Select Page

অভিনেত্রীকে কুপ্রস্তাব, মার খেলেন পরিচালক

অভিনেত্রীকে কুপ্রস্তাব, মার খেলেন পরিচালক

sadia afrin dances with hot item song bangla filmঅভিনেত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়ার ঘটনা আরও একটি বাড়ল। এবার অনৈতিক প্রস্তাবের শিকার আইটেম গার্ল শিল্পী সাদিয়া আফরিন। অভিযোগের তীর পরিচালক এম কে জামানের দিকে। এ ঘটনার জেরে মারও খেয়েছেন তিনি। কালের কন্ঠ

কদিন ধরেই মিডিয়াপাড়ায় সাদিয়া আফরিনকে কু প্রস্তাব দেয়ার খবর ভেসে বেড়াচ্ছিল। শোনা যাচ্ছিল, বিশাক্ত ইয়াবা ছবির প্রযোজক আকাশ ও রনি এবং পরিচালক এম কে জামান সাদিয়াকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়েছেন। সাদিয়ার ভাষায়, ‘সিনেমার মহরত হওয়ার কিছুদিন পর এ সিনেমার প্রযোজক মঞ্জুরুল ইসলাম রনি ফোন করে আমাকে অনৈতিক কাজের প্রস্তাব দেন। আমি বলেছি, আপনাদের এ ধরনের কন্ডিশন থাকলে আমাকে আগে জানাতেন। আমি কাজ করতাম না। এ সব কাজ আমি করতে পারব না। এরপর তিনি আমাকে বলেন,  ঠিক আছে এটা না পারলে তুমি ১০ লাখ টাকা এ সিনেমায় ইনভেস্ট করো। এ দুইটার মধ্যে একটা তোমাকে করতে হবে। এ বিষয় নিয়ে সিনেমার পরিচালক এম কে জামান ও প্রযোজক সিরাজুল ইসলাম আকাশ আমাকে একই কথা বলেন। তারা আমার সিদ্ধান্ত জানার জন্য বার বার ফোন করেন। আমার কাছ থেকে কোনো সাড়া না পেয়ে আমাকে জানিয়েছেন তারা নতুন নায়িকা নিবেন।’

তবে পরিচালক বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি বলেছেন, আমার জানা মতে সাদিয়া আফরিন খুব ভালো শিল্পী। সে ভালো অভিনয় করে। গল্পের পরিবর্তনের কারণে সাদিয়া বাদ দিয়ে অন্য নায়িকা নিয়েছি। যেহেতু সাদিয়াকে সাইন করিয়েছি তাই এ হাউজের অন্য সিনেমায় সাদিয়াকে দিয়ে কাজ করাবো।’

কিন্তু তার এ বক্তব্যের পরেই মারধোরে শিকান হন এম কে জামান। মারামারির ঘটনায় অভিযুক্ত বিপ্লব শরীফ তারই সতীর্থ – দুজনেই পরিচালক কাজী হায়াতের শিষ্য। নির্দোষ হওয়ার পরেও কেন প্রতিবাদ করেন নি – এই অভিযোগে তাকে মারেন বিপ্লব। অবশ্য পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার একে হাতাহাতি ও বাক-বিতণ্ডা হিসেবে বর্ণনা করেছেন।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares