Select Page

শাকিবের অসদাচরণে অভিযোগ দাখিল

শাকিবের অসদাচরণে অভিযোগ দাখিল

# ‘শাহেনশাহ’ সিনেমার শুটিং সেটে দুই সাংবাদিকের উপর আক্রমন করেন শাকিব খান ও তার সঙ্গীরা
# পরে গণমাধ্যমে এ বিষয়ে মিথ্যা তথ্য দেন ঢালিউড নায়ক
# শাকিব ও শামীম আহমেদ রনির বিরুদ্ধে তিন সমিতিতে অভিযোগ করেছেন আক্রান্ত সাংবাদিকরা
# অসদাচরণের জন্য এর আগেও শাকিব ও রনি নিষিদ্ধ হন

শাকিব খান ও পরিচালক শামীম আহমেদ রনির বিরুদ্ধে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট তিন সমিতিতে অভিযোগ জানিয়েছেন দুই সাংবাদিক।‘শাহেনশাহ’ সিনেমার শুটিং সেটে এ নায়ক, পরিচালক ও তাদের সঙ্গীরা দুই সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করেন। পরে এ নিয়ে গণমাধ্যমে মিথ্যা তথ্যও দেন।

শনিবার সন্ধ্যায় জিয়া উদ্দীন আলম ও সুদীপ্ত সাঈদ খান বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি গিয়ে পত্র জমা দেন। এর আগে দুপুরে আরও একটি চিঠি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি (বাচসাস) পৌঁছে দেওয়া হয়।

বিএফডিসিতে সমিতিগুলোর কার্যালয়ে এসময় উপস্থিত হন সাংবাদিক মইনুল হক রোজ, মাজহার বাবু, তুষার আদিত্য, রাহাত সাইফুল, লিমন আহমেদ, কামরুল ইসলাম রিফাত, রাজন, এ এইচ মুরাদ, ফাতেমা কাউসার, সুশীল রায়, অরণ্য শহীদ, মাসুম আওয়াল, আহমেদ জামান শিমুল, এ মিজানসহ আরও অনেকে।

লিখিত বিবরণীতে বলা হয়, গত ৮ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার বিএফডিসিতে ‌‌‘শাহেনশাহ’ নামক চলচ্চিত্রের শুটিং চলছিল। বিকালের দিকে চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে সিনে ডিরেক্টরিয়াল অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (সিডাব) সদস্যদের বিরোধ বাঁধে। তাদের ঝগড়া প্রায় হাতাহাতির পর্যায়ে চলে যায়। পেশাগত দায়িত্বের কারণে সেই পরিস্থিতির ছবি ও ভিডিও ধারণ করতে গেলে ইউনিটের লোকজন সাংবাদিকদের বাধা দেন। এরপর শাকিব খান নিজে এসে মিডিয়া ভুবনের সাংবাদিক জিয়া উদ্দীন আলম ও নিউজজি২৪.কমের সুদীপ্ত সাইদ খানের ওপর চড়াও হন। উপস্থিত আরও সাংবাদিকদেরকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন তিনি। এসময় তাদেরকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও অপমানিত করেন শাকিব খান।

এতে আরও বলা হয়, ঘটনার এক পর্যায়ে শাকিব খান তাদের মোবাইল জোরপূর্বক কেড়ে নেন এবং মোবাইল থেকে সেই ঘটনার ধারণকৃত ছবি, ভিডিও ফুটেজসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ফাইলও ডিলিট করে দেন। এ কাজে তাকে সহায়তা করেন পরিচালক শামীম আহমেদ রনি, প্রযোজক লিটন হাশমী ও সহকারী পরিচালক পূজনসহ আরও অনেকে। পেশাগত কাজে বাধা দেওয়াই শুধু নয়, ঘটনা পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে শাকিব খান নানা মিথ্যাচার করে ঘটনাটি অন্যদিকে প্রবাহিত করারও চেষ্টা করছেন।

শাকিব খানের মতো একজন জনপ্রিয় তারকার এমন আচরণে হতবাক বলে সাংবাদিকরা জানান।

অভিযোগপত্র পাওয়ার পর বাচসাস সভাপতি আব্দুর রহমান বলেন, ‘রবিবার মিটিং ডেকে করণীয় সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেব আমরা।’

অন্য দুই চিঠি গ্রহণ করেন বাংলাদেশ পরিচালক সমিতির মহাসচিব বদিউল আলম খোকন ও শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

তবে অভিযোগের এর এই বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেননি শাকিব।

উল্লেখ্য, অসদারণের জন্য এর আগেও নিষিদ্ধ হন শাকিব ও রনি।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?

[wordpress_social_login]

Shares