Select Page

দুবাই অপারেশন শেষে ফিরলো ‘মিশন এক্সট্রিম’

দুবাই অপারেশন শেষে ফিরলো ‘মিশন এক্সট্রিম’

দুবাইয়ে ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমার বেশ কিছু দৃশ্যের শুটিং সম্পন্ন করে দেশে ফিরেছে পুরো ইউনিট। দুবাইয়ের প্রায় ১৬টি মনোরম লোকেশনে পাঁচ দিনব্যাপী এই শুটিং কার্যক্রম চলে। গত ১৪ মে থেকে শুরু হয় দৃশ্যায়ন, চলে ১৮ মে পর্যন্ত।

ছবিটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ। এর কাহিনী, চিত্রনাট্য ও সংলাপ লিখেছেন সানী সানোয়ার।

এ প্রসঙ্গে সানী সানোয়ার বলেন, ‘দেশীয় সিনেমার এই ছোট বাজারের জন্য অত্যন্ত সীমিত বাজেটে সিনেমা নির্মাণ করা খুব কষ্টের। কেননা, স্বল্প বাজেটে সিনেমায় মজা খুব কম থাকে। তবুও আমরা “মিশন এক্সট্রিম” সিনেমায় দুবাইয়ের শুটিং পর্বে একটি বড় অংকের বাজেট খরচ করেছি। এটি অবশ্যই আমাদের একটি উচ্চাবিলাসী উদ্যোগ। তবে, আমাদের টার্গেট দর্শকদের মন জয় করে এই খরচ উঠিয়ে নিয়ে আসা। এখন দেখা যাক কী ঘটে!’

জানা গেছে, দুবাইয়ে একটি গান এবং বেশ কিছু অ্যাকশন দৃশ্য শুটিং করা হয়। আরিফিন শুভ, সাদিয়া নাবিলা, ফজলুর রহমান বাবুসহ আরও দুজন জনপ্রিয় অভিনেতা শুটিংয়ে অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও কয়েকজন প্রবাসী বাংলাদেশি এবং আরবীয় অভিনেতাকে দেখা যাবে সিমেনাটির দুবাইয়ের অংশে।

শুভ বলেন, ‘মরুভূমিতে এতটা প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে শুটিং করার সময় শুধু একটি কথাই মনে হয়েছে যে, দর্শকরা এই দৃশ্যগুলো উপভোগ করবেন। তাছাড়া আমি নিজেও আমাদের দেশীয় সিনেমায় এরকম কিছু মুহূর্ত বিনির্মাণে আত্মনিয়োগ করতে পেরে পুলকিত ছিলাম।’

এর মাধ্যমে সিনেমাটির প্রায় নব্বই শতাংশ শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই বাকি দশ শতাংশ শুটিংও সম্পন্ন হবে। এছাড়া শুরু হয়েছে সিনেমাটির পোস্ট প্রোডাকশন। সব কিছু ঠিক থাকলে এ বছরের শেষের দিকে ‘মিশন এক্সট্রিম’ মুক্তি দেয়া হবে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

[wordpress_social_login]

Shares