Select Page

ডিসেম্বরে বছরের সবচেয়ে বড় ছবি, মুক্তি পাবে বিদেশেও

ডিসেম্বরে বছরের সবচেয়ে বড় ছবি, মুক্তি পাবে বিদেশেও

চলতি বছর প্রেক্ষাগৃহে উল্লেখযোগ্য কোনো ছবি মুক্তি পায়নি। বারবার পিছিয়ে গেছে একাধিক বড় ছবি। তেমন বহুল প্রতীক্ষিত পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’-এর প্রথম পর্ব মুক্তি পাবে বছর শেষে।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশের পর্দায় ছবিটি আসবে ৩ ডিসেম্বর। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন এর অন্যতম পরিচালক সানী সানোয়ার।

তিনি জানান, এই কারণে ছবিটি ঘিরে ব্যাপক প্রচারণার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সানী সানোয়ার বলেন, ‘শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার মাধ্যমে দেশে করোনার বিরুদ্ধে প্রাথমিক বিজয় ঘোষিত হয়েছে। জীবনযাত্রা এখন অনেকটা স্বাভাবিক। পাশাপাশি ভ্যাক্সিনেশনও চলছে। এখন শুধু একটি জিনিসই বাকি, আর তা হলো সিনেমা হলে বড় বাজেটের নতুন সিনেমা মুক্তি পাওয়া। এই ঘোষণার মাধ্যমে আমরা সেই কাজটি করতে যাচ্ছি। আশা করছি, সবাই আমাদের পাশেই থাকবেন। করোনার বড় ধাক্কা সামলে আবারও আমরা ফিরে যাবো সিনেমার সেই সুদিনে।’

আরও জানান, ‘মিশন এক্সট্রিম’র প্রচারণা ফের ব্যাপক আয়োজনে শুরু করতে যাচ্ছেন। শিগগিরই প্রকাশ করবেন সিনেমার ট্রেলার এবং চমকপ্রদ সব প্রমোশনাল কনটেন্ট।

পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমাটি সানী সানোয়ারের সঙ্গে যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন ফয়সাল আহমেদ। এর কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন আরিফিন শুভ। এ ছাড়া তাসকিন রহমান, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, সাদিয়া নাবিলা ও সুমিত সেনগুপ্ত রয়েছেন।

দীর্ঘদিন আটকে থাকার পর অবশেষে ‘মিশন এক্সট্রিম’র মুক্তির ঘোষণায় উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারজয়ী শুভ।

তিনি বলেন, ‘‘মিশন এক্সট্রিম’র জন্য নিজেকে ফিট করতে যে পরিশ্রম করেছি, সেটা কখনও ভোলার মতো নয়। এটার কারণে বড় ধরনের ইনজুরিতে পড়তে হয়েছে আমাকে। এখনও সেই সমস্যা কাটেনি। তবে এসব কষ্ট ভুলে যাবো, যখন ছবিটি দেখে দর্শকদের ভালো লাগবে। সিনেমাটি অবশেষে মুক্তি পেতে যাচ্ছে, এটা খুবই আনন্দের।’’

নির্মাতারা জানান, ছবিটি শিগগিরই ছাড়পত্রের জন্য সেন্সর বোর্ডে জমা দেবেন।

কপ ক্রিয়েশনের ব্যানারে নির্মিত সিনেমাটির অন্যান্য চরিত্রে রয়েছেন- রাইসুল ইসলাম আসাদ, ফজলুর রহমান বাবু, শতাব্দী ওয়াদুদ, মাজনুন মিজান, ইরেশ জাকের, মনোজ প্রামাণিক, আরেফ সৈয়দ, সুদীপ বিশ্বাস দীপ, রাশেদ মামুন অপু, এহসানুল রহমান, দীপু ইমামসহ অনেকে।

সিনেমাটি পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তথা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘সিটিটিসি’র কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত। একসঙ্গে এর দুটি কিস্তি তৈরি করা হয়েছে। গল্প ও চিত্রনাট্য লিখেছেন পুলিশ সুপার সানী সানোয়ার নিজেই। সিনেমাটির সহযোগী প্রযোজক হিসেবে রয়েছে মাইম মাল্টিমিডিয়া ও ঢাকা ডিটেকটিভ ক্লাব।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares