Select Page

প্রযোজনায় আসছেন জাকির হোসেন রাজু

প্রযোজনায় আসছেন জাকির হোসেন রাজু

# বছর দুয়েক ধরে নির্মাণে নেই জাকির হোসেন রাজু
# দুটি সিনেমা নিয়ে ফিরছেন বলে জানালেন এ নির্মাতা। প্রযোজনাও করবেন তিনি
# বলেন, গান, মার্কেটিং, ডিস্ট্রিবিউশন, নির্মাণ সবই আলাদা হবে

সর্বশেষ ‘ভালো থেকো’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন জাকির হোসেন রাজু। এর পর দুই বছর ধরে নতুন ছবির কাজ করছেন না। চ্যানেল আই অনলাইনকে রাজু জানালেন, তিনি আবার নির্মাণে ফিরছেন। একসঙ্গে দুটি ছবির কাজ নিয়ে কামব্যাক করবেন। বিস্তারিত এপ্রিলে ঘোষণা জানাবেন।

রাজু বলেন, “আমি নিজেই প্রযোজনায় আসছি। প্রডাকশন হাউজের নাম ‘জেড ফেস্ট’। ইংরেজিতে ‘জিরো টু ইনফিনিটি’।”

আরো বলেন, ‘যে দুটি ছবি নির্মাণ করবো ওই ছবি দুটো হবে ট্রেন্ডের বাইরে। সম্পূর্ণ আলাদা। গান, মার্কেটিং, ডিস্ট্রিবিউশন, নির্মাণ সবই আলাদা। এখনকার ফরম্যাটের বাইরে। আমি ট্র্যাডিশনের মধ্য থেকে ট্র্যাডিশন ভাঙবোই। গল্প, গান সবকিছুই প্রস্তুত। অর্থের যোগানে কিছুটা আটকে আছি। একটা ছবি বাণিজ্যিকভাবে নির্মাণ করবো, আরেকটা জাতীয়ভাবে কিছু অর্জনের জন্য নির্মাণ করবো। প্রথমে বাণিজ্যিক ছবি দিয়ে একটা হুলস্থূল বাঁধাবো। প্রাথমিকভাবে শিল্পীদের সঙ্গে আলাপ করে রেখেছি। ‘

‘সিনেমা হলে গিয়ে ছবি দেখার জন্য ৫ জন মন্ত্রীকে জোর করা যায়, তাদের হলে আনা যায়। কিন্তু সাধারণ দর্শকদের আনা যায়না। ছবি যদি ভালো হয়, তবে এমনিতেই দর্শক হলে আসবে। জোর-জবরদস্তি করা লাগেনা’-বলে মনে করে চলচ্চিত্রের গুণী নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু। তার মতে, ‘এখন যেসব ছবি নির্মাণ হচ্ছে ৯৫ ভাগ ছবির গল্প একরকম। ঘুরে ঘুরে একই প্রেমের ক্যানভাস। ১০০ ছবির মধ্যে যে ৫ টি সিনেমা অন্যরকম হচ্ছে, সেগুলোই দর্শক দেখছে, হিট হচ্ছে।’

তিনি বললেন, ‘আমাদের গল্প সংকট নয়। গল্পটা খুঁজে নেওয়ার মানসিকতার অভাব। চারপাশে লাখ লাখ গল্প রয়েছে। এমনও আছে, একজন মানুষের জীবনের গল্প দিয়ে ভিন্নভিন্ন পাঁচটি সিনেমা নির্মাণ করা যায়। রেডিওতে প্রতি সপ্তাহে ‘জীবনের গল্প’ নামে একটি অনুষ্ঠান শুনি। ওখানে মানুষের জীবনের বিচিত্র সব গল্পে শুনে অবাক হই। সেখান থেকে অনেকগুলো নতুন গল্পের অনুপ্রেরণা পেয়েছি। সেগুলো দিয়ে ১০ টা সিনেমা প্লট বানানো যায়।’

জাকির হোসেন রাজু বলেন, ‘সিনেমা চলছে না, এখানকার মানুষজন হতাশ। এই হতাশা কাটিয়ে দেব। যারা বলে সিনেমা চলে না তাদের দেখিয়ে দেব।’

জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র ‘জীবন সংসার’। সালমান শাহ ও শাবনূর অভিনীত এ ছবিটি নব্বই দশকের তুমুল আলোচিত। এরপর নির্মাতা রাজু নির্মাণ করেন ‘মিলন হবে কত দিন’, ‘নিঃশ্বাসে তুমি বিশ্বাসে তুমি’, ‘স্বামীর সংসার’, ‘মনে প্রাণে আছো তুমি’, ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’, ‘ভালবাসলেই ঘর বাধা যায়না’, ‘জ্বি হুজুর’, ‘পোড়ামন’, ‘নিয়তি’ ও ‌‘প্রেমী ও প্রেমী’। ২০১২ সালে ‘ভালবাসলেই ঘর বাধা যায়না’ ছবির জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান এই নির্মাতা।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

[wordpress_social_login]

Shares