যদি সত্যিই সেটা হয় তাহলে অন্যায় হবে আমার সঙ্গে। আমি একটা সাধারণ মেয়ের নায়িকা হয়ে ওঠার আগের ও পরের ঘটনা দেখিয়েছি। কাউকে ছোট করার ইচ্ছে নিয়ে ছবি করিনি।’

ছবির অন্যতম অভিনেতা তারিক আনাম খান এই ঘটনা শুনে হতাশ হয়েছেন। বলেন, ‘আমার চরিত্রটা একজন ফিল্মস্টারের, যে ইন্ডাস্ট্রি নিয়ন্ত্রণ করে। খারাপ মানুষও বলা চলে। একটি সিনেমায় তো খল চরিত্র থাকবেই। সে কখনো পুলিশ, কখনো মন্ত্রী বা কখনো উকিল হতে পারে। তাই বলে হুট করে চরিত্রটিকে ব্যক্তিগতভাবে নিয়ে ছবি ব্যান করাটা কি ভালো দেখায়!’

ছবিটি প্রযোজনা করেছে সেলেব্রিটি প্রোডাকশন। একই প্রতিষ্ঠানের ‘নবাব এলএলবি’ সিনেমাতে পুলিশকে অশ্লীলভাবে উপস্থাপনের অভিযোগে অনন্য মামুনকে কারাগারে যেতে হয়েছিল। সম্প্রতি ছবিটি সেন্সরে জমা পড়লে ১১টি দৃশ্য বাদ দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares