Select Page

শাকিব খানের এত টাকা, তারপরও অনুদান লাগে!

শাকিব খানের এত টাকা, তারপরও অনুদান লাগে!

২০২১-২২ অর্থবছরে চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান পাচ্ছে  শাকিব খান প্রযোজিত ‘মায়া’। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন হিমেল আশরাফ।

‘মায়া’ অনুদান হিসেবে পাবে ৬৫ লাখ টাকা।

বুধবার খবরটি প্রকাশের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, শাকিব খানের মতো সুপারস্টারের কেন সরকারি অনুদান নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করার প্রয়োজন হয়।

এ ব্যাপারে নিউজবাংলার সঙ্গে কথা বলেছেন মায়া সিনেমার পরিচালক হিমেল আশরাফ। তিনি আমেরিকায় থাকেন। শাকিব খানের ‘রাজকুমার’ সিনেমার বাংলাদেশ অংশের প্রি-প্রডাকশনের কাজ করতে এখন তিনি দেশে রয়েছেন।

হিমেল আশরাফ বলেন, ‘প্রথমত সবাই চান একটা ভালো সিনেমা বানাতে। আর ভালো সিনেমা বানাতে ভালো একটা বাজেটও প্রযোজন হয়। দ্বিতীয়ত, এই বাজারে বেশি বাজেটের সিনেমা বানিয়ে টাকা ফেরত আনা সম্ভব না। তাই এ সময়টাতে যতটা সম্ভব পৃষ্ঠপোষকদের সাহায্যে সিনেমা নির্মাণ করতে পারলে ভালো। সিস্টেম যখন পরিবর্তন হবে, তখন আবার এগুলো লাগবে না।’

তিনি আরও বলেন, ‘শাকিব খানের অনুদান কেন লাগে- এমন কথা আমিও শুনেছি। এর কারণ হলো রিস্ক ফ্যাক্টরটা কমিয়ে আনা। সিনেমার ব্যবসা যখন ভালো হবে, তখন আর অনুদান লাগবে না।’

হিমেল জানান, রোমান্টিক-ড্রামা ঘরানার সিনেমা হবে ‘মায়া’। এর সঙ্গে থাকবে পিরিওডিক ব্যাপারও। চলতি বছরেই সিনেমার শুটিং শুরু করতে চান পরিচালক। পুরো কাজ হবে বাংলাদেশেই।

হিমেল বলেন, ‘সিনেমায় শাকিব খান থাকবেন, তবে তার বিপরীতে কে থাকবেন তা এখনও চূড়ান্ত করে বলতে পারছি না। আমাদের চেষ্টা থাকবে যত দ্রুত কাজটা করে ফেলা যায়।’


মন্তব্য করুন

Shares