Select Page

‘বিদায় রানা’ দিয়ে ইতি টানবেন

‘বিদায় রানা’ দিয়ে ইতি টানবেন

কাজী আনোয়ার হোসেনের গোয়েন্দা উপন্যাস থেকে ‘মাসুদ রানা’ পরিচালনা করতে গিয়ে অভিনেতা বনে যান তিনি, মাসুদ পারভেজ থেকে নাম হয়ে যায় সোহেল রানা।

তিনি জানালেন, পরিচালিত শেষ সিনেমার নাম হবে ‘বিদায় রানা’। সম্প্রতি সমকালকে বলছিলেন এ কথা।

সোহেল রানা বলেন, “যেহেতু আমি ‘মাসুদ রানা’ দিয়ে চলচ্চিত্রে এসেছিলাম। ফলে ‘বিদায় রানা’ নামে একটি চলচ্চিত্র দিয়ে শেষ পরিচালনা করতে চাই।”

মাসুদ রানা সিরিজের একটি বইয়ের নাম ‘বিদায় রানা’। কাহিনি সেখান থেকে ধার করা কি-না তা অবশ্য পত্রিকাটি প্রকাশ করেনি।

১৯৭৪ সালে মুক্তি পাওয়া ‘মাসুদ রানা’ ছবির মাধ্যমে প্রযোজক থেকে নায়ক হিসেবে যাত্রা শুরু করেন সোহেল রানা।

ছবিতে নায়ক হওয়ার গল্পটি এমন— “পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হলো ‘মাসুদ রানা’ ছবির প্রধান চরিত্রে অভিনয়ের জন্য। সারা দেশ থেকে হাজারো অভিনেতা ছবি পাঠালেন চলচ্চিত্রটিতে অভিনয়ের জন্য। সেসব ছবি দেখে চরিত্র নির্বাচনের দায়িত্বে ছিলেন এসএম শফি, সুমিতা দেবী, আমি আর আহমদ জামান চৌধুরী। একদিন সুমিতা দেবী আমাকে বললেন, ‘তুমিই হবে মাসুদ রানা।”

আরো বলেন, “সেই সময় আহমদ জামান চৌধুরীর হাতে একটা লেখার প্যাড ছিল। তিনি সেখানে লিখলেন, ‘মাসুদ রানা’ ছবির নায়ক মাসুদ রানা হবে তুমি। আর এখন থেকে তোমার পর্দা নাম হবে ‘সোহেল রানা’। আমি তো অবাক। আরে বলে কী! কোথায় আমি, আর কোথায় মাসুদ রানা! এভাবেই আমার পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয় শুরু হয়। ছবিতে আমার নায়িকা ছিলেন কবরী ও অলিভিয়া।”

আর ওই ছবিতে পরিচালনার পাশাপাশি নায়ক হিসেবে বাজিমাত করলেন সোহেল রানা।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares