Select Page

এক ঢিলে দুই পাখি মারবে ভেঙ্কটেশ

এক ঢিলে দুই পাখি মারবে ভেঙ্কটেশ

বিচিত্র এক কৌশলে ঢাকায় আগাচ্ছে ভারতীয় সিনেমা নিমার্তা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস। ইতোমধ্যে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে বিনিয়োগ করার সব বন্দোবস্তই চূড়ান্ত করে ফেলেছে কলকাতার প্রভাবশালী প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস।

অনলাইন পোর্টাল পূর্বপশ্চিম জানায়, ভেঙ্কটেশের প্রযোজনায় বাংলাদেশে নির্মিত ছবিগুলো কলকাতায় প্রর্দশন হবে না। এই বিষয়টিকে এক ঢিলে দুই পাখি শিকার করার মতোই ঘটনা বলে উল্লেখ করেছেন সিনেবোদ্ধারা। তারা জানিয়েছেন, ভেঙ্কটেশ বাংলাদেশের জন্য ছবি বানিয়ে এদেশের দর্শকমহলে সুনাম কুড়াবে। অন্যদিকে সাফটা চুক্তি বিপরীতে বাংলাদেশের ছবিটি কলকাতায় নিয়ে আরো একটি ভেঙ্কটেশের ছবি বাংলাদেশে প্রর্দশন করবে। তাহলে দুটি ছবিই ভেঙ্কটেশের হয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের টাকা ভারতে চলে যাবে। আর শাকিব খানের ওপর ভর করেই এদেশে তারা ব্যবসা পরিচালনা করবেন।

ঢাকার মতিঝিলে ভিএফএস ওয়ার্ল্ড ষ্টুডিও প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি অফিস নিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের হয়ে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র প্রযোজনার বিষয়াদি তদারকি করবেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী প্রযোজক বিজয় খেমকা।

জানা গেছে, ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানকে নিয়ে বাংলাদেশে এই প্রযোজনা সংস্থাটি প্রথম ছবির কাজ শুরু করবেন। সম্প্রতি শাকিব খান কলকাতায় ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের সঙ্গে মিটিং করেছেন। মার্চে ছবির শুটিং শুরু হবে। ছবিটি পরিচালনা করবেন রাজীব বিশ্বাস।

অবাক করা তথ্য হলো, ছবিটি যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হচ্ছে না। শুধু বাংলাদেশের জন্যই নির্মিত হবে। তবে এই ছবিতে শাকিবের বিপরীতে কলকাতার দুইজন নায়িকা অভিনয় করবেন। একজন নায়িকা হিসেবে সায়ন্তিকার অভিনয় করার বিষয়টি এরই মধ্যে চূড়ান্ত হয়েছে।

একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, ভেঙ্কটেশের আগামী ছয়টি ছবিতে শাকিব খান চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। ছবিগুলো যৌথ প্রযোজনার নয়। তবে শাকিবের বিপরীতে ভেঙ্কটেশ ঘরানার নায়িকারা থাকছেন। এই তালিকায় রয়েছেন- কোয়েল, মিমি, নুসরাত, সায়ন্তিকা।

শাকিব খানের ওপর ভর করে বাংলাদেশে ভেঙ্কটেশ সফলতা পেলেই অন্য হিরোদের নিয়ে ছবি প্রযোজনা করার পরিকল্পনাও নিয়েছেন। তবে সিনেমাগুলো এদেশের পরিচালকরা নির্মান করবেন কি না তা স্পষ্ট করে জানা যায়নি।

অারো পড়ুন:   এবার বুবলি অসুস্থ

বর্তমান যৌথ প্রযোজনার নামে ছবিগুলোর কারণে এদেশের শিল্পী-কলাকুশলীদের কাজ কমে যাচ্ছে। এই অবস্থায় ভেঙ্কটেশ যদি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করে ভারতীয় শিল্পী-কলাকুশলীদের অগ্রাধিকার দেয়ার পরিকল্পনা করেন, তাহলে অচিরেই দেশের শিল্পী-কলাকুশলীরা বেকার হয়ে যাবেন। এমন ধারণা অনেকেরই।


Leave a reply

ই-বুক ডাউনলোড করুন

সাপ্তাহিক জরিপ

ঈদে কতগুলো ছবি মুক্তি দেয়া উচিত?
সর্বোচ্চ পাঁচটি
পাঁচটির বেশি
Poll Maker

Shares