Select Page

ঢাকাই সিনেমায় প্রথম হেলিকপ্টারের ব্যবহার ১৯৬৮ সালে

ঢাকাই সিনেমায় প্রথম হেলিকপ্টারের ব্যবহার ১৯৬৮ সালে

পল্লিকবি জসিমউদদীনের কাব্যনাট্য অবলম্বনে নির্মিত ‘বেদের মেয়ে’ ছবির চিত্রায়নের জন্য ব্যবহার হয় হেলিকপ্টার

পোস্টার ও গবেষক মীর শামসুল আলম বাবুর সংগৃহীত পেপাত কাটিং

ঢাকার সিনেমার বয়স প্রায় সাত দশক। এখনো বাংলা সিনেমায় হেলিকপ্টার বা আকাশযানের ব্যবহার একটি বিশিষ্ট ঘটনা। কোনো কোনো ছবির পোস্টারে ছোট ছোট হেলিকপ্টার দেখা যায়। যদিও ঢাকায় সিনেমায় হেলিকপ্টার ব্যবহারের বয়স ৬০ বছরের বেশি।

আরও মজার বিষয় হলো, সেই হেলিকপ্টারের ছবি পোস্টারে ব্যবহার হয়নি। কারণ, গল্পের চাহিদার কারণে তা সম্ভব ছিল না। বরং গল্প যথাযথভাবে ফুটিয়ে তুলতে হেলিকপ্টারের দরকার ছিল। ছবির টপ শট নিয়ে এই আকাশযান ব্যবহৃত হয়।

সম্প্রতি পুরোনো পত্রিকার কাটিং ও ছবি সামনে এনে বিষয়টি আবারও তুলে ধরেন চলচ্চিত্র বিষয়ক গবেষক মীর শামসুল আলম বাবু।

পল্লিকবি জসিমউদদীনের কাব্যনাট্য অবলম্বনে নুরুল হক বাচ্চু’র ‘বেদের মেয়ে’ (১৯৬৯) ছবির চিত্রায়নের জন্য ব্যবহার হয় হেলিকপ্টার।

বাবু জানান, শুরুতে কবিপুত্র কামাল আনোয়ারের পলাশ ফিল্মসের ব্যানারে এম মহসীনের চিত্রনাট্যে পরিচালক কিউ এম জামান ১৯৬৮ সালের ১৪ মে ‘বেদের মেয়ে’ ছবির মহরত করেন। সুলতানা জামানকে নায়িকা করে কিছু শুটিং করেছিলেন, সেখানে জহির রায়হানও উপস্থিত ছিলেন।

পরে জহির রায়হানের চিত্রনাট্য ও প্রযোজনায় আনিস ফিল্মসের ব্যানারে কামাল আনোয়ারের চিত্রায়নে নুরুল হক বাচ্চুর পরিচালনায় রোজী, সুজাতা ও আজিমকে নিয়ে এই ছবি সমাপ্ত হয়।

বাবু বলছিলেন,‘বেদের মেয়ে’ ছবির আউটডোর শুটিংয়ে টপ শট নেওয়ার জন্য হেলিকপ্টার ব্যবহার হয়েছিল। আমার জানা মতে, এটাই এ দেশের শুটিংয়ে প্রথম হেলিকপ্টার ব্যবহার।


আমাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

Shares