Select Page

শাকিব-অপুর বিয়ে-সন্তান: কে কি বললেন

শাকিব-অপুর বিয়ে-সন্তান: কে কি বললেন

টিভির লাইভ সাক্ষাতকারে পুত্রসহ হাজির হয়ে শাকিব খানের সাথে বিয়ের কথা স্বীকার করেছেন অপু বিশ্বাস – এই নিয়ে সোমবার বিকেল থেকে সারা দেশে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। চলচ্চিত্রের দুই প্রধান অভিনেতার বিয়ে এবং পরবর্তী ঘটনা প্রবাহের ঢেউ স্বাভাবিকভাবেই চলচ্চিত্রাঙ্গনের অন্যান্যদেরকেও প্রভাবিত করেছে। তাদের অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এ বিষয়ে মতামত প্রকাশ করেছেন। শাকিব অপুর ঘটনায় কেউ বলছেন ষড়যন্ত্র, কেউ শাকিবকে দুষছেন। কেউবা পরামর্শ দিচ্ছেন স্ত্রী-সন্তানকে মেনে নিয়ে সংসার করার জন্য।

শবনম বুবলি

যে নায়িকাকে কেন্দ্র করেই ঢালিউড সুপারস্টারের বিয়ে সন্তানের খবর মিডিয়ায় সেই শবনম বুবলি মঙ্গলবার সকাল সোয়া দশটায় একটি স্ট্যাটাস দেন। বাংলা এবং ইংরেজিতে মিলিয়ে জানতে চান, ব্যাপারটি কি ইমোশনাল নাকি প্রফেশনাল। তিনি অভিযোগ করে লিখেন, রংবাজ ছবির খবর প্রকাশের পরই অপু বিশ্বাসের মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছে।

বুবলির স্ট্যাটাসে ইংরেজি শব্দগুলোকে বাংলায় রূপান্তর করে হুবহু তুলে ধরা হল।

ব্যাপারটি কি emotional নাকি professional??
কোনটা ?
হুমম একটু ভেবে বললে ভালো (যদি সময় হয় কারন সবাই এখন ব্যস্ত থাকেন)

জানি, আপনারা এখন অনেকেই অনেক কিছু ভাবছেন। আমাদের দেশে মাঝেমাঝে কিছু কিছু ইস্যু সবার সামনে এসে দাঁড়ায় যখন অধিকাংশ (সবাই না) মানুষ হুমড়ি খেয়ে এক তরফা জাজমেন্ট করতে শুরু করে। আর এদের মধ্যে যারা একটু ভিন্নভাবে ভাবতে চায় তাদের যে কত কথা শুনতে হয় তা নাহয় নাই বললাম। একদম রিসেন্ট ইস্যু নিয়ে যদি কথা হয় তাহলে আমার মন্তব্য না করাটাই শ্রেয়। কারন এটি সম্পুর্ণ যার যার ব্যক্তিগত ব্যাপার, আর আমি স্বভাবতই নিজের মত থাকতে পছন্দ করি কিন্ত যখন সেখানে আমার কিছু ইস্যু মানুষ নিয়ে আসে তখন তো সেখানে স্বাভাবিকভাবে অনেকেই জানতে চাইছে এবং অনেক ফোন কল পাচ্ছি এসব নিয়ে যে আমি কিভাবে দেখছি এসব!

By the way আমি প্রথমেই একটা জিনিস জানতে চাই গতকাল কেন অপু বিশ্বাস এতো দিনের আড়াল ভেঙে সরাসরি চ্যানেলে গিয়ে এসব কথা বললেন ?
কই এতোদিন তো যাননি, কারো সামনে আসতে চাননি .. কেনো?
কই সাংবাদিক ভাইরা তো এতো চেষ্টা করেও সামনে আনতে পারলেন না, মুখ খোলাতে পারলেন না, বরং আপনারা নাকি যখন জিজ্ঞেস করেছেন তখন নাকি নানান কথা বলেছে। তার ভাষ্যমতে, ২০০৮ সাল থেকে সে বিবাহিত তাহলে এতোদিন কেনো মর্যাদা চায়নি? শাকিব নাহয় লুকিয়েছে, সে লুকায়নি? কেনো, ক্যারিয়ারের জন্য ?
একজন স্ত্রীর কাছে ক্যারিয়ার এতোই বড়?
ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবা ঠিক আছে কিন্তু নিজের মর্যাদা আদায় এর আগে কি ক্যারিয়ার?
অপু বিশ্বাস আরো বলেছেন তার সাথে শাকিবের গত এক বছরের মত কথা হয়না, এটা কি কোন সম্পর্কের জন্য স্বাভাবিক? তখনও তো স্বীকৃতি চাইতে সবার সামনে আসলো না। কেনো?
সে আরো বললো তার ডেলিভারি হয়েছে গত বছর সেপ্টেম্বর মাসে, তাহলে তখন আসলো না স্বীকৃতির জন্য। কেনো?
শাকিব নাহয় লুকিয়েছে, সে লুকায়নি?
একজন মায়ের কাছে কি সন্তানের থেকে ক্যারিয়ার বড় ?
কই গত পরশুদিন পর্যন্ত তো সে বাচ্চাটির স্বীকৃতি চাইলোনা!
এবার আসি কেনো আসলেন সামনে…
গতকাল যখন একটি পত্রিকায় নিউজ হল “রংবাজ ” ছবি নিয়ে, তখন তার নাকি মাথা খারাপ হয়ে গেলো আমার নাম দেখে।
সে চায় না শাকিব বুবলী একসাথে কাজ করুক, সে শাকিবকে লোক মারফতে জানালো (যেহেতু সেই বলেছে শাকিব আর তার নাকি কথা হয়না এক বছরের মত) তাকে নিয়ে একটি ছবির নিউজ করাতে নাহয় আমাকে নিয়ে ছবির নিউজ অফ করাতে নাহলে এটার শেষ দেখে ছাড়বে সে।
আজকে এখানে বুবলী না থেকে অন্য কেউ থাকতে পারতো যার সাথে শাকিবের জুটি গড়ে উঠেছে, অপু বিশ্বাস যেটা আগের অনেক নায়িকাদের ক্ষেত্রে করতে দেয়নি যা শাকিব নিজেই বলেছে…
কেনো রাজ্জাক স্যার শাবানা ম্যাডাম, রাজ্জাক স্যার ববিতা ম্যাডাম, রাজ্জাক স্যার কবরী ম্যাডাম জুটি ছিলেন না?
রিয়াজ ভাই শাবনুর আপু, রিয়াজ ভাই পূর্নিমা আপু জুটি ছিলেন না?
এমন তো অনেক উদাহরণ আছে, কিন্তু অপু বিশ্বাস তার বাইরে কোন জুটি এস্টাবলিশড হোক এমনটি চায়নি বলেই কি তার মর্যাদা এতোদিন চাইলোনা আর সন্তানের স্বীকৃতি এতোদিন চাইলো না।
তাহলে কি! সে এক্সারসাইজ করে নাকি ফিট হয়ে এসে আবার শাকিবের সাথে মুভি করতো। তাহলে তার মর্যাদা আদায়ের কথা নাহয় বাদ দিলাম, তার বাচ্চাটির স্বীকৃতি কোথায় যেতো?
এরকম চাপাই থাকতো! আজকে এই মুভি করা নিয়েই তো এতো কিছু, তাকে নিয়ে মুভি ডিক্লারেশন আসলে কি সে বাচ্চার স্বীকৃতি চাইতো?
লুকিয়ে রাখতো না?
ধরলাম শাকিব না করেছে বলতে কিন্ত মা হয়ে সে কি করলো?
এখন মুভি নিয়ে প্রবলেম হল বলে সবার সামনে এসে সব বলছে?

সে সব জায়গায় বেশ কিছুদিন ধরে বলে আসছে তার ছবি করেছি আমি।
তাই আমি হতে পেরেছি।
আরে বাবা, পৃথিবীর অনেক দেশেই তো অনেকের রিপ্লেসমেন্টে অনেকে মুভি করছে বলিউড সুপারস্টার থেকে শুরু করে ঢালিউড পর্যন্ত, এমন কি অপু বিশ্বাস নিজেও অন্য অনেকের রিপ্লেসমেন্টে মুভি করেছে।
তাহলে এখানে এসব অযৌক্তিক কথা বলার কি মানে?
একজন মানুষকে তারকা বানায় তার দর্শকরা, তার ভক্তরা। যার জন্য আমি আমার দর্শক এবং আমার ভক্তদের কাছে কৃতজ্ঞ এতো অল্প সময়ে আমাকে এতো ভালোবাসা দেবার জন্য। আর আজকে আমি বসগিরি দিয়ে এন্ট্রি না করলে “প্রিয়া রে” ছবি দিয়ে আসতাম কারন সব প্রস্তুতি সেভাবেই নেয়া হয়েছিল। যেটা ওই ছবির ডিরেক্টর, প্রডিউসার থেকে শুরু করে অনেকেই জানেন। “প্রিয়া রে” তো অন্য কারো মুভি ছিল না, তখন সে কি বলতো?
যাই হোক, যে কেউ ভিউয়ার হিসেবে যে কোন মন্তব্য করতে পারেন সহজে কিন্তু একমাত্র তাঁরাই ভালো বলতে পারেন সবকিছু যখন যারা যেসব সিচুয়েশন এর মধ্য দিয়ে যান। আর আমাকে নিয়ে কেউ যখন সারাক্ষন কথা বলে তখন I have right to clear something n I just tried to do that….
আর হ্যাঁ সহশিল্পীদের সবার সাথে সবার ভালো আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকে যেটা আমার সাথে শাকিবের আছে এবং থাকবে।
তাকে অনেক শ্রদ্ধা করি যেটা একদিনে তৈরি হয়না যে একদিনে কমে যাবে।
“Because Shakib Khan is our pride and always will be”.

শামীম আহমেদ রনি

যে ছবির সংবাদ প্রকাশের পরই অপু বিশ্বাস টিভিতে লাইভ সাক্ষাতকারে উপস্থিত হয়েছেন বলে বুবলী অভিযোগ করেছেন সেই ছবিটি পরিচালনা করতে যাচ্ছেন শামীম আহমেদ রনি। তার পরিচালিত বসগিরি ছবির মাধ্যমেই শবনম বুবলী চিত্রনায়িকা হিসেবে রূপালী পর্দায় উপস্থিত হন। এ ছবিতে বুবলীর বিপরীতে অভিনয় করেন শাকিব খান।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় দেয়া ফেসবুক স্ট্যাটাসে রনি শাকিব খানের পক্ষে অবস্থান নিয়ে বলেন,

“ঘোলাপানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা যারা করছেন তাদের জন্য করুণা হচ্ছে … জয় অবশ্যই শাকিব খানের ছেলে …. জয়ের দায়-দায়িত্বও তাঁর … পিতা হিসেবে উনি সবই করেছেন জয়ের জন্য …. এটা দিদিও কোনভাবেই অস্বীকার করতে পারবে না … কিন্তু গল্পের পেছনেও হাজারো গল্প থাকে …. সেই গল্পও আসবে …. পুরো বিষয়টাকে সাধারন ভাবে দেখলে ভুল হবে; কারন এটা একজন সুপারস্টারের গল্প…. যাঁদের বেশির ভাগ গল্পই আড়ালে থাকে …. আর তাঁদের নিয়ে চক্রান্ত সবসময়ই হয় …. আমাদের সুপারস্টার শাকিব খানকে নিয়ে আগেও হয়েছে; এখনো হচ্ছে .. হুটহাট কেনো এতো কিছু; একটু ভাবুন … উত্তর পেয়ে যাবেন … সবশেষে বলতে চাই, শাকিব খান আমাদের দেশের সম্পদ … আমাদের গর্ব …. পাশে থাকুন … সত্য সত্যই… সত্য বের হবেই ….”

আবদুল্লাহ জহির বাবু

বর্তমান সময়ের ব্যস্ততম কাহিনীকার আবদুল্লাহ জহির বাবু সোমবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটায় অপু বিশ্বাসকে দায়ী করে স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। তিনি জানতে চান বিয়ের কথা ফাঁস করার জন্য অপু বিশ্বাস কত টাকা পেয়েছেন।

বাবু লিখেন,  মানে কি ?? এই অবস্থাতেও অপু বিশ্বাস হিরোইন হলে সব চেপে যেতেন ?? ওয়াহ – ওয়াহ ওয়াহ … ওনাকে দেখে কি মনে হয়েছে যে উনি কালকে শুটিং শুরু , এমন ছায়াছবির নায়িকা হতে পারতেন ???? সন্তানের চেয়ে তাহলে উনার কাছে ফিল্ম বড় ??? নায়িকা হবার মোহ কি মা হবার মত পবিত্র দায়িত্ব থেকে বেশী ???? বিয়ে করে সন্তান নেওয়া কি অপরাধ ??? উনার নিকেতন এর বাড়ী বগুড়ার বাড়ী কিভাবে করেছেণ ??? টাকা কি উনার কামানো ???? বাড়ীর টাকা কি হিরো কাম স্বামী, দেন নি ???? অপু বিশ্বাস ভারতীয় না বাংলাদেশী , জাতি জানতে চায় ( হা হা হা, আসেত পারে, পত্রিকার ভরসা নাই) ??? লাইভ এ সন্তান সহ উপস্থিতি এবং তাদের বিয়ের কথা ফাঁস করার জন্য অপু বিশ্বাস কত পেয়েছেণ ??? ২০ লাখ না পঞ্চাশ লাখ না আরো বেশী ??? রনীর স্ট্যাটাস থেকে উনি জেনেছেন মানে বুঝলাম না !! আজকে তো প্রথম আলো পত্রিকায় নিউজ হয়েছে সাকিব- বুবলি অভিনীত রংবাজ এর কথা।
এই সব নিয়ে আরো ঘোলা হবে পরিস্থিতি। মান্নার মৃত্যুর পর সব চেয়ে আলোড়ণ সৃষ্টি করা ঘটনা সম্ভবত এটাই। এনিওয় আমার হিসাবে সাকিব খান এর অবস্থান নড়বে না। সাকিব খান ওয়াজ দা কিং, সাকিব খান ইজ দা কিং এন্ড উইল বি দা কিং অন কামিং ইয়ারস…..

পরে তিনি রাত এগারোটার দিকে পুনরায় একটি স্ট্যাটাস প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ধ্বংস করতে দুই একজন অপু বিশ্বাসই যথেষ্ট। তিনি ল্যাটিন অক্ষর ব্যবহার করে বাংলায় লিখেন, আমাদের চলচ্চিত্রের আসলেই কপাল খারাপ। আমরাই আমাদের শত্রু। আমাদের চলচ্চিত্র ধ্বংস করতে ভারতীয় ছবির কি দরকার? আর দুই একজন অপু বিশ্বাস থাকলেই এনাফ। মেয়ে মানুষের জেদ আসলেই ধ্বংসাত্মক, কথাটা দিদি আবার প্রুভ করলেন … ভুলে গেলেন অমর বাণী, “ভাবিয়া করিও কাজ, করিয়া ভাবিও না”। শাকিব খানকে ছোট করতে গিয়ে এনটায়ার চলচ্চিত্র কমিউনিটিকে উনি ছুঁড়ে ফেললেন ঘৃণার ভাগাড়ে। কনগ্র্যাটস অপু বিশ্বাস। This is Zahir babu, writting my last status as a screen writer, which I was proud of till this day.

ছটকু আহমেদ

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে সর্বাধিক চলচ্চিত্রের নির্মাতা ছটকু আহমেদ এ ঘটনায় দুটি স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। তিনি বারবার শাকিব খানকে তার ভুল স্বীকার করে অপু এবং সন্তান জয়কে গ্রহণ করে নেয়ার অনুরোধ করেন। তিনি বলেন, অপুকে গ্রহণ করে নেয়ার মাধ্যমে শাকিব দর্শকের মনে সম্রাটের আসনে বসে যাবে।

ছটকু আহমেদ মঙ্গলবার রাত বারোটার একটু পরে প্রকাশ করা স্ট্যাটাসে বলেন, অপুর সাক্ষাতকারে চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রি শেষ হয়ে গেলো, শাকিবের মান সন্মান ক্ষুন্ন হোল চামচাদের এইসব কথায় কান না দিয়ে শাকিব যদি সত্যি অপুকে বিয়ে করে থাকে এবং এই সন্তান যদি তার সন্তান হয় তবে এখনই ভুল স্বীকার করে সন্তানকে কোলে তুলে নিয়ে অপুকে স্বীকার করে নিলে দর্শকের মনে সম্রাটের আসনে বসে যাবে শাকিব। ভুল মানুষই করে তাই ভুল স্বীকারে কোন লজ্জা নেই। সত্যকে বরণ করার মধ্যেই অর্ন্তনিহিত সুখ বিরাজ করে। আমরা শাকিবের অগনিত ভক্তরা তাই চাইছি। যেন এই ভুল বোঝাবুঝি শেষ হয়ে যাক। ওরা সুখে থাকুক। বিয়ে করলে ক্যারিয়ার ধ্বংস হয় না এটার অনেক প্রমান সবাই দেখিয়েছে আর চাঁদের টুকরার মত ছেলেকে কোলে নিলে লক্ষী অবশ্যই শাকিবের বরাতে উজ্জলতা বাড়াবে। সবাই ওদের মিলনের জন্যে দোয়া করুন ভাংতি দেয়াতে উৎসাহিত না করে। আল্লাহ উনাদের উপর সহায় হোক আমিন।

পরবর্তীতে মঙ্গলবার সকাল আটটায় তিনি পুনরায় আরেকটি স্ট্যাটাস প্রকাশ করেন। তিনি লিখেন, আমাদের চলচ্চিত্রে এক একটা যুগ এসেছে গেছে । রহমান আজিমের, রাজ্জাক ওয়াসিমের, জসীম, আলমগীরের, ইলিয়াস কাঞ্চন সোহেল রানার, রুবেল সালমান শাহর একটা যুগ গেছে। রুবেল ছা্ড়া সবাই বিবাহিত হয়েও অনেক দর্শক জনপ্রিয় ছিলো কারণ ছিলো এদের অভিনয় নৈপুণ্যতা। এখন শাকিব খানের যুগ। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র এখন একচ্ছত্র সম্রাট শাকিব খান। ভক্তরা তাকে কিং খান বলে ডাকে। এইসব শাকিবের অভিনয়ের শ্রেষ্ঠতার প্রমাণ। শুধু এপার বাংলায় নয় ওপার বাংলায়ও অভিনয়ের নৈপুণ্যের জন্যে শাকিব এখন অদ্বিতীয়। আমরা তার ভক্তরা বর্তমানে একটা সংবাদে বিস্মিত ও হতচকিত। এই মুহর্তে তাই আশা করছি সব বির্তর্ক দুরে সরিয়ে শাকিব মহত্ত্বের দিকে ধাবিত হবে। মহান একজন শাকিব খানকে আমরা দেখতে চাই। শাকিব যেন কারো দ্বারা রাগান্বিত না হয়ে শান্তিতে একটু বসে ভেবে একটা মহত্তের দুষ্টান্ত স্থাপন করে তবে সব বিস্ময় আমাদের দুর হয়ে যাবে। দয়া করে কেউ আগুন উসকে দেবেন না আগুনকে নিভানোর চেষ্টা করবেন। আমি বিশ্বাস করি আমাদের সুপার স্টার শাকিব খান এই মুহুর্তে এমন একটা সমাধান দেবেন যা চলচ্চিত্রকাশে সুবাতাস বয়ে আনবে।

কাজী মারুফ

বর্তমান সময়ের আরেকজন চিত্রনায়ক কাজী মারুফ ল্যাটিন অক্ষরে বাংলায় এ বিষয়ে একটি স্ট্যাটাস দেন। তিনি শাকিবকে ভাই সম্বোধন করে স্ত্রী এবং সন্তানকে গ্রহণ করে পর্দার বাইরে হিরো হওয়ার অনুরোধ করেন।

কাজী মারুফ তার স্ট্যাটাসে লিখেন, একট ব্যাপার আজ খুব পরিষ্কার হল আমার কাছে। (there is no NEWS Like BAD NEWS)
Bad news sells ………..
২০০৮ সালের একটি মিথ্যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি মামলার পর আমি অপু বিশ্বাস মানুষটাকে পছন্দই করতাম না। কিন্তু অপু বিশ্বাস এর ভালোবাসা শাকিব খানের প্রতি কতটা হতে পারে সেটা বুঝেছিলাম। অপু বিশ্বাস আপনি হয়তো অনেক কষ্ট পেয়েই অথবা সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই ক্যামেরার সামনে এসেছেন আজ, কিন্তু এর পরও আমি বলবো অপু বিশ্বাস আপনি এখনো শাকিবকে যথেষ্ট ভালোবাসেন এবং তার পরিবারকেও যথেষ্ট সম্মান করেন। শাকিব ভাই আমার, তোর নাম্বার আমার কাছে নাই, একটা কথা বলি তোরে। হয়তো তোমাদের ঝগড়া হয়েছে বা মনোমালিন্য হচ্ছে, যা কিছুই হোক, বাচ্চাটার দিকে তাকিয়ে দেখ তোর ছেলেটা কিন্তু কিছুই বুঝছে না, কিন্তু আস্তে আস্তে বড় হবে বুঝতে শিখবে, কিন্তু সে যখন এগুলো জানতে পারবে কষ্ট পাবে অনেক, তোর ছেলেরে কষ্ট দিবি? বাচ্চা বাপকে ছাড়াও থাকতে পারে না মা ছাড়াও থাকতে পারে না …. যাই হোকযাই হয়েছে শাকিব তুই হিরো, be hero offf screen, আর অবশ্যই তুই ভালো মানুষ …… FORGET everything ….. and get back to your wife and beautiful little kid. পলিটিক্স করার সুযোগ করে দিস না ভিনদেশীদের। …. best wishes for apu bissas and shakib khan and the lil khan.
Take care Shakib.


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?
ঈদুল আজহায় কোন সিনেমাটি দেখছেন?

[wordpress_social_login]

Shares