Select Page

ইতিহাস (২০০২)

ইতিহাস (২০০২)

itihas

“আমি জীবন্ত একটা লাশ
এটাই নতুন ইতিহাস ᶩᶩ”

একটি প্রতিভার মৃত্যু, একটি পরিবারের মৃত্যু, বাবার স্নেহ এবং বোনের ভালোবাসা বঞ্চিত, এই নাপাওয়া বিষয়কে উপজীব্য করে দীপ্তিমান হয়েছে বাংলাদেশের এক কালজয়ী চলচিত্র “ইতিহাস”। ২০০২ সালে মুক্তি প্রাপ্ত এই মুভিটি সমগ্র দেশে ব্যাপক আলোড়োন সৃষ্টি করে। চলুন দৃষ্টিপাত করা যাক কাজী হায়াৎ এর জীবনের অন্যতম সেরা চলচিত্র “ইতিহাস” এর দিকে—-
▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬
মুভিঃ ইতিহাস

পরিচালক, সংলাপ ও কাহিনীঃ কাজী হায়াৎ

অভিনয়ঃ কাজী মারুফ, রত্না, মৌসুমী, কাজী হায়াৎ, ডিপজল।

রিলিজঃ ২০০২

রানিং টাইমঃ ২ ঘন্টা ২৪ মিনিট

মাই রেটিংঃ ৯/১০
▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬ ▬▬▬

░▒▓ কাহিনী সংক্ষেপঃ

বোনের আদরের ছোট ভাই মারুফ, পড়ালেখা করে একটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে। বাবা পেশায় সাংবাদিক, নাম আহাদ খান। খুব নামকরা সাংবাদিক, এক নামে সবাই চেনে। সততা তার আদর্শ। তিনি তার সন্তানদের গর্ব করে বলেন “তোমাদের জন্য কিছু না করে গেলেও, যে সম্মান আমি পেয়েছি সেজন্য সবাই তোমাদের লাইনের পিছন থেকে সামনে নিয়ে আসবে, কোথাও তোমাদের আটকে রাখতে পারবে না”।। বাবার এই কথায় যেনো হল মারুফের জন্য কাল। স্কুলে যাবার পথে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়, বাবার নাম শুনে মারুফকে হেরোইনখোর হিসাবে কারাগারে আটাকে রাখে। কারন সাংবাদিকের ছেলেকে বিনা দোষে ধরেছে শুনলে পুলিশের অন্যায়ের উপর প্রতিবেদন লিখবে তাই। জামিনে বের হয় মারুফ, ভালো থাকার চেস্টা করে। এই খারাপ সমাজ থেকে চলে যেতে চায় অ্যামেরিকাতে, কিন্তু আবার তাকে পুলিশ আটক করে। শুরু হয় কাহিনী, শুরু হয় এক নতুন ইতিহাস ………… বাকীটা জানতে চান? দেখে ফেলুন সাড়া জাগানো মুভি “ইতিহাস”।

•• •• •• •• •• •• •• •• •• ••»★মুভির ভালো লাগার দিক★«•• •• •• •• •• •• •• •• •• ••

•»ইতিহাস মুভিতে বাংলাদেশের আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর অন্যায় এবং তাদের ভুলের পরিণতি দেখানো হয়েছে।

•» দেখানো হয়েছে, কি করে একটি পরিবার ধ্বংস হয়ে যায়।

•» দেখানো হয়েছে, কি করে ভালো ছেলে থেকে ভয়ংকর সন্ত্রাসীতে পরিণত হয়।

•» মুভিতে বোঝানো হয়েছে যদি সেই সময় পরিবার তার সাথে থাকতো তাহলে হয়তো ছেলেটি এভাবে অন্ধকার জগতে চলে যেতো না।

•» মুভিটি তৎকালীন সময়ের কথা ভেবে তৈরী হলেও মুভিটি বর্তমান সময়ের সাথে পুরোপুরি মিলে যায়। (আমারা তা আশেপাশের অবস্থা দেখলেই বুঝতে পারি)

•» মুভির গানগুলো কিন্তু বেশ ভালো ছিলো। বিশেষ করে “তুমি কই তুমি কই” গানটা সেই সময় বেশ জনপ্রিয় ছিলো।

•• •• •• •• •• •• ••»★মুভি সম্পর্কিত কিছু তথ্য (Exclusive)★«•• •• •• •• •• •• ••

•» কাজী হয়াৎ এবং কাজী মারুফ “বাপ – বেটার” এইটাই প্রথম মুভি।

•» ইতিহাস মুক্তি পায় ২০০২ সালে, কিন্তু এই মুভির স্ক্রিপ্ট লেখা হয়েছিল ১৯৯২ সালে।

•» কাজী হায়ৎ এর অনেকদিনের ইচ্ছা ছিলো ছেলেকে নিয়ে একটি চলচিত্র করার। সে জন্য তিনি ৬-৭ টা গল্প লেখেন কিন্তু কোনটাই তার পছন্দ মত না হওয়ায় এর কাজ বন্ধ করে দেন। পড়ে একদিন তার পুরানো পান্ডুলিপি ঘাটাঘাটি করতে গিয়ে এই গল্পটি পেয়ে যান এবং কিছুটা এদিক সেদিক করে এটাই কাহিনী হিসাবে ঠিক করেন।

•» প্রথমে মুভির নাম ছিলো “সন্ত্রাসী মারুফ” পরে সেন্সরে যাওয়ার আগে প্রয়াত একজন পরিচালক নাম ভুলে গেছি সে বললো তোমার এই মুভি ইতিহাস গড়বে । এই মুভির নাম রেখে দাও “ইতিহাস”। সেই থেকেই “ইতিহাস”।

•»ডাবিং এ সবাই হায়াৎ কে সাজেষ্ট করেছিলো মারুফের কন্ঠ না দেওয়ার জন্য কারণ মারুফের কন্ঠ মানানসই ছিলো না। কিন্তু হিরো নিজেই বেকে বসায় কাজী হায়াৎ একরকম বাধ্য হয়ে মারুফ কে দিয়েই ডাবিং করান।

 


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

স্পটলাইট

Movies to watch in 2018
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares