Select Page

যৌথ প্রযোজনার ‘বালিঘর’ করছেন না তিশা

যৌথ প্রযোজনার ‘বালিঘর’ করছেন না তিশা


বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনার ‘বালিঘর’ করছেন না জানালেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। সিনেমাটি পরিচালনা করছেন কলকাতার অরিন্দম শীল। বাংলাদেশ থেকে লগ্নি করছে বেঙ্গল ক্রিয়েশনস। সাথে আছে ভারতের নাথিং বিয়ন্ড সিনেমা।

অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের মাধ্যমে সোমবার দুপুরে নিজের সিদ্ধান্ত জানান তিশা।

তিনি লেখেন, “আমার ভক্ত এবং দর্শক ভাই-বোনদের উদ্দেশ্যে একটা তথ্য জানিয়ে রাখতে চাই যাতে ভবিষ্যতে কোনো ভুল বোঝাবুঝি আর গুজবের সুযোগ না থাকে।

কলকাতার বিশিষ্ট পরিচালক অরিন্দম শীলের ‘বালিঘর’ ছবিটি আমি আর করছি না। শিডিউলঘটিত জটিলতার কারণে আমি সেই ছবিটা থেকে বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এই বিষয়ে পরিচালকের সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছে। এবং আমরা সকল প্রকার সৌজন্য বজায় রেখেই একমত হয়েছি। আমি ছবিটার জন্য শুভ কামনা জানিয়ে রাখছি।”

‘বালিঘর’ ছবিতে তিশাকে অভিনয়শিল্পী হিসেবে পেয়ে খুশি হয়েছিলেন পরিচালক অরিন্দম শীল। তিশা সম্পর্কে তিনি প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমি যখন যৌথভাবে ছবি বানাব বলে ঠিক করেছি, শুরু থেকেই একজনকে ঠিক করে রেখেছিলাম। সে হচ্ছে তিশা। আমি তিশার অনেক দিনের ভক্ত। তার অভিনীত “থার্ড পারসন সিঙ্গুলার নাম্বার” ও “টেলিভিশন” ছবি দেখেছি। আমি পরিচালনায় এসেছি ২০১৩ সালে। এরই মধ্যে আটটা ছবি মুক্তি পেয়েছে। তিশার মতো শিল্পীরা, যারা দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে, তাদের নিয়ে কাজ করতে পারার অভিজ্ঞতা দারুণ।’

তিশাকে নিয়ে কাজ করতে না পারায় অরিন্দম শীলের মনেও দুঃখবোধ কাজ করছে। প্রথম আলোর সঙ্গে আলাপে আজ দুপুরে ভারতের এই পরিচালক বললেন, ‘আমার দুর্ভাগ্য যে আমি ওর সঙ্গে কাজ করতে পারছি না। এর বেশি আর কিছু বলতে পারছি না।’

পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক সুচিত্রা ভট্টাচার্যের ‘ঢেউ আসে ঢেউ যায়’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হবে সিনেমাটি। বাংলাদেশ থেকে অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ ও নওশাবা আহমেদ। ভারতীয় শিল্পীদের মধ্যে আছেন আবির চ্যাটার্জি, পার্নো মিত্র, রাহুল ব্যানার্জী ও অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

সিনেমাটির শুটিং শুরু হবে সেপ্টেম্বরে।


মন্তব্য করুন

Shares