Select Page

পরিচালনা জীবন নিয়ে ‘অভিনব’ সিনেমা কাজী হায়াতের

পরিচালনা জীবন নিয়ে ‘অভিনব’ সিনেমা কাজী হায়াতের

চার দশকের পরিচালনা ক্যারিয়ার নিয়ে অন্যরকম একটি সিনেমা তৈরি করছেন কাজী হায়াৎ। ১৯৭৯ সালে ‘দি ফাদার’ দিয়ে পূর্ণ-পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন তিনি। ৪০ বছর পর ২০২০ সালে তৈরি করেছেন ৫০তম চলচ্চিত্র ‘বীর’। চলচ্চিত্রের এই দীর্ঘ ভ্রমণ নিয়ে তৈরি হচ্ছে ‘কাজী হায়াতের সিনেমা থেকে সিনেমা’।

বাংলা ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, এটা মূলত চলচ্চিত্রেরই সংকলন। বিগত ৫০ সিনেমার অংশবিশেষ, গান ও বিভিন্ন ফেস্টিভালের দৃশ্য দিয়ে তৈরি হবে এই ছবি। সিনেমায় থাকবেন কাজী হায়াৎ নিজেও।

কিছুদিন আগে করোনামুক্ত হলেও এখনো ধকল কাটিয়ে উঠতে পারেননি এই অভিনেতা-নির্মাতা। বিছানাতেই কাটাতে হচ্ছে দিনের বেশিরভাগ সময়। করোনার ছোবলে শরীর প্রচণ্ড দুর্বল। বাসাতেই পূর্ণ বিশ্রামে আছেন। এমন অবস্থায় থেকেও এগিয়ে নিচ্ছেন নতুন সিনেমার কাজ।

‘অভিনব’ এ সিনেমা নিয়ে নির্মাতা বলেন, ‘করোনা নেগেটিভ হওয়ার পর আমি যখন আইসিইউ থেকে বাসায় ফিরি তখনই এই চিন্তাটি মাথায় আসে। কারণ, এখনকার মানুষ ছোট ছোট অংশবিশেষ দেখতে অভ্যস্ত হয়ে উঠছে। চলচ্চিত্রের বিশেষ অংশগুলো তারা বারবার দেখছে। সেই ভাবনা থেকেই আমার ছবির বিশেষ অংশ দিয়ে জার্নিটা তৈরি হবে। ইতোমধ্যে ৭০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। করোনায় আমি এখনও বিছানায়। একটু সুস্থ হয়ে শুটিংয়ে অংশ নেবো।’

তিনি জানান, করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে এলেই দুই দিনের শুটিং করবেন। আর চলচ্চিত্রটি আগামী কোরবানির ঈদে প্রেক্ষাগৃহ, টেলিভিশন বা ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছে তার।

এদিকে, গুঞ্জন এসেছে চলচ্চিত্রকে বিদায় জানাচ্ছেন এই নির্মাতা। বিষয়টি নিয়ে তিনি বলেন, ‘‘কবে আমি সুস্থ হবো বা কাজে ফিরতে পারবো সেটা তো বলা যায় না। তাই আপাতত কাজ করবো না। আর কাজ যে করছি না, তাও নয়। নইলে ‘কাজী হায়াতের সিনেমা থেকে সিনেমা’ কীভাবে হচ্ছে। এটাতে নতুন দৃশ্য খুব কম থাকলেও প্রচুর টেবিল ওয়ার্ক করে ছবিটি মেলাতে হচ্ছে।’’


লেখক সম্পর্কে বিস্তারিত

মন্তব্য করুন

Shares