Select Page

বিদায় ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’

বিদায় ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’

syed-shamsul-hoque

‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘চাঁদের সাথে আমি দেবো না তোমার তুলনা’, ‘যার ছায়া পড়েছে, মনেরও আয়নাতে’,  ‘এই যে আকাশ এই যে বাতাস’, ‘একই অঙ্গে এত রূপ’ সিনেমার ‘জানিনা সে হৃদয়ে কখন এসেছে’, ‘অনেক সাধের ময়না আমার বাঁধন কেটে যায়’ ও ‘কারে বলে ভালোবাসা কারে বলে প্রেম’সহ অনেক কালজয়ী গানের গীতিকার, চিত্রনাট্যকার ও লেখক সৈয়দ শামসুল হক মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

লন্ডনের রয়্যাল মার্সডেন হাসপাতালে চার মাস চিকিৎসার পর ২ সেপ্টেম্বর সৈয়দ শামসুল হক দেশে ফেরেন। এর আগে গত ১৫ এপ্রিল ফুসফুসের সমস্যা নিয়ে তিনি লন্ডনে যান। সেখানে পরীক্ষার পর তার ক্যান্সার ধরা পড়ে। দেশে ফেরার পর তিনি ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে সৈয়দ হক বহুদিন পর চলচ্চিত্রের জন্য গান লিখেছিলেন। শাহ মো. সংগ্রাম পরিচালিত ‘বাসর হবে মাটির ঘরে’ ছবিটির জন্য লিখেছিলেন তিনি। ‘মাটির ঘরে চাঁদ নেমেছে’ শীর্ষক গানটিতে কণ্ঠ দেন রুনা লায়লা ও সুবীর নন্দী। সুর ও সংগীতায়োজন করেছিলেন আলাউদ্দিন আলী।

সিনেমাও পরিচালনা করেছেন সৈয়দ হক। ১৯৬৬ সালে তিনি পরিচালনা করেন উর্দু সিনেমা ‘ফির মিলেঙ্গে হাম দোনো’।

সৈয়দ শামসুল হক মাটির পাহাড়, তোমার আমার প্রেম, শীত বিকেল, রাজা এলো শহরে, কাগজের নৌকা, আয়না, নতুন দিগন্ত, ময়নামতি, অবাঞ্চিত, ক খ গ ঘ ঙ, অধিকার, মান সম্মান, পুরষ্কার, বড় ভালো লোক ছিল ইত্যাদি ছবির কাহিনী, সংলাপ কিংবা চিত্রনাট্য লিখেছিলেন।

১৯৩৫ সালের ২৭ ডিসেম্বর কুড়িগ্রামে তার জন্ম। ১৯৫৯ সালে সিনেসাপ্তাহিক ‘চিত্রালী’তে সহ-সম্পাদক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। এরপর জড়িয়ে পড়েন চিত্রজগতে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares