Select Page

শাকিবকে টেক্কা দিতে জিতের ছবি আনছে শাপলা মিডিয়ার সেলিম খান!

শাকিবকে টেক্কা দিতে জিতের ছবি আনছে শাপলা মিডিয়ার সেলিম খান!

একবছর আগে নিজের প্রযোজনায় নির্মিত ছবিকে সুরক্ষিত রাখতে উৎসবে ভারতীয় সিনেমা আমদানির বিপক্ষে আদালতের রায় নিয়ে আসে প্রযোজক সেলিম খান সংশ্লিষ্টরা। নানাভাবে শাকিব অভিনীত অন্য প্রযোজকের ছবি আটকে দেওয়ার চেষ্টা করা হয়। বছর ঘুরতেই তারাই চাচ্ছেন কলকাতার সিনেমা আমদানি করতে। সেটা আবার ঈদুল ফিতরে।

বেশ আগেই শোনা গিয়ে শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত শাকিবের ‘শাহেনশাহ’ পাবে ঈদে। কিন্তু নিজের প্রযোজিত ‘পাসওয়ার্ড’ মুক্তি পেতে যাওয়ায় অন্য সিনেমা নিয়ে আগ্রহী নন এই নায়ক।

ঈদে কলকাতায় মুক্তি পাবে জিৎ-কোয়েল অভিনীত ‘শুরু থেকে শেষ’ এবং দেব-রুকমিনীর ‘কিডন্যাপ’। দুই ছবির দিকে শাপলা মিডিয়ার চোখ থাকলেও আপাতত প্রথমটির দিকেই মনোযোগ।

এই নিয়ে বর্তমানে শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান কলকাতায় অবস্থান করছেন। এ বিষয়ে প্রতিষ্ঠানটির ম্যানেজার বাদল জাগো নিউজকে বলেন, ‍“জিতের ‘শুরু থেকে শেষ’ ছবিটি আনার প্রক্রিয়া চলছে। এখনো চূড়ান্ত কিছু হয়নি। আগামীকাল বুধবার বিষয়টি চূড়ান্তভাবে জানাতে পারবো।”

‘শেষ থেকে শুরু’ ছবির প্রযোজক জিৎ নিজেই। তিনিও চাইছেন তার ছবিটি ঈদে বাংলাদেশে মুক্তি পাক। সেজন্য নাকি তিনিও বেশ চেষ্টা করে যাচ্ছেন সেলিম খানকে ছবিটি আমদানির ব্যাপারে সবরকম সাহায্য করতে।

এদিকে ঈদসহ বিভিন্ন উৎসবে বিদেশের সিনেমা মুক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। গেল বছর ৯ মে হাইকোর্টে নিপা এন্টারপ্রাইজের পক্ষে প্রযোজক সেলিনা বেগম বাংলাদেশের উৎসবের সময়ে বিদেশি ছবি মুক্তির ওপর স্থগিত চেয়ে রিট আবেদন করেন। রিট নম্বর ৬২২৯। ১০ মে রিটকারীর পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন আইনজীবী শফিক আহমেদ ও মাহবুব শফিক।

সেদিনই হাইকোর্টের বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহা, দুর্গাপূজা, পয়লা বৈশাখে যৌথ প্রযোজনা ও আমদানি করা ছবি মুক্তির ওপর স্থগিতাদেশ দেন। অভিযোগ আছে সেলিম খানের উৎসাহেই এই মামলা করেছিলেন নিপা নামের ওই প্রযোজক। তিনি নাকি সেলিম খানের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়। সেই রিট নাকি প্রত্যাহারের প্রস্তুতি চলছে!

তবে সম্প্রতি বিদেশি (মূলত ভারতীয়) সিনেমা আমদানি সহজ করার দাবিতে সব সিনেমা হল বন্ধের ঘোষণা দেয় মালিকরা। এরপর ২ এপ্রিল দেশের সিনেমা হল মালিক সমিতির সংগঠন চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির নেতারা তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদের সঙ্গে তার অফিসে ঘণ্টাব্যাপী সভা করেন। সভা শেষে সিনেমা হল বন্ধ ঘোষণা আপাতত স্থগিত করেন প্রদর্শক সমিতির নেতারা। তখন বলা হয়, বিদেশি সিনেমা দ্রুত ছাড়ের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares