Select Page

শাকিবের ফাড়া কাটল, রনির ভাগ্যে কী?

শাকিবের ফাড়া কাটল, রনির ভাগ্যে কী?

পরিচালকদেরকে বেকার বলেছিলেন ঢালিউডের সুপারস্টার শাকিব খান। প্রতিবাদে পরিচালক সমিতির পক্ষ থেকে প্রথমে তাকে উকিল নোটিশ পাঠানো হয় এবং তারপর তাকে বয়কট করা হয়। শাকিব খানকে নিয়ে শামীম আহমেদ রনি কাজ করেছিলেন রংবাজ ছবির। তাকে কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেয়া হলেও উপেক্ষা করেন রনি। ফলে পরিচালক সমিতির পক্ষ থেকে তাকে নিষিদ্ধ ঘোষনা করা হয়। অচলাবস্থার নিরসনে চিত্রনায়ক আলমগীর-সোহেল রানার উদ্যোগে শাকিব খানের সাথে সমঝোতা হয়ে গেছে, কিন্তু রনির সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আসে নি।

অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে শাকিব খানের পক্ষ নিয়ে পরিচালক সমিতির সিদ্ধান্ত মেনে না নেয়ায় রনিই ফেঁসে গিয়েছেন। সোমবার দুপুর তিনটায় এফডিসিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শাকিবের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত জানানোর পাশাপাশি এও জানানো হয়েছে যে রনির নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয় নি।

সম্মেলনে শাকিব খান বা শামীম আহমেদ রনি কেউই উপস্থিত ছিলেন না। সংবাদ সম্মেলনে রনির সাথে কাজ না করার আহবান জানানো হয়।

তবে চলচ্চিত্র সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার জানান, আমরা শিগগিরই রনির বিষয়টি নিয়েও আলোচনা করব। সিদ্ধান্ত আগেরটাই থাকবে না বদলাবে- তা আলোচনার পর বলা যাবে।

উল্লেখ্য, পরিচালক সমিতির গঠনতন্ত্রের ৫-এর ‘ক’ ধারা সূত্রে শামীম আহমেদ রনির পরিচালক সমিতির সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে। অবশ্য এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা বা সদস্যপদ বাতিল কোন প্রভাব ফেলবে কিনা তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ। কারণ সদস্যপদ বাতিল হলেও ভিন্ন পন্থায় চলচ্চিত্র নির্মানের নজির সাম্প্রতিক সময়েই রয়েছে।

২০১৪ সালে চলচ্চিত্র পরিচালক অনন্য মামুনকে অবাঞ্ছিত ঘোষনা করে সদস্য পদ বাতিল করে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। কিন্তু তা সত্ত্বেও অনন্য মামুন চলচ্চিত্র নির্মান করেছেন। এ প্রসঙ্গে ২০১৪ সালে প্রথম আলোকে অনন্য মামুন জানান, ‘আমার তো একটা ঝামেলা আছে। পরিচালক সমিতি সম্প্রতি আমার সদস্যপদ বাতিল করেছে। এই মুহূর্তে তাই নিজের নামে ছবির শুটিং করতে পারছি না। আর সে জন্যই ছবির শুটিংয়ের ক্ষেত্রে অন্য উপায় অবলম্বন করতে হচ্ছে। নতুন ছবি “ফ্রেন্ডশিপ”-এর শুটিং পরিচালক চন্দন চৌধুরীর নামে শুরু করছি। শুটিং চলাকালীন পরিচালক সমিতির সঙ্গে আমার ঝামেলা মিটে গেলে তখন নিজের নামে ছবিটি করে নেব।’

চলচ্চিত্র প্রযোজনা সংস্থা জাজ মাল্টিমিডিয়ার সদস্যপদও বাতিল করা হয়েছিল ২০১৪ সালে। কিন্তু তা সত্ত্বেও জাজের চলচ্চিত্র নির্মান কার্যক্রম থেমে থাকে নি।

শামীম আহমেদ রনির ক্ষেত্রেও এ ধরনের কোন উপায় পাওয়া যেতে পারে। রংবাজ ছবিটি আগামী ঈদুল ফিতরে মুক্তির পরিকল্পনা নিয়ে নির্মান করা হচ্ছিল।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares