Select Page

বসুন্ধরাতেই থাকছে স্টার সিনেপ্লেক্স: অফিশিয়াল ঘোষণা

বসুন্ধরাতেই থাকছে স্টার সিনেপ্লেক্স: অফিশিয়াল ঘোষণা

অনেক জল্পনা-কল্পনা আর দর্শক-শুভানুধ্যায়ীদের হতাশার অবসান ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত সুখবর নিয়ে এলো স্টার সিনেপ্লেক্স। ১৬ বছর আগে পথচলার শুরু যেখানে সেই বসুন্ধরা সিটি শপিং মলেই থাকছে জনপ্রিয় এই মাল্টিপ্লেক্স সিনেমা হল।

বসুন্ধরার সঙ্গে ভাড়ার চুক্তি শেষ তাই স্টার সিনেপ্লেক্স আর সেখানে থাকছে না- এমন সংবাদ প্রকাশের পর বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। দেশের সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের প্রিয় স্থান বসুন্ধরা সিটি’র স্টার সিনেপ্লেক্স বন্ধ হয়ে যাবে এটা মানতে পারছিলেন না অনেকেই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হতাশা প্রকাশ করেন প্রচুরসংখ্যক মানুষ। বসুন্ধরা সিটি আর স্টার সিনেপ্লেক্স দু’টিই নগরীর মানুষের অন্যতম প্রিয় স্থান হয়ে উঠেছে। তাই একটির সঙ্গে আরেকটির বিচ্ছেদ রীতিমত গভীর বিরহ সৃষ্টি করেছে। অভিনেতা, অভিনেত্রী, প্রযোজক, পরিচালকসহ সিনেমাসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা সিদ্ধান্তটি পুনঃর্বিবেচনার দাবী জানান। গণমাধ্যমও বিষয়টিকে গুরুত্বের সঙ্গে প্রচার করে। গত কয়েকদিন ধরে এ নিয়ে নানা আলোচনার পর অবশেষে যে সংবাদ এলো তাতে স্বস্তি প্রকাশ করবেন সকলেই।

বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন হতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্টার সিনেপ্লেক্সের চেয়ারম্যান মাহবুব রহমান রুহেল।

তিনি বলেন, ‘বসুন্ধরা সিটি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমাদের ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। স্টার সিনেপ্লেক্স আগের মতই থাকছে এখানে। আমরা চুক্তি নবায়ন করতে যাচ্ছি।’

মানুষের প্রতিক্রিয়া এবং ভালোবাসা দেখে বসুন্ধরা কতৃপক্ষ তাদের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করেছে বলে জানান তিনি। এজন্য বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান জনাব আহমেদ আকবর সোবহানকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাতে চান তিনি। তার আন্তরিকতা এবং ইতিবাচক মনোভাবের কারণেই এটা সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন মাহবুব রহমান।

তিনি বলেন, ১৬ বছরের পথচলায় বসুন্ধরা কতৃপক্ষের আন্তরিক সহযোগিতা বরাবরই অনুপ্রাণিত করেছে আমাদেরকে। আগামীতেও এই সৌহার্দ্য, সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। অগণিত দর্শক, শুভানুধ্যায়ীর ভালোবাসা আর আমাদের আবেদন মূল্যায়ন করে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তারা চলচ্চিত্রপ্রেমী দর্শকদের প্রতি যে সম্মান দেখিয়েছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। একই সাথে অশেষ ধন্যবাদ জানাতে চাই আমাদের অগণিত দর্শক, শুভানুধ্যায়ীদের, যাদের ভালোবাসা স্টার সিনেপ্লেক্সকে আজকের অবস্থানে নিয়ে এসেছে। বসুন্ধরায় স্টার সিনেপ্লেক্স থাকবে না জেনে দর্শকদের যে প্রতিক্রিয়া দেখেছি তাতে আমি অভিভূত। এই ভালোবাসাই আমাদেরকে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা যোগায়।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে স্টার সিনেপ্লেক্সের পথচলা শুরু হয় রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র পান্থপথের বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে। বর্তমানে রাজধানীতে তাদের আরও তিনটি স্থানে মাল্টিপ্লেক্স রয়েছে। ধানমণ্ডির সীমান্ত সম্ভার ও মহাখালীর এসকেএস টাওয়ারে দু’টি শাখার পাশাপাশি মিরপুরে আরেকটি মাল্টিপ্লেক্স উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

Shares