Select Page

অনুদানের ২২ বছর পর হলে ছবি, কিছু কখনোই মুক্তি পাবে না!

অনুদানের ২২ বছর পর হলে ছবি, কিছু কখনোই মুক্তি পাবে না!

১৯৭৬-৭৭ অর্থবছর থেকে অনুদানপ্রথা চালুর পর দেড় শতাধিক চলচ্চিত্রের মধ্যে বেশিরভাগ চলচ্চিত্রই নির্ধারিত সময়ের মধ্যে মুক্তি দিতে পারেননি নির্মাতারা; এর মধ্যে ২০টির মতো চলচ্চিত্র এখনও আলোর মুখ দেখেনি। এর কিছু হয়তো কখনো দেখবেই না।

জেনে নিন কিছু অবাক করা তথ্য—

১৯৯৬-৯৭ অর্থবছরে অনুদান পাওয়া অভিনেতা মাসুম আজিজ পরিচালিত ‘সনাতনী গল্প’ মুক্তি পেয়েছিল প্রায় ২২ বছর পর। ২০১৮ সালের অক্টোবরে পাবনার একটি প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি মুক্তি পেলেও ঢাকায় কোনও হলে তা মুক্তি পায়নি।

১৯৭৬-৭৭ অর্থ বছরে সরকারি অনুদানে নির্মিত কবির আনোয়ারের ‘তোলপাড়’ চলচ্চিত্র মুক্তি নেওয়া হয় ১০ বছর পর।

১৯৯৫-৯৬ অর্থবছরের নির্মাতা মনিরুজ্জামান মনিরের চলচ্চিত্র ‘পদ্মা আমার জীবন’ চলচ্চিত্র মুক্তি পেয়েছিল এক যুগ পর ২০০৮ সালে। এ ছাড়া ১৯৭৬-৭৭ অর্থবছরে অনুদানপ্রাপ্ত বেবি ইসলামের ‘মেহের জান’সহ পরবর্তীতে বিভিন্ন বছরে অনুদান পাওয়ায় এনামুল করিম নির্ঝরের ‘নমুনা’, চিত্রনায়ক উজ্জলের ‘উদয় তারা’, আখতারুজ্জামানের ‘সূচনা রেখার দিকে’, মারুফ হাসান আরমানের ‘নেকড়ে অরণ্য’সহ ২০টির মতো চলচ্চিত্র এখনও আলোর মুখ দেখেনি।

১৯৮২-৮৩ অর্থ বছরে ‘ডাক দিয়ে যাই’, ‘ফুলমতি’, ‘পেনশন’ ও ‘উদয় তারা’ ১ লাখ টাকা করে অনুদান পায়। পরিচালক ইসমাইল মোহাম্মদের মৃত্যুর পর ‘ডাক দিয়ে যাই’ ও মাসুদ করিমের মৃত্যুর পর ‘ফুলমতি’ চলচ্চিত্র নির্মাণ বন্ধ হয়ে যায়।

নায়ক আশরাফ উদ্দিন আহমেদ উজ্জল ‘উদয় তারা’র জন্য ১ লাখ টাকা অনুদান পেলেও ছবি জমা দেননি, টাকাও ফেরত দেননি।

তবে এনামুল করিম নির্ঝর ২০০৭-০৮ অর্থবছরে ১৬ লাখ টাকা অনুদান পান ‘নমুনা’র জন্য। যথাসময়ে নির্মাণ করে ছবি জমা দিলেও সেন্সর বোর্ড ছবিটি আটকে দেয়।

চলতি দশকের চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ২০১২-১৩ অর্থবছরে অনুদান পাওয়া নির্মাতা তারেক মাসুদের ‘কাগজের ফুল’ চলচ্চিত্রের কাজ নির্মাতার মৃত্যুর পর থেকেই আটকে আছে।

২০১১-১২ সালে অনুদান পাওয়া ‘একা একা’ চলচ্চিত্রের পরিচালক সৈয়দ সালাউদ্দীন জাকী অসুস্থতার কারণে ছবিটি নির্মাণ করতে পারেননি। ছবি হবে কিনা তা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে।

এ দিকে করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সাত মাসেরও বেশি সময় ধরে সব ধরনের শুটিং বন্ধ থাকায় ২০১৯-২০ অর্থবছরে অনুদানপ্রাপ্ত চলচ্চিত্রগুলোর জন্য নির্ধারিত সময় শিথিল করা হবে বলে জানিয়েছে তথ্য মন্ত্রণালয়।

সম্প্রতি যথা সময়ে ছবি মুক্তি দিতে না পারা ও নোটিশে জবাব না দেওয়ায় ২০১৬ সালের এক মামলায় গ্রেপ্তার হন পরিচালক টোকন ঠাকুর, একদিন পরই জামিন পান তিনি। তিনি ‘কাঁটা’ নামের সিনেমার জন্য অনুদান পান ২০১২-১৩ অর্থ বছরে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

Shares