Select Page

জাতীয় পুরস্কার বিতর্ক : ২০১৬ সালে কোনো ছবিই প্রযোজনা করেনি জাজ!

জাতীয় পুরস্কার বিতর্ক : ২০১৬ সালে কোনো ছবিই প্রযোজনা করেনি জাজ!

সদ্য ঘোষিত ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬’ এর সেরা নৃত্য পরিচালকের পুরস্কার নিয়ে জমে উঠেছে বিতর্ক। ‘নিয়তি’র জন্য পুরস্কারটি যায় হাবিবের ঘরে। তিনি জানান, ওই সিনেমার নৃত্য পরিচালক তিনি নন, ছিলেন ভারতীয় জয়েস প্রধান। রীতিমত সাংবাদিক সম্মেলন করে পুরস্কারটি প্রত্যাখান করেন হাবিব।

এদিকে ‘নিয়তি’ প্রযোজনার বিষয়টি অস্বীকার করছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। তাদের দাবি মতে সিনেমাটিতে প্রযোজনা সংস্থা এএইচখান এন্টারপ্রাইজ।

প্রযোজক সমিতির নথি মোতাবেক সিনেমাটি ওই এএইচখান এন্টারপ্রাইজেরই। যদিও বিজ্ঞাপন থেকে পোস্টার বা সিনেমায় দেখা যায় ভারতের এসকে মুভিজের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনা করেছে জাজ মাল্টিমিডিয়া।

নানা সময়ে শোনা যায়, জাজের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে একাধিক ব্যানারে সিনেমা নির্মিত হয়। যদিও এ ব্যাপারে জাজের কোনো বক্তব্য নেই আপাতত। বরং ‘নিয়তি’ নিয়ে তারা বলছেন এএইচখান এন্টারপ্রাইজ তাদের প্রতিষ্ঠান নয়। অবাক করা বিষয় হলো এ বক্তব্য আমলে নিলে ২০১৬ সালে জাজ কোনো ছবিই প্রযোজনা করেনি। এমনকি শাকিব খান অভিনীত সুপারহিট সিনেমা ‘শিকারি’ও। তা কীভাবে সম্ভব?

পুরনো নথি ঘেটে দেখা গেছে আলাদা আলাদা ৮টি প্রতিষ্ঠানের ১টি করে সিনেমা জাজের নামে মুক্তি পেয়েছে।

এগুলো হলো— অঙ্গার (আদর এন্টারটেইনমেন্ট), হিরো ৪২০ (এসএস ফিল্মস), অনেক দামে কেনা (নাসির ট্রেডার্স), শিকারি (এইএইচ ফিল্মস), বাদশা দ্য ডন (থ্রিএ মুভিজ), নিয়তি (এএইচখান এন্টারপ্রাইজ), রক্ত (জেমিনি মুভিজ), প্রেম কী বুঝিনি (আফসানা মুভিজ)।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

স্পটলাইট

Movies to watch in 2018
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares