Select Page

‘পোড়ামন’-এর আট বছর পর রাজু-সাইমনের ‘আর্তনাদ’

‘পোড়ামন’-এর আট বছর পর রাজু-সাইমনের ‘আর্তনাদ’

জাকির হোসেন রাজুর ‘জ্বী হুজুর’ সিনেমার মাধ্যমে ২০১২ সালে ঢালিউডে অভিষেক হয় সাইমন সাদিকের। পরপর ছবিও করছিলেন তারা। পরের বছর ‘পোড়ামন’ ব্লকবাস্টার হিট করে। কিন্তু চতুর্থ সিনেমা ‘দবির সাহেবের সংসার’-এর সেটে ঘটে বিপত্তি।

এর পর সাইমনকে আর রাজুর ছবিতে দেখা যায়নি। এমনকি বাদ করেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কয়েকটি ছবি থেকে। এরপর এক অর্থে সাইমনের ক্যারিয়ার হোঁচট খায়।

এবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা সাইমন সাদিক ‘আর্তনাদ’ নামের ছবিতে নাম লেখালেন। আর পরিচালকের আসনে থাকছেন জাকির হোসেন রাজু। সব মিলিয়ে শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত এই সিনেমার মাধ্যমে দীর্ঘ আট বছর পর রাজুর সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হলেন সাইমন।

এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমকে সাইমন সাদিক বলেন, ‘ভেতরে ভেতরে পুড়ে মরছিলাম কবে আমার ওস্তাদের সঙ্গে আবার সিনেমায় কাজ করার সুযোগ পাব! অবশেষে সেই আর্তনাদের অবসান হলো ‘আর্তনাদ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। আমার ওস্তাদ জাকির হোসেন রাজু স্যারের চলচ্চিত্রে দীর্ঘ আট বছর পর চুক্তিবদ্ধ হলাম। আলহামদুলিল্লাহ! আর সেটা সম্ভব হয়েছে আমাদের সবচেয়ে বড় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার জন্য। আমার ওপর আস্থা রাখার জন্য অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি মো. সেলিম খান সাহেবের কাছে।’

এর আগে শাপলা মিডিয়ার সঙ্গে তিন ছবির জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন সাইমন। যার সবগুলোরই নায়িকা মাহিয়া মাহি।

এ দিকে ‘পোড়ামন ২’ প্রসঙ্গে নতুন একটি তথ্য দিলেন অভিনেতা। তিনি জানান, এ ছবি নির্মাণের খবর শুনে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের কাছে ছুটে যান। কিন্তু তাকে নিরাশ হতে হয়।

জানান, ‘পোড়ামন’-এর দ্বিতীয় পার্ট নির্মাণের ঘোষণায় খুশি ছিলেন এই অভিনেতা। পরে জানতে পারেন, সেই ছবিতে তাঁকে রাখা হচ্ছে না। তিনি ছুটে যান প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের অফিসে। সেদিন একজন শিল্পীর জায়গা থেকে অনুরোধ করেছিলেন তিনি। এই অভিনেতা জানান, সেদিন তাঁর খুবই আফসোস লেগেছিল। ছবিতে মন থেকে তিনি অভিনয় করতে চেয়েছিলেন। সেদিন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান তাঁকে ফিরিয়ে দিয়েছিল। ক্যারিয়ারে এমন ঘটনাকে খুবই স্বাভাবিক মনে করেন এই অভিনেতা। তিনি মনে করেন, মিডিয়ায় কাজ করতে গেলে কোনো অভিমান পুষে রাখা যাবে না। নিয়তি মেনেই এগিয়ে যেতে হবে। তিনি বলেন, ‘ক্যারিয়ারে বিভিন্ন পরিস্থিতি তৈরি হয়। এগুলো জীবনের অংশ। জীবন তো সমান্তরালভাবে চলে না। এগুলো প্রয়োজনে হয়। জীবনকে উপলব্ধি করার জন্য দুঃসময়ে হতাশ হই না।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি ক্যারিয়ার নিয়ে খুবই খুশি। আমার কারও ওপর কোনো মান–অভিমান নেই। “পোড়ামন২” থেকে আমার ওস্তাদ নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু, সহ–অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি, আমিসহ প্রায় পুরো টিম বাদ পড়েছিল। সেদিন মন খারাপ হলেও ভাগ্যকে মেনে সেই অফিস ছেড়ে চলে এসেছিলাম। পরে “পোড়ামন২” দেখে ভালো লেগেছিল।’

বর্তমানে সাইমনের হাতে বেশ কিছু ছবি আছে। তবে উল্লেখ করার মতো ছবি হাতে গোণা। অন্যদিকে বড় তারকাদের নিয়ে নির্মাণ করলেও রাজু পরপর বেশ কয়েকটি ছবি ততটা চলেনি।

/প্রথম আলো


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares