Select Page

‘আয়নাবাজি সিরিজ’র পর নতুন উদ্যোগ, পারবে তো নাম রাখতে?

‘আয়নাবাজি সিরিজ’র পর নতুন উদ্যোগ, পারবে তো নাম রাখতে?

নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরীর তত্ত্বাবধানে ঈদুল ফিতরে দর্শক দেখেছিলেন ‘আয়নাবাজি অরিজিনাল সিরিজ’। দর্শক বেশ আগ্রহ নিয়ে দেখলেও সিরিজটির ভাগ্যে প্রশংসা জুটেছে কমই। এবার নির্মাতা মেজবাউর রহমান সুমনকে নিয়ে অমিতাভ নিয়েছেন নতুন উদ্যোগ। এই দুজনের তত্ত্বাবধানে ‘অস্থির সময়ে স্বস্তির গল্প’ শিরোনামে নাটক বানাবেন সাতজন তরুণ নির্মাতা। খবর প্রথম আলো।

এই সাতজন নির্মাতার মধ্যে আছেন কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ছেলে নুহাশ হুমায়ূন। হোটেল অ্যালবাট্রস নামের নাটকটির শুটিং এরই মধ্যে শেষ করেছেন নুহাশ। মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন আসাদুজ্জামান নূর, শান রহমান, অ্যালেন শুভ্র, আনন্দ খালেদ। গত শনিবার রাজধানীর একটি বড় রেস্তোরাঁয় শেষ হলো নাটকটির শুটিং।

নুহাশ ছাড়াও ‘অস্থির সময়ে স্বস্তির গল্প’ সিরিজে সৈয়দ আহমেদ শাওকি নির্মাণ করছেন ‌‘কথা হবে তো?’ অভিনয় করছেন মনোজ কুমার ও নাবিলা। জাহিন ফারুক আমিন নির্মাণ করছেন ‘শ্যাওলা’। তানভীর আহসান নির্মাণ করছেন ‘বুকের ভেতর কিছু পাথর থাকা ভালো’। অভিনয় করছেন তিশা ও জুনায়েদ হোসেন। সুকর্ণ শাহেদ নির্মাণ করছেন ‘মাহুত’। অভিনয় করছেন নাসির উদ্দিন খান, বাবলু বোস ও লুসি তৃপ্তি গোমেজ। তারিক আনাম খান ও পান্থ শাহরিয়ারকে নিয়ে আবিদ মল্লিক নির্মাণ করবেন ‘প্রতিশোধ’ এবং অনম বিশ্বাস নির্মাণ করবেন ‘তাহলে সেই কথাই রইল’। এতে অভিনয় করবেন ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর, শরাফ আহমেদ জীবন ও শাহেদ আলী।

ঈদুল আজহায় নাটকগুলো প্রচারিত হবে গাজী টিভিতে। অমিতাভ বলেন, ‌‘আমরা একটা অস্থির সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। আমাদের মধ্যে সহনশীলতা কমে গেছে। এসবের বিপরীতে আমরা এমন গল্প নিয়ে কথা বলতে চাই যে গল্পগুলো আমাদের স্বস্তি দেবে। গল্পগুলোর মাধ্যমে মানুষের চিন্তার বিকাশ ঘটবে। মানুষকে চিন্তাভাবনার খোরাকের পাশাপাশি বিনোদন দিতে চাই। সাতজন প্রতিভাবান নির্মাতা সেই চেষ্টাই করেছেন।’

অারো পড়ুন:   নাবিলার উপস্থাপনায় স্টার ক্যানভাসে তিন তারকা

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

Shares