Select Page

সমকামিতার প্রতীক, তাই নাম পরিবর্তন

টেলিফিল্মের নাম রেইনবো। তিন নারীর গল্প নিয়েই তার কাহিনী। তিন নারীর চরিত্রে রিচি সোলায়মান, প্রভা এবং স্বাগতা, নির্মাতা মাহমুদ দিদার। কিন্তু প্রচারের আগেই পাল্টে গেল তার নাম, কারণ হিসেবে বলা হয়েছে-রেইনবো সমকামিতার প্রতীক। 

নাম পাল্টানোর পর নতুন নাম রাখা হয়েছে ইটস মাই লাইফ। বাংলাভিশন চ্যানেলে প্রচারিতব্য এ টেলিফিল্মের নাম পরিবর্তনে নির্মাতা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

সাম্প্রতিক সময়ে রেইনবো সমকামিতার প্রতীক হিসেবে সকলের কাছে পরিচিত হয় উঠেছে। সমকামিতার সমর্থনে ফেসবুকের প্রোফাইল ছবিতে রেইনবো রং ধারন করার ঘটনাই এই নামকরণকে পরিচিত করে তোলে। টেলিফিল্মের নামের মধ্যেও এই  বিষয়ের প্রতি ইঙ্গিত আছে এমন ভুল বোঝাবুঝি সৃষ্টির আশংকায় নাম পরিবর্তন করেছে চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

অবশ্য নির্মাতা মাহমুদ দিদার এর জন্য গোলাম আজমের ছেলেকে দায়ী করেছেন তার দেয়া এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে। তিনি লিখেন, ‘রেইনবো’তে তিনজন নারীর নিজস্ব জীবনযাপনের গল্প বলতে চেয়েছি। কিন্তু নামটা নাকি সমকামীদের সিম্বল। এখানে রেইনবো নামে বিরিয়ানীর দোকান, বাস সার্ভিস, ফিল্ম সংগঠন, কাপড়ের দোকান থেকে শুরু করে মনোহরী কসমেটিক্সের নামও আছে। তাহলে কি ধরে নেবো এইসব জিনিসপত্র সমকাম করে বেড়ায়?’

তিনি আরো লেখেন, ‘গল্পে আমি এমন কিছু দেখাইনি যাতে সমাজ স্বাভাবিক জীবনযাপন থেকে বিচ্যুত হতে পারে। কিন্তু গল্পের পুরোটা না জেনেই অনেকে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। গোলাম আযমের ছেলে নাকি তার ফেসবুক পেজে প্রতিরোধের ডাক দিয়েছে। সেখানে তিনি ৭১ টেলিভিশনে প্রচারিত একটা শুটিং স্পট রিপোর্ট এর লিঙ্ক শেয়ার করে দেখিয়েছেন। তাতে তার প্রেতাত্মা অনুসারী, নব্য রাজাকাররা এটা নিয়ে প্রচুর প্রপাগান্ডা চালাচ্ছে। আরো একবার নিশ্চিত হলাম বাংলাদেশ রাষ্ট্রের মধ্যে যে জঙ্গী প্রতিক্রিয়াশীলতা তার মূল হচ্ছে মৌলবাদী জামাতী গোষ্ঠি।’

সরকারের সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর গোয়েন্দা সংস্থাও ‘রেইনবো’র উপর নজরদারী চালাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি জানান, ‘তারা গল্পের ‘রেইনবো’ নামটা ইরেজ করে দিতে চায়। এই নামে কোনোও ফিকশন অন এয়ার হলে রাষ্ট্রে তুমুল অশান্তি তৈরী হবে। তাহলে ঘটনা কি দাড়ালো? তার সারমর্ম এই যে , ‘জামাতীদের দাবির সপক্ষে গিয়ে তারা স্ট্যান্ড নিয়েছে। প্রতিক্রিয়াশীল, খুনবাদী গোষ্ঠি যদি এভাবে রাষ্ট্রের প্রশ্রয় পেতে থাকে তার পরিণতি নিশ্চিতভাবেই ভালো হবেনা একসময়। মুক্তিযোদ্ধা পিতার সন্তান হিসেবে আমি এই পুরো প্রক্রিয়াটাকে প্রত্যাখ্যান করছি।’

নাম পরিবর্তনের বিষয়টি নিয়ে নাটকপাড়ায় সমালোচনার ঝড় বইছে। নাটকটি আগামীকাল সোমবার দুপুর ২টা ১০ মিনিটে বাংলাভিশনে প্রচার হবে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

[wordpress_social_login]

Shares