Select Page

প্রযোজকের রাজনৈতিক ব্যস্ততায় বেকার শাকিব!

প্রযোজকের রাজনৈতিক ব্যস্ততায় বেকার শাকিব!

শাকিব খানকে হিট সিনেমার মন্ত্র মানলেও তাকে নিয়ে সিনেমা করার মতো সঙ্গতি খুব একটা নেই ইন্ডাস্ট্রিতে টিকে থাকা গুটি কয়েক প্রযোজকদের। এর মাঝে শাপলা মিডিয়া এ নায়ককে নিয়ে পরপর সিনেমা করলেও সম্প্রতি দেখা দিয়েছে জটিলতা।

‘একটা প্রেম দরকার মাননীয় সরকার’ ও ‘শাহেনশাহ’ ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল গত মাসে। বারবার পিছপা হচ্ছে প্রযোজনাপ্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া। প্রতিষ্ঠানটি এর আগে শাকিবকে নিয়ে ‘আমি নেতা হবো’ ও ‘চিটাগাংইয়া পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’ ছবি নির্মাণ করে। পাশাপাশি একই মালিকানার আরেকটি প্রতিষ্ঠান থেকে নির্মিত হয় ‘ক্যাপ্টেন খান’। কিন্তু নতুন ছবি নিয়ে বেধেছে জটিলতা।

এক মাস ধরে এ দুই ছবির জন্য শিডিউল দিয়ে রেখেছিলেন শাকিব। ২৪ আগস্ট, ২৮ আগস্ট, ৭ সেপ্টেম্বর এবং শেষ ১৭ সেপ্টেম্বর ‘শাহেনশাহ’ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও হয়নি। ফলে বেকার বসে রয়েছেন ইন্ডাস্ট্রির এই ‘হিরো দ্য সুপারস্টার’। শেষ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে না পেরে ২১ সেপ্টেম্বর নিজে গিয়ে শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খানের সঙ্গে দেখা করেন। কেন শুটিং শুরু হতে বিলম্ব হচ্ছে সেটাও জানতে চান।

সেলিম বলেন, ‘সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন। আমি রাজনৈতিক নেতা। আওয়ামী লীগকে সমর্থন করি। এই মুহূর্তে দলীয় প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত আছি। এখন ছবির শুটিং করতে গেলে প্রচারণায় ঝামেলা হবে। সেটা নেত্রী মেনে নেবেন না।’

তাহলে কবে শুরু হচ্ছে ‘একটা প্রেম দরকার মাননীয় সরকার’ বা ‘শাহেনশাহ’? ‘আগে সব কিছু গুছিয়ে নিই। যখন মনে হবে আমি শুটিং দেখভাল করার সময় পাব, তখনই শুটিং শুরু করব’—বললেন সেলিম।

কিছুদিন আগে পুরো বিষয়টি নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেন শাকিব। কারণ, শুটিং শুরু না হওয়ায় এক মাস ধরে বেকারই বসে আছেন। তিনি জানান, ছবি দুটি শিডিউল মতো শেষ করতে না পারলে সহসা সময় দেওয়া কঠিন হয়ে পড়বে। কারণ, কলকাতা ও নিজেরসহ আরেকটি প্রতিষ্ঠানের কিছু সিনেমার শিডিউল দেওয়া আছে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

স্পটলাইট

Movies to watch in 2018
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares