Select Page

… অথচ হৃদিতার জন্য পাঁচটি ছবি ফিরিয়ে দেন পূজা

… অথচ হৃদিতার জন্য পাঁচটি ছবি ফিরিয়ে দেন পূজা

ইস্পাহানি আরিফ জাহানের পরিচালনায় আনিসুল হকের উপন্যাস ‘হৃদিতা’ অবলম্বনে একই নামে ছবিটি নির্মিত হওয়ার কথা ছিল। সরকারি অনুদান পাওয়া ‘হৃদিতা’য় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন পূজা চেরি।

সম্প্রতি ‘জালিয়াতি’র অভিযোগে আটকে গেছে ছবিটির কাজ। অথচ গল্প এত পছন্দ হয়েছিল যে অন্তত পাঁচটি ছবির কাজ ফিরিয়ে দিয়েছিলেন পূজা। শুধু তা-ই নয়, পরিচালকের কাছে গ্রুমিংও শুরু করেছিলেন।

২৭ সেপ্টেম্বর অনিয়ম, অনুদানের শর্ত লঙ্ঘন ও নীতিমালা না মানার অভিযোগে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ‘হৃদিতা’র অনুদান বাতিল ও সব ধরনের কার্যক্রম স্থগিত রাখার আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাদুকাঠির কর্ণধার মো. মিজানুর রহমান।

তার অভিযোগ, ছবিটি নির্মাণের জন্য আনিসুল হকের কাছ থেকে অনুমোদনের পাশাপাশি শিল্পীদের সাইনিং মানি ও মহরতের সব খরচ তিনিই বহন করেছেন। অথচ অনুদান পাওয়ার পর ইস্পাহানি আরিফ জাহান তার সঙ্গে প্রতারণা করেছেন।

খবরটি পাওয়ার পর পূজা ভীষণ হতাশ হয়েছেন। তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘কোনো ছবির জন্য এতটা পরিশ্রম করিনি। নিজেকে প্রস্তুত করেছিলাম। শেষ মুহূর্তে ছবিটি স্থগিত হবে ভাবিনি। আগে বিষয়টির সুরাহা হোক, তারপর অভিনয় নিয়ে ভাবব। এই মুহূর্তে আর কিছু বলতে চাই না।’

কয়েক দিন আগে প্রযোজক মিজানুর রহমান এ অভিযোগ তুললেও কোনো মন্তব্য করেননি ইস্পাহানি আরিফ জাহান। এবার তাদের বিরুদ্ধে পাঠানো হলে আইনি নোটিশ।

‘হৃদিতা’য় পূজার বিপরীতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন এবিএম সুমন। এই গল্পে ‘ড্রিমগার্ল’ নামের ছবিতে গত বছর চুক্তিবদ্ধ হন অধরা খান ও রোশান।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares