Select Page

পুলিশ কর্মকর্তার ‘কাট, শুটিং প্যাক আপ’ ধ্বনিতে শেষ হলো ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিক্যুয়াল

পুলিশ কর্মকর্তার ‘কাট, শুটিং প্যাক আপ’ ধ্বনিতে শেষ হলো ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিক্যুয়াল

গত বছর সম্পন্ন হয়েছে আলোচিত পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার সিনেমা ‘মিশন এক্সট্রিম’র প্রথম পর্বের শুটিং। এটি মুক্তির আগেই গত রোববার রাতে সম্পন্ন হয়েছে সানী সানোয়ার ও ফয়সাল আহমেদ পরিচালিত সিনেমাটির সিক্যুয়েলের শুটিং। এ উপলক্ষে বিএফডিসির ৭নং ফ্লোরে টিম সদস্যদের নিয়ে ‘ক্যামেরা ক্লোজিং সেরেমোনি’র মাধ্যমে সম্পন্ন হয় পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ‘মিশন এক্সট্রিম’র সিক্যুয়েলের শুটিং।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে ‘কাট, শুটিং প্যাক আপ’ বলে ক্যামেরা ক্লোজ করেন পুলিশের বিশেষায়িত ইউনিট সিটিটিসি’র প্রধান মনিরুল ইসলাম।

সিনেমার অন্যতম পরিচালক, কাহিনীকার এবং প্রযোজক সানী সানোয়ারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আরিফিন শুভ, জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী, সাদিয়া নাবিলা, সুমিত সেনগুপ্ত, মাজনুন মিজান, এহসান রহমান, দীপু ইমামসহ পুরো সিনেমাটি পুরো টিম।

প্রধান অতিথি মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘ঢাকা অ্যাটাক এবং ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমা নির্মাণে যারা নিরলস পরিশ্রম করেছেন তাদের সবাইকে সাধুবাদ জানাই। সে সঙ্গে এসব সিনেমায় পুলিশের সত্যিকারের কিছু চ্যালেঞ্জ বস্তুনিষ্ঠভাবে তুলে ধরার জন্যও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

আরিফিন শুভ বলেন, ‘মিশন এক্সট্রিম’ নিয়ে আমাদের দীর্ঘদিনের এই পরিশ্রম এবং ত্যাগ তখনই সার্থক হবে যখন দর্শকরা এটি পছন্দ করবেন।

জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী বলেন, এত বড় স্কেলের একটি সিনেমার মাধ্যমে আমার অভিনয় ক্যারিয়ার জীবন শুরুর সুযোগ সৃষ্টির জন্য সানী ভাইয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা।

সাদিয়া নাবিলা বলেন, ‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমায় কাউন্টার টেরোরিজম পুলিশ অফিসারের একটি চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে পুলিশ পেশার প্রেমে পড়ে গেছি। আমি বিসিএস দিয়ে পুলিশ হওয়ার কথা ভাবছি!

অপর পরিচালক ফয়সাল আহমেদ বলেন, এবার ডাবিং, এডিটিং যুদ্ধে জয়ী হবার পালা। তবেই আমরা নিজেরা সিনেমাটি যেভাবে দেখেছি সেভাবে দর্শকদের দেখাতে পারবো।

সানী সানোয়ার সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলেন, ‘মিশন এক্সট্রিম’ সংশ্লিষ্ট সকলের এই অনন্য অবদান শুধু পারিশ্রমিক দিয়ে শোধ করা যাবে না।

নির্মাতা আরও জানান, খুব শীঘ্রই দুই পর্বের ডাবিং-ই শুরু হচ্ছে। প্রথম পর্ব মুক্তি পাবে ঈদ-উল-ফিতরে এবং সে উদ্দেশ্যে ফেব্রুয়ারি থেকে প্রথম পর্বের পুরোদমে প্রমোশনের কাজ শুরু হবে।

কপ ক্রিয়েশন’র ব্যানারে নির্মিত বাংলাদেশের দ্বিতীয় পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ‘মিশন এক্সট্রিম’। ক্রাইম, থ্রিল, সাসপেন্স এবং অ্যাকশন নির্ভর একটি মৌলিক গল্পের উপর ভিত্তি করে সিনেমাটির নির্মিত হচ্ছে।

‘মিশন এক্সট্রিম’ সিনেমাটি পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট তথা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ‘সিটিটিসি’র কিছু শ্বাসরুদ্ধকর অভিযান থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মাণ করা হচ্ছে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

সাম্প্রতিক খবরাখবর

[wordpress_social_login]

Shares