Select Page

ইন্তেকাল করেছেন শাম্মী আক্তার

ইন্তেকাল করেছেন শাম্মী আক্তার

বরেণ্য সংগীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর নেই। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মঙ্গলবার বিকেলে চামেলিবাগের বাসা থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। তিনি স্বামী, এক ছেলেসহ আত্মীয়স্বজন ও অসংখ্য শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে গেছেন।

তার স্বামী সংগীতশিল্পী আকরামুল ইসলাম বলেন, ‘শাম্মী আক্তার ছয় বছর ধরে ব্রেস্ট ক্যানসারে ভুগছিলেন। শাম্মী আক্তার বাসাতেই ছিলেন। আজ দুপুরে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ায় বারডেম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। তবে হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই বিকেল চারটার দিকে তিনি শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন।’

বুধবার জোহরের নামাজের পর শান্তিনগর আমিনবাগ জামে মসজিদে শাম্মী আক্তারের জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর তাকে শাহজাহানপুর কবরস্থানে দাফন করা হবে।

‘ঢাকা শহর আইসা আমার’, ‘আমি তোমার বধূ’, ‘মনে বড় আশা ছিল’, ‘আমি যেমন আছি’, ‘বাংলার মাটি’, ‘বিদেশ গিয়ে’, ‘সইতে পারি না’, ‘ঝিলমিল’, ‘আমার মনের বেদনা’, ‘ফুলে ফুলে বাসা’, ‘আমার নায়ে পার হইতে লাগে ষোলো আনা’, ‘এই রাত বলে’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় গানের শিল্পী শাম্মী আক্তার।

‘শাম্মী’ নামে পরিচিত হলেও তার আসল নাম শামীমা আক্তার। তিনি খুলনায় জন্মগ্রহণ করেন। মাত্র ছয় বছর বয়সে তার সংগীতজীবনের শুরু হয়। বাবা শামসুল করিম সরকারি চাকরি করতেন। বাবার বদলির কারণে দেশের কয়েকটি জেলায় বিভিন্ন শিক্ষকের কাছে সংগীতের তালিম নেওয়ার সুযোগ পান তিনি।

১৯৭০ সালে তিনি খুলনা বেতারে তালিকাভুক্ত হন। ১৯৭৫ সালে ঢাকায় এসে গান গাওয়ার আমন্ত্রণ পান। খুলনা থেকে ঢাকায় চলে আসেন শাম্মী আখতার। নিয়মিত গাইতে শুরু করেন বেতার ও টেলিভিশনে। প্রখ্যাত সংগীত পরিচালক সত্য সাহা তাঁকে ‘অশিক্ষিত’ চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার সুযোগ দেন। প্রথম প্লেব্যাকেই দারুণ জনপ্রিয় হয় তার গাওয়া গান ‘ঢাকা শহর আইসা আমার আশা ফুরাইছে’।

চলচ্চিত্রের গানে সাফল্য তাকে শ্রোতাদের খুব কাছে নিয়ে যায়। তিন শতাধিক চলচ্চিত্রের গানে কণ্ঠ দেন শাম্মী আক্তার। ‘ভালোবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না’ ছবির ‘ভালোবাসলেই সবার সাথে ঘর বাঁধা যায় না’ গানের জন্য ২০১০ সালে শাম্মী আক্তার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান। ১৯৭৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি আকরামুল ইসলামের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি।

সূত্র : প্রথম আলো


মন্তব্য করুন

Shares