Select Page

আবারো মহুয়া

আবারো মহুয়া

কাহিনীটি অতি পরিচিত, রোমাঞ্চকর ও বিরহের। সুদর্শন নদের চাঁদ জমিদারের দেওয়ান। আর রূপবতী মহুয়া বেদে সর্দার হুমরা বেদের পালিত কন্যা। সে ছিল এক সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তান। নেত্রকোনার কাঞ্চনপুর থেকে হুমরা বেদে ডাকাতি করে নিয়ে আসে শিশু মহুয়াকে। এই হলো মৈমনসিংহ গীতিকার বিখ্যাত পালা ‘মহুয়া’র গল্প। আর এর কেন্দ্রীয় দুই চরিত্র ‘নদের চাঁদ’ ও ‘মহুয়া’।

পঁচিশ বছর পূরণ করল নৃত্যলোক সংস্কৃতি কেন্দ্র। এ উপলক্ষে আগামী ২১ ও ২২ এপ্রিল মঞ্চস্থ হবে ‘মহুয়া’ নৃত্যনাট্যটি। শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় হবে এর প্রদর্শনী।

নাটকটিতে আরো দেখা যাবে, বেদেরা ঘাটে ঘাটে নোঙর ফেলে হাটবাজার ও পাড়ায় সাপের খেলা দেখায়। খেলা দেখাতে নদের চাঁদের গ্রামে গেলে মহুয়ার রূপে মুগ্ধ হয়ে তাঁকে প্রেম নিবেদন করে চাঁদ। মহুয়াও সাড়া দেয়। কিন্তু দুজনের মিলনের বাধা হয়ে দাঁড়ায় সরদার হুমরা বেদে। মহুয়াকে নিয়ে একদিন পালিয়ে যায় নদের চাঁদ। কিন্তু শেষটা বিরহের।

‘মহুয়া’র কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন নৃত্যশিল্পী সাদিয়া ইসলাম মৌ। সংগীত পরিচালনা করেছেন খ্যাতিমান সংগীত পরিচালক আলাউদ্দীন আলী। সংগীতায়োজন করেছেন আলী আশরাফ ও কলকাতার গৌতম দাস। নৃত্য পরিকল্পনা ও গবেষণা করেছেন কবিরুল ইসলাম।

উল্লেখ, একই গল্পে ঢালিউড সিনেমা নির্মিত হয়েছে তিনবার।

সূত্র : প্রথম আলো


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

Shares