Select Page

ছাড়পত্র পাচ্ছে না ‘প্রেমকাহন’!

ছাড়পত্র পাচ্ছে না ‘প্রেমকাহন’!

সেন্সর বোর্ডের নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়তে যাচ্ছে রুবেল আনুশের প্রথম ছবি ‘প্রেমকাহন’।

এ ছবিকে সেন্সর ছাড়পত্র না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বোর্ড সদস্যরা। অনলাইন পোর্টাল সারাবাংলাকে তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জসীম উদ্দিন।

গত ২৭ অক্টোবর সেন্সর বোর্ড সদস্যরা ছবিটি দেখেছেন। সাধারণতঁ শো শেষে সিদ্ধান্ত জানালো হলেও এ ছবি নিয়ে তাৎক্ষণিক কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি বোর্ড।

বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান সারাবাংলাকে বলেন, ‘আমরা সকল সদস্যরা আরেকবার বসে ছবিটি নিয়ে সিদ্ধান্ত নিবো। তবে এখন পর্যন্ত ছবিটি বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে সাধারণের জন্য প্রদর্শনের উপযুক্ত নয় বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া আছে।’

নাম না প্রকাশের শর্তে একজন বোর্ড সদস্য বলেন, ছবিটিতে অনেক বেশি পরিমাণে গালিগালাজ রয়েছে। আবার এর গল্পে এমন কিছু বিষয় দেখানো হয়েছে যা আমাদের সমাজ সংস্কৃতির সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এ ছবি সেন্সর দিলে আমাদের সমাজে বিরূপ প্রভাব পড়বে।

এ দিকে এর পরিচালক রুবেল আনুশ সেন্সর সিদ্ধান্তের কথা শুনেছেন বলে জানালেন সারাবাংলাকে। তিনি জানান, মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) তাকে বোর্ড থেকে আনুষ্ঠানিক চিঠি দেওয়া হবে—’প্রেমকাহন’ বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহের প্রদর্শনের উপযুক্ত নয়।

পুরো বিষয়ে হতাশ রুবেল আনুশ। তিনি বলেন, ‘আমার ছবিতে কিছু গালিগালাজ এসেছে চরিত্রের প্রয়োজনে এটা সত্য। কিন্তু সেন্সর কপি নিয়ম অনুযায়ী আমরা তা মিউট করে দিয়েছি। এছাড়া ছবিতে আমরা কোনো এডাল্ট দৃশ্য পর্যন্ত রাখিনি সেন্সরের কথা মাথায় রেখে। এখন ওনাদের আনুষ্ঠানিক চিঠি পাই, তারপর সিদ্ধান্ত নিবো।’

‘প্রেমকাহন’-এর শুটিং শুরু হয় ২০১৪ সালের আগস্টে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প নামে’। ছবিটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিমলা, শিমুল খান, রুমাই নোভিয়া, মামুন, আবুল হায়াত, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিন প্রমুখ।

ছবিটি প্রযোজনা করেছে আনুশ ফিল্মস। সহ-প্রযোজক রেড পিকচার্স।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares