Select Page

সাদের জন্মদিনে এই ১২ হলে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’

সাদের জন্মদিনে এই ১২ হলে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’

১২ নভেম্বর পরিচালক আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ সাদের জন্মদিন। আর এদিন দেশে মুক্তি পেল তার দ্বিতীয় সিনেমা ‘রেহানা মরিয়ম নূর’। বাংলাদেশ থেকে প্রথমবার কান চলচ্চিত্র উৎসবে অফিসিয়াল সিলেকশন পাওয়া এ ছবি দেশে পেয়েছে বারোটি প্রেক্ষাগৃহ।

এত উদযাপিত সিনেমা হিসেবে হল সংখ্যা একদম কম। আবার দেশের দর্শক ও আধুনিক প্রেক্ষাগৃহের ধারণার সঙ্গে পুরোপুরি মিলেও যায়।

প্রেক্ষাগৃহগুলো হলো—

রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্সের বসুন্ধরা সিটি (দুপুর ১টা, বিকেল ৩টা ১০, সন্ধ্যা সাড়ে ৫টা, রাত পৌনে ৮টা), ধানমন্ডির সীমান্ত সম্ভার (দুপুর পৌনে ১টা, সন্ধ্যা সোয়া ৫টা, রাত সাড়ে ৭টা), মহাখালীর এসকেএস টাওয়ার (দুপুর ৩টা ২০, সন্ধ্যা পৌনে ৮টা), মিরপুরের সনি স্কয়ার (দুপুর ১টা, বিকেল ৩টা ১০, সন্ধ্যা ৫টা ২০, রাত সাড়ে ৭টা) শাখা; ব্লকবাস্টার সিনেমাস (দুপুর ১২টা ১০, দুপুর ২টা ২৫, বিকাল ৪টা ৪০, রাত ৭টা); শ্যামলী সিনেমা (দুপুর ১২টা ৪০, দুপুর সোয়া ৩টা, সন্ধ্যা সোয়া ৬টা, রাত ৮টা) ও মধুমিতা (দুপুর ১২টা, বিকেল ৩টা, সন্ধ্যা ৬টা ও রাত ৯টা।

ঢাকার বাইরে সেনা অডিটোরিয়াম (সাভার), সিলভার স্ক্রিন, সুগন্ধা (চট্টগ্রাম), সিনেস্কোপ (নারায়ণগঞ্জ) ও মধুবন (বগুড়া; দুপুর ১২টা, বিকেল ৩টা, সন্ধ্যা ৬টা ও রাত ৯টা)

এ দিকে দেশে মুক্তির আগের দিন অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত নামজাদা এশিয়া প্যাসিফিক স্ক্রিন অ্যাওয়ার্ডস (অ্যাপসা) জিতলেন ‘রেহানা মরিয়ম নূর’ নির্মাণের জন্য আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ এবং একই ছবিতে অভিনয়ের জন্য সেরার স্বীকৃতি পেলেন আজমেরী হক বাঁধন।

এতে ২৫টি এশিয়া প্যাসিফিক দেশের মোট ৩৮টি ছবি মনোনয়ন তালিকায় ছিলো এবার। এরমধ্যে যৌথভাবে ‘জুরি গ্র্যান্ড প্রাইজ’ (উৎসবের দ্বিতীয় পুরস্কার) জিতে নিয়েছেন বাংলাদেশের সাদ এবং অস্ট্রেলিয়ার সিনেমা ‘দ্য ড্রোভারস ওয়াইফ: দ্য লিজেন্ড অব মলি জনসন’।

এবছর সেরা অভিনেত্রী বিভাগে ৫ জন পেয়েছিলেন মনোনয়ন। এরমধ্যে চূড়ান্ত বিচারে সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার অর্জন করেন ‘রেহানা’ চরিত্রে অভিনয় করা আজমেরী হক বাঁধন।

কাল চলচ্চিত্র উৎসবে প্রিমিয়ারের পর বাঁধনের কান্না ও সাদের সান্ত্বনা

অ্যাপসায় সেরা অভিনেত্রী বিভাগে বাঁধনের প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার লিয়া পারসেল (দ্য ড্রোভারস ওয়াইফ: দ্য লিজেন্ড অব মলি জনসন), নিউজিল্যান্ডের এসি ডেভিস (দ্য জাস্টিস অব বানি কিং), ইসরায়েলের আলেনা ওয়াইভি (এশিয়া) এবং রাশিয়ার ভ্যালেন্টিনা রোমানোভা-চিস্কাইরি (পুগায়া)।

ছবিটির চিত্রনাট্য ও সম্পাদনা করেছেন নির্মাতা আবদুল্লাহ মোহাম্মদ সাদ নিজেই।

একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক রেহানা মরিয়ম নূরকে কেন্দ্র করে এর গল্প। কর্মস্থলে ও পরিবারে তাল মেলাতে গিয়ে হিমশিম খেতে হয় তাকে। কারণ, শিক্ষক, চিকিৎসক, বোন, কন্যা ও মা হিসেবে জটিল জীবনযাপন করেন তিনি।

১ ঘণ্টা ৪৭ মিনিট ব্যাপ্তির ছবিটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন আজমেরী হক বাঁধন। এছাড়া বিভিন্ন চরিত্রে আছেন সাবেরী আলম, আফিয়া জাহিন জায়মা, আফিয়া তাবাসসুম বর্ণ, কাজী সামি হাসান, ইয়াছির আল হক, জোপারি লুই, ফারজানা বীথি, জাহেদ চৌধুরী মিঠু, খুশিয়ারা খুশবু অনি, অভ্রদিত চৌধুরী।

পোটোকল ও মেট্রো ভিডিও’র ব্যানারে ছবিটি প্রযোজনা করেছেন সিঙ্গাপুরের প্রযোজক জেরেমি চুয়া।

ইতিমধ্যে ‘রেহানা মরিয়ম নূর’-এর বেশ কয়েকটি দেশের আন্তর্জাতিক প্রদর্শন স্বত্ব বিক্রি হয়েছে। আগামী বছর থেকে সে সব দেশে ছবিটি চলবে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares