Select Page

যৌথ প্রযোজনার নিয়ম মানেনি ‘তুই শুধু আমার’

যৌথ প্রযোজনার নিয়ম মানেনি ‘তুই শুধু আমার’


সম্প্রতি যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত চলচ্চিত্র ‘তুই শুধু আমার’ প্রিভিউ কমিটিতে জমা পড়েছে। কিন্তু ছবিটি যৌথ প্রযোজনার নিয়ম মানা হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন পরিচালক সমিতির মহাসচিব পরিচলক বদিউল আলম খোকন।

তিনি এনটিভি অনলাইনে বলেন, ‘এখন কোনো উৎসবে কলকাতার কোনো ছবি মুক্তি দিতে পারবে না। এমন আইন হওয়ার কারণে ‘তুই শুধু আমার’ ছবিটি ঈদে মুক্তি দেওয়ার পায়তারা চলছে। এই ছবিটি যৌথ প্রযোজনার নামে মুক্তি দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। এরই মধ্যে ছবিটি যৌথ প্রযোজনার প্রিভিউ কমিটিতে জমা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমরা যতটুকু জানি এই ছবিটির বাংলাদেশে কোনো শুটিং করা হয়নি। তার মানে তারা আমাদের যৌথ প্রযোজনার নিয়ম ভেঙে ছবিটি নির্মাণ করেছে। এমন ছবি কিছুতেই যৌথ প্রযোজনার ছবি হিসেবে মুক্তি পেতে পারে না।’

শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘আমি পুরো বিষয়টি জেনেছি, ছবিটি যদি কোনো অনিয়ম করে থাকে তবে যৌথ প্রযোজনার ছবি হিসেবে মুক্তি পাবে না।’

দেশের অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট ও ভারতের এসকে মুভিজ যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে ছবিটি। দেশের অনন্য মামুন ও কলকাতার জয়দ্বীপ মুখার্জি এই সিনেমার পরিচালক। অভিনয় করেছেন দেশের মাহিয়া মাহি, কলকাতার সোহম ও ওম।

এদিকে জাগো নিউজকে সিনেমাটি নির্মাণের ফিরিস্তি দেন নির্মাতা অনন্য মামুন। জানান, অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি থেকে ২০১৭ সালের ৫ জুলাই এই নামে ছবিটি নির্মাণে অনুমতি দেয়া হয়। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতি এর আগে ১৫ মে ‘তুই শুধু আমার’ নির্মাণে অনুমতি দেয়। ২৮ মে ছবিটি নির্মাণের অনুমতি দেয় যৌথ প্রযোজনা চিত্রনাট্য পরীক্ষা কমিটি। অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট যৌথ প্রযোজনা চিত্রনাট্য পরীক্ষা কমিটির অনুমতি নিয়ে ছবিটি নির্মাণের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করে। সকল তথ্য যাচাই করে তথ্য মন্ত্রণালয় ৫ সেপ্টেম্বর ছবিটি যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণ করার অনুমতি প্রদান করে।

তিনি আরো জানান, ঠিক একইভাবে ভারতের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে মুভিজ ভারত সরকারের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অধীনে গত বছরের ৮ জুলাই যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণের অনুমতি পায়। ছবিটির অধিকাংশ শুটিং হয় লন্ডনে। বাংলাদেশ অংশের শুটিং করার জন্য গত বছর ৩০ অক্টোবর ভারতের শিল্পীদের দেশে নিয়ে এসে শুটিং করার জন্য বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনের মাধ্যমে তথ্য মন্ত্রণালয়ের আবেদন করা হয়। কিন্তু ‘ওয়ার্ক পারমিট’ এর অনুমতি পাওয়া যায়নি। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরে অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট এই বছর ৫ ফেব্রুয়ারি তথ্য মন্ত্রণালয়কে লিখিতভাবে বিষয়টি জানায়। তথ্য মন্ত্রণালয় ১৩ মার্চ ভারতীয় শিল্পীদের বাংলাদেশে প্রবেশের অনুমতি প্রদান করে।

তবে বাংলাদেশে শুটিং হয়েছে কি-না এ নিয়ে জাগো নিউজকে কোনো তথ্য দেননি অনন্য মামুন।

আরো জানান, অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্ট যৌথ প্রযোজনা চিত্রনাট্য পরীক্ষা কমিটির নিকট ১০ মে প্রিভিউ করার জন্য আবেদন করে। কিন্তু তারিখ লিখিতভাবে তিনবার নির্ধারণ করেও কোনো কারণ না দেখিয়ে তা বাতিল করে। ২৩ মে, ২৭ মে ও ৪ জুন ছবিটি দেখার কথা থাকলেও দেখেননি তারা। অবশেষে ৬ জুন নির্ধারণ করা হয়।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?

[wordpress_social_login]

Shares