Select Page

কেমন লাগল ‘মুসাফির’ ট্রেলার?

কেমন লাগল ‘মুসাফির’ ট্রেলার?

11150247_10206980070244774_1102699658152662197_n

টিজার ও কয়েকটি গানের পর ইউটিউবে প্রকাশ হলো আশিকুর রহমান পরিচালিত তৃতীয় সিনেমা ‘মুসাফির’র ট্রেলার। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত ভিডিওটি নিয়ে অনলাইনে দেখা গেছে নানান ধরনের প্রতিক্রিয়া।

সিনেমাটিতে আরিফিন শুভর বিপরীতে আছেন নবাগত মারজান জেনিফা। দেখা যাবে মিশা সওদাগর, টাইগার রবিসহ অনেককে।

এবার দেখে নিন ফেসবুক থেকে সংগৃহীত কিছু মন্তব্য—

শাহীন দেওয়ান লিখেছেন, ‘ইতিমধ্যে মুসাফিরের ট্রেইলার নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠেছে। কিন্তু আমি চাই এই ঝড়টি প্রেক্ষাগৃহেও বজায় থাকুক। শুধ ফেসবুকে নয় প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে ভালো ছবিকে সমর্থন দিতে হবে। নইলে আর কেউ ভালো কিছু করার সাহস পাবে না।’

ইকবাল হাসান লিখেছেন দীর্ঘ প্রতিক্রিয়া। তার নির্বাচিত অংশ, ‘… আরেফিন শুভ চমৎকার এই ডায়ালগটি মাধ্যমে উপস্থিত হয়েছেন। তার উপস্থিতি দেখেই যে কেউ ট্রেলারটি বার বার দেখতে চাইবে। এখানে তাকে নতুন করেই পাওয়া গেছে এ থেকে যা বোঝা যায় তা হলো শুভ মানেই নতুন কিছু। … অ্যাকশন দেখে মনে হলো যেন হলিউডের ট্রেলার, তবে কালার গ্রেডিংএ আরেকটু সচেতন হওয়া উচিৎ। এক জায়গায় দেখলাম আকাশের মেঘ সবুজ করা হয়েছে। তাছাড়া সবকিছু অসাধারণ।’

রহমান মতি লিখেছেন, ‘বাপরে বাপ! ট্রেলার একখান বানালেন জনাব আশিকুর রহমান। পরপর অনেকবার দেখে মাথায় ঘুরতে থাকল আরো অনেকবার দেখি। একটা ট্রেলারের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত যত্ন করে বানানো।ট্রেলার তো একেই বলে যেখানে দেখার পরেও চোখে লেগে থাকে।

আরিফিন শুভই বর্তমানের দিন বদলের কারিগর। ‘মুসাফির’ ট্রেলার প্রথম থেকে শেষ পর্যন্তই স্টাইলের ট্রেলার। অ্যাকশন, রোমান্স সবকিছুতে স্টাইল আছে নির্মাতার স্মার্টনেস হিশেবে।শু ভ একাই একশো স্টাইলে।ফাইটের নিত্যনতুন স্টাইল দেখলাম। ঘুরিয়ে মারা, মাটি থেকে ওঠা (নীল-সবুজ ব্যাকগ্রাউন্ড আর কালার গ্রেডিং এ নতুনত্ব আছে), দু’হাত বাড়িয়ে দাঁড়ানো ভিন্নরকম ব্যাকগ্রাউন্ডে, শত্রুপক্ষের কয়েকজনকে একইসাথে পরাস্ত করা এসব অভিনব লাগল।শুভর দাঁড়ানোর স্টাইল দেখলেই ভালো লাগে। নিজস্বতা আছে।এছাড়া শুভর এক্সপ্রেশন পরিণত ছিল।’

হাসান আবির লিখেছেন, ‘ট্রেইলারেই এতকিছু?…পুরো ছবিতে না জানি আরো কত কিছু…..চোখ ধাঁধানো এসব দৃশ্য শুধু আশিকুর রহমান আর আরেফিন শুভর পক্ষে-ই সব্ভব…..অপেক্ষা শুধু ২২শে এপ্রিল পর্যন্ত। অনেক অনেক শুভকামনা ‘মুসাফিরের’ জন্য…।’

তৌহিদ হাসানের ভাষ্য, ‘NO offence.. মুসাফির বাংলা মুভির ইতিহাসে খুবই বড় আশাজনক একটা মুভি হতে জাচ্ছে। আমি অনেক আশাবাদী। কিন্তু একটা জিনিশ মুভিটার কালার গ্রেডিং ১০০ তে ১০ ও পায় না। আকাশ রে সবুজ বানান হইসে। আর কি দেখবো জীবনে।’

এ দিকে কালার গ্রেডিং ও ভিএফএক্স নিয়ে ইউটিউবের মন্তব্যের ঘরেও অনেকে হতাশার কথা জানিয়েছেন।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares