Select Page

মেলায় সিনেমার বই

মেলায় সিনেমার বই

একুশে গ্রন্থমেলা ২০১৭-তে সিনেমার নিয়ে বেশকিছু বই প্রকাশিত হয়েছে। বাংলা ট্রিবিউনের সৌজন্যে জেনে নিন কয়েকটির খবর—

বিধান রিবেরুর ‘উসমান সেমবেনের চলচ্চিত্র হালা’ : সেনেগালের বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার উসমান সেমবেন ও তাঁর চলচ্চিত্র নিয়ে প্রথম বারের মতো বাংলা ভাষায় বই প্রকাশিত হয়েছে। বিধান রিবেরু রচিত বইটির নাম ‘উসমান সেমবেনের চলচ্চিত্র হালা।’ কথাপ্রকাশনী থেকে প্রকাশিত এই বইতে উসমান সেমবেনের জীবনী ছাড়াও তাঁর বিখ্যাত চলচ্চিত্র ‘হালা’ নিয়ে একটি বিশ্লেষণী প্রবন্ধের অনুবাদ রয়েছে, রয়েছে উসমান সেমবেনের সাক্ষাৎকার। এছাড়া আফ্রিকার চলচ্চিত্রের ইতিহাস নিয়েও রয়েছে একটি রচনা। সবমিলিয়ে বইটি চলচ্চিত্র প্রেমীদের আফ্রিকার চলচ্চিত্র, সেখানে উসমান সেমবেনের ভূমিকা ও তাঁর চলচ্চিত্র ‘হালা’র উপর যথাযথ ধারণার জন্ম দেবে।

আরিফ মাহমুদ ও আয়মান আসিব স্বাধীনের ‘সিনে-লয়েড’ : চৈতন্য থেকে প্রকাশিত হলো আরিফ মাহমুদ ও আয়মান আসিব স্বাধীনের সিনে-লয়েড। ১০৪ পৃষ্ঠা বইয়ের মূল্য রাখা হয়েছে ১৬০ টাকা। বইটি সম্পর্কে লেখকদ্বয় জানান, বইটিতে তারা সিনেমার সামগ্রিক চিত্র তুলে আনার চেষ্টা করেছেন এবং ভেবেছেন বিশ্বব্যাপী সিনেমার কথা। নানা আঙ্গিক থেকে বৈচিত্র্য দেয়ার প্রয়াসে বাদ যায়নি উল্লেখযোগ্য সব জঁনরা’র সংযুক্তি । হরর থেকে সায়েন্স ফিকশন, রোমান্টিক ড্রামা থেকে থ্রিলার, …স্পোর্টস ড্রামা থেকে মিস্ট্রি। সিনেমা নিয়ে পর্যালোচনা ও প্রবন্ধ লিখতে গিয়ে মাথায় রেখেছেন কাল্ট ক্ল্যাসিক সিনেমা থেকে হালের প্রশংসিত সিনেমাকেও।

সৈয়দ নাজমুস সাকিবের ‘সিনেম্যান’ : বইটি প্রকাশ করেছে ভাষাচিত্র প্রকাশনী। মূল্য রাখা হয়েছে ১৬০ টাকা। বইটি সম্পর্কে লেখক বলেন, ‘আমার সিনেম্যান একজন সাধারণ মানুষকে অভিনেতা, অভিনেত্রী বা সর্বোপরি সিনেমা সম্পর্কে আগ্রহী করে তুলতে পারে, এমনকি সেই মানুষটা সিনেমা পছন্দ না করলেও- সেটাই তার বিশেষ ক্ষমতা। দেশ বিদেশের অনেক অসাধারণ অভিনেতা আর অভিনেত্রীদের বায়োগ্রাফি। তাদের জীবনের সংগ্রাম, চড়াই-উতরাই, তাদের সাফল্য- সব, নতুন বেশ কিছু তথ্য সহকারে।’

জাঁ-নেসার ওসমানের ‘চলৎচিত্র চলে কেন…’ : জয়তী থেকে প্রকাশিত হলো জাঁ-নেসার ওসমানের ‘চলৎচিত্র চলে কেন…’। বইটির মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১৯০ টাকা। প্রচ্ছদ করেছেন শুভজিৎ বিশ্বাস।

বেলায়াত হোসেন মামুনের ‘চলচ্চিত্রের সাথে বোঝাপড়া’ : কথাপ্রকাশ থেকে প্রকাশিত হলো বেলায়াত হোসেন মামুনের ‘চলচ্চিত্রের সাথে বোঝাপড়া।’ বইটির মূল্য রাখা হয়েছে ৬৫০ টাকা ও নান্দনিক প্রচ্ছদ করেছেন শিল্পী সব্যসাচী হাজরা।

বইটি ভেতরের বিষয়বস্তু শুরু হয় অবিভক্ত ভারতের পূর্ব বাংলায়। চলমান চিত্রের এই বহমান ধারা বয়ে চলে পূর্ব-পাকিস্তান হয়ে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের বর্তমান পর্যন্ত। এই বইয়ে চলচ্চিত্রের যে সংক্ষেপিত ইতিহাস লিপিবদ্ধ হয়েছে তা মূলত পূর্ব-বাংলা বা বাংলাদেশের। বইটির চরিত্র হয়ে উঠেছে বাংলা ভাষার চলচ্চিত্রকালের মানচিত্রস্বরূপ। বইটি পাঠে চলচ্চিত্রে বাংলা ভাষার উত্তরাধিকার হিসেবে সত্যজিৎ রায়ের রবীন্দ্রনাথ, ঋত্বিক ঘটকের ভাঙা বাংলার অস্থি-সন্ধান এবং মৃণাল সেনের চেতনা প্রবাহ আবিষ্কারের অভিযান দেখতে পাওয়া যায়। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের ইতিহাস, মুক্তিযুদ্ধের চলচ্চিত্রে মুক্তির খোঁজ, চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলনের ত্রি-কালের অভিমুখসহ জহির রায়হান, বাদল রহমান, তারেক মাসুদ, তানভীর মোকাম্মেল ও মোরশেদুল ইসলামের কাজের, চিন্তার এবং তৎপরতার সমালোচনামুখর আলোচনায় নতুন ভঙ্গি ও চিন্তার বাঁক উপহার দিয়েছেন।

নাদির জুনাইদের ‘প্রতিবাদের নান্দনিকতা বাংলাদেশের প্রথাবিরোধী চলচ্চিত্র’ : জনান্তিক থেকে প্রকাশতি হয়েছে নাদির জুনাইদের তৃতীয় বই ‘প্রতিবাদের নান্দনিকতা বাংলাদেশের প্রথাবিরোধী চলচ্চিত্র।’ বইটিতে মোট সাতটি অধ্যায়ে সাতটি সিনেমার রহস্যকথা, জন্মকথা, শিল্পকথা ও সাত পরিচালকের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরা হয়েছে। সাত পরিচালক ও তাঁদের সিনেমাগুলো হলো : ১. আবার তোরা মানুষ হ (খান আতাউর রহমান), ২. সূর্যকন্যা আর রূপালি সৈকতে (আলমগীর কবির), ৩. সূর্য দীঘল বাড়ি (মসিহ্‌উদ্দিন শাকের আর শেখ নিয়ামত আলী), ৪. ঘুড্ডি (সৈয়দ সালাহ্‌উদ্দীন জাকী), ৫. মাটির ময়না ও রানওয়ে (তারেক মাসুদ), ৬. আহা! (এনামুল করিম নির্ঝর), ৭. মেঘ মল্লার (জাহিদুর রহিম অঞ্জন)।


মন্তব্য করুন

Shares