Select Page

‘এখন অনেকেই সিনেমা বানাচ্ছেন না, শেষ করছেন’

‘এখন অনেকেই সিনেমা বানাচ্ছেন না, শেষ করছেন’

60994_e5মাহফুজুর রহমান খান বাংলাদেশের একজন প্রতীতযশা চিত্রগ্রাহক। অসংখ্য চলচ্চিত্রে তিনি কাজ করে পেয়েছেন রেকর্ড সংখ্যক ৮ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমের সাথে ডিজিটাল চলচ্চিত্র বিষয়ে কথা বলেন তিনি। এতে তিনি আমাদের দেশে এই প্রযুক্তি ব্যবহারের সার্মথ্য নিয়ে কথা বলেন।

এর খারাপ তুলে ধরতে গিয়ে তিনি বলেন, এখনকার নির্মাতাদের মধ্যে অনেকেই সিনেমা বানাচ্ছেন না, সিনেমা শেষ করছেন। ফলে এসব সিনেমা দর্শক একদিনের বেশি দেখছে না।

তিনি বলেন, বর্তমানে অসংখ্য ডিজিটাল সিনেমা নির্মাণ হচ্ছে। এটা আশার কথা। তবে পরিপূর্ণ অর্থে ডিজিটাল না হলে এটা হতাশায় পরিণত হতে পারে। তাই তো একজন কুশলী হিসেবে আমার পরামর্শ, আমরা যে যাই নির্মাণ করি না কেন, সেটা যেন প্রকৃত অর্থে এবং পরিপূর্ণভাবে হয়।

মাহফুজুর রহমান খান বলেন, যতদূর দেখেছি, ডিজিটাল প্রযুক্তিতে সিনেমা নির্মাণ করতে গেলে প্রতিটি যন্ত্রপাতির পেছনে একজন অভিজ্ঞ কুশলী লাগবে। শুধু ক্যামেরা বা এডিটিং মেশিন থাকলেই চলবে না।

তিনি প্রযুক্তির সাথে আনুষাঙ্গিক অন্যান্য বিষয়ের সম্বন্বয়কে গুরুত্ব দেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ৩৫ মি.মি. হোক আর ডিজিটাল যে প্রযুক্তিতেই হোক না কেন, সিনেমা বানাতে হবে। গল্প লাগবে, গল্প অনুযায়ী শিল্পী লাগবে, লাগবে প্রয়োজনীয় সবকিছুই। শুধু ডিজিটাল ডিজিটাল বলে কেবল রেড ক্যামেরা দিয়ে চিত্রায়ণ করলেই সিনেমা হবে না। এর জন্য প্রয়োজন আনুষঙ্গিক সবকিছু, যা এদেশে পরিপূর্ণভাবে নেই।

তার মতে, অভিজ্ঞ কলাকুশলীর সম্বন্বয় ঘটলে এক দুই বছরের মধ্যে বাংলাদেশের সিনেমা শিল্প ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে বিপ্লব ঘটাতে সক্ষম হবে। পাশাপাশি সিনেমা বানাতে হবে দর্শকদের জন্য। মাত্র ১০০ ডিজিটাল প্রেক্ষাগৃহ নিয়ে এ শিল্পকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। কমপক্ষে ২০০ প্রেক্ষাগৃহকে ডিজিটাল করতে হবে। পাশাপাশি ৩৫ মি.মি.-এ কমপক্ষে ৫টি প্রিন্ট করতে হবে। তাহলে সারা দেশের প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি প্রদর্শিত হবে।

মাহফুজুর রহমান খানের যাত্রা আবুল বাশার চুন্নু পরিচালিত ‘কাচের স্বর্গ’ ছবি দিয়ে। যেসব ছবিতে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন সেগুলো হলো ‘অভিযান’, ‘সহযাত্রী’,  ‘পোকামাকড়ের ঘরবসতি’, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘আমার আছে জল’, ‘হাজার বছর ধরে’ এবং  ‘স্বপ্ন ডানায়’।

তার প্রযোজনা সংস্থা দিশা ফিল্মস ইন্টারন্যাশনাল থেকে নির্মিত হয়েছে ‘নীতিবান’, ‘দুর্নাম’, ‘সম্মান’ ও ‘কৈফিয়ত’।

বর্তমানে তিনি ব্যস্ত রয়েছেন ‘মোস্ট ওয়েলকাম ২’ ও  ‘মায়ানগর’ ছবির শুটিং নিয়ে।

সুত্র: মানবজমিন


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares