Select Page

পরিচালকের তথ্যে ব্যাপক গড়মিল: ‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’র প্রকৃত আয় কত?

পরিচালকের তথ্যে ব্যাপক গড়মিল: ‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’র প্রকৃত আয় কত?

কিছুদিন আগে এক যুগ পূর্ণ হলো বদিউল আলম খোকন পরিচালিত এবং শাকিবসাহারা অভিনীত ‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’। মুক্তির পরপরই দারুণ ব্যবসা করে সিনেমাটি। কিন্তু আয় নিয়ে রয়েছে পরস্পরবিরোধী তথ্য?

খোদ পরিচালক খোকনই কয়েক বছরের ব্যবধানে সিনেমাটির আয় নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিলেন।

‘প্রিয়া আমার প্রিয়া’র যুগ পূর্তি উপলক্ষে এক প্রতিবেদনে সম্প্রতি ১৫ কোটি টাকা ব্যবসার উল্লেখ করেন। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় চলচ্চিত্র বিষয়ক গ্রুপগুলো সরগরম ছিল। কিন্তু পুরোনো একটি প্রতিবেদনে দেখা যায়, সিনেমাটি ব্যবসা করেছে ১৫ কোটির অর্ধেকেরও কম অর্থাৎ ৭ কোটি টাকা।

গত ১৩ জুন প্রকাশিত ‘যে সিনেমা শাকিবের ভাগ্য বদলে দেয়’ শিরোনামের প্রতিবেদনে খোকন বলেন, “‘আমি এ পর্যন্ত ৩৪টি ছবি নির্মাণ করেছি। বেশির ভাগ ছবিই শাকিবকে নিয়ে নির্মাণ করেছি। তবে এই ছবির সাফল্য অন্য কোনো ছবি ছুঁতে পারেনি। শাকিব খান ও সাহারার ক্ষেত্রেও তা–ই হয়েছে। তাদের অভিনীত অন্য কোনো ছবিই এই ছবিকে পেছনে ফেলতে পারেনি। প্রিন্টের খরচ ছাড়া মাত্র ৫০ লাখ টাকা বাজেটের এই ছবি থেকে প্রায় ১৫ কোটি টাকা আয় করেছিলেন প্রযোজক।”

অন্যদিকে ২০১৭ সালের ৯ মার্চ কালের কণ্ঠে প্রকাশিত ‘এক সপ্তাহেই ৮ ছবির নায়িকা সাহারা’ শিরোনামের প্রতিবেদনে খোকনের বরাত দিয়ে বলা হয়, “দুপুর ১২টার দিকে মধুমিতা হলের ম্যানেজারের ফোন। জানালেন, হাউসফুল। একইভাবে সন্ধ্যা নাগাদ সারা দেশ থেকে খবর এলো, ছবি সবখানেই হাউসফুল। দেড় কোটি টাকার ছবি সব মিলিয়ে ব্যবসা করল সাত কোটি টাকা। বাড়াতে হলো প্রিন্টসংখ্যাও। সাহারাকে আর পায় কে! বিতর্কিত নায়িকা থেকে হয়ে উঠলেন প্রথম সারির নায়িকা। এক সপ্তাহেই সাইন করলেন আট ছবি।”

এই হলো অবস্থা!


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares