Select Page

নবাব : যত ভুল

নবাব : যত ভুল

নবাব’ একটি মধ্যমমানের একাধিক হিন্দি সিনেমা থেকে ধার করা গল্পে নির্মিত কপ থ্রিলার। জয়দীপ মুখার্জী ও আব্দুল আজিজের (!) যৌথ পরিচালনায় যৌথ প্রযোজনার (!) এই সিনেমার ছোট-বড় মাত্র ১০টি ভুল আমাদের চোখে পড়েছে-

১. ঈদের ছবিগুলোর মধ্যে মোবাইলের ব্যবহারজনিত সবচেয়ে বেশি ভুল আছে এই সিনেমায়। কল রিসিভ করলেও স্ক্রিনে আলো জ্বলে না, কল রিসিভ করার পরও স্ক্রিন স্ট্যান্ডবাই মোডে থাকে ইত্যাদি।

২. শুভশ্রী শাকিব খানের মোবাইল নিয়ে স্ক্রিনে মাত্র তিন-চারবার টাচ করেই নিজের নাম্বারে কল দিলেন। মোবাইল নাম্বার তো দূরে থাক, তিন-চারবার চেপে টিএন্ডটি নাম্বারেও কল দেওয়া সম্ভব না।

৩. ছবিতে পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী ছিলেন অপরাজিতা আঢ্য। অথচ একটি দৃশ্যে স্পষ্ট দেখা গেছে ফ্লাইওভারের নিচে একটি দেয়ালে পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির ছবি দিয়ে হস্তশিল্প মেলার ব্যানার টানানো। এক রাজ্যে দুই মূখ্যমন্ত্রী !!! এই না হলে যৌথ প্রযোজনা।

৪. পাপ্পু আর তার সঙ্গী যখন পুলিশের অস্ত্র বিক্রি করে দিয়ে মুস্তাকের আস্তানা থেকে বের হচ্ছিল তখন মুস্তাকের এক লোক আস্তানার ভেতর থেকে শাটার খুলে দেখে বাইরে শাকিব খান দাঁড়িয়ে আছে। তখন সে একটা রড নিয়ে শাকিবকে আঘাত করার সময় অলৌকিকভাবে আস্তানার বাইরে শাকিবের পেছনে চলে এলো।

৫. ট্রাক থেকে অস্ত্র উদ্ধারের অপারেশনে পুলিশ টিমের সাথে শুভশ্রী ছাড়া অন্য কোনো রিপোর্টার ছিলেন না। সেই ঘটনা শুধু শুভশ্রী নিজেই ভিডিও করে তার চ্যানেলে দেখায়। অথচ টিভির পর্দায় দেখা যায় শুভশ্রী ক্যামেরা নিয়ে ভিডিও করছে। অন্যকোন রিপোর্টার না থাকা শর্তেও শুভশ্রীর ভিডিও করার দৃশ্য ভিডিও করলো কে ? এরপরও বলবেন ভূত বলতে কিছুই নেই।

৬. শাকিব খান পুলিশের ভ্যান থেকে পালালেন দুপুরের দিকে, অথচ রাজ্যের ‘দায়িত্বশীল’ ডেপুটি মিনিস্টার সাহেব এই তথ্য জানলেন রাতের বেলা !!! গাইরালা!

৭. পুলিশ ও অন্যান্য প্রতিরক্ষাবাহিনীর প্রটোকল হচ্ছে মাথায় ক্যাপ, টুপি বা হেলমেট না থাকলে স্যালুট দেওয়া বা নেওয়া যাবে না। শুধু ‘সাবধান’ পজিশন নিয়ে অবস্থান বা প্রস্থান করতে হবে। এই সিনেমায় একাধিকার খালি মাথায় পুলিশদের স্যালুট দিতে ও নিতে দেখা গেছে।

৮. বঙ্গ সম্মেলনে কোনরকম ছদ্মবেশ ছাড়াই ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন পুলিশের চোখে মোস্ট ওয়ান্টেড আসামী রাজীব চৌধুরী ওরফে শাকিব খান। অথচ মিডিয়া জার্নালিস্টরা তাকে কেন দেখতে পেল না বা দেখতে পেলেও কেন চিনল না এই রহস্য জাতির মাথা ঘুরিয়ে দিয়েছে।

৯. এতগুলো ক্যামেরা আর রিপোর্টারদের ঠিক সামনে থেকে মূখ্যমন্ত্রীর ঠিক পেছনে দাঁড়ানো তার পিএ সোমাকে শাকিব খান পিস্তল ঠেকিয়ে আড়ালে নিয়ে গেল, অথচ কেউ দেখলই না। এ জন্য সুপারস্টার হিরো আলম বলেছিলেন ‘শুধু প্রেম আর আইন না, মিডিয়াও মাঝে মাঝে অন্ধ হয়ে থাকে’।

১০. বঙ্গ সম্মেলনে মূখ্যমন্ত্রী যখন বক্তৃতা দিচ্ছিলেন তখন স্বাভাবিকভাবে রাজ্যের ডেপুটি চীফ মিনিস্টার হিসেবে অভয় সরকারকে মূখ্যমন্ত্রীর পাশে মঞ্চে বসে থাকার কথা ছিল। কিন্তু ঐ ব্যাটা গিয়ে মিডিয়া ও সাধারণ লোকদের সাথে দাঁড়িয়ে ছিল। আজব ক্যারেক্টার মাইরি!

(খাইচে আমারে, যৌথ প্রযোজনার দুই ছবিতে মোট ২২টা ভুল। কলকাতার ভাগে ১১টা, আমগো পিছনে ১১টা— ডিপজল)


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

স্পটলাইট

Movies to watch in 2018

Shares