Select Page

সিমলার কারণে ‘ময়ূরপঙ্খী’ থেকে ‘ময়ূরাক্ষী’?

সিমলার কারণে ‘ময়ূরপঙ্খী’ থেকে ‘ময়ূরাক্ষী’?

শোনা গিয়েছিল রাশিদ পলাশের নতুন সিনেমার নাম ‘ময়ূরপঙ্খী’। কিন্তু ফার্স্টলুক পোস্টারে সেই ছবির নাম হয়ে গেল ‘ময়ূরাক্ষী’। নায়িকা ইয়ামিন হক ববি কথা প্রসঙ্গে জানালেন সেই বদলের উত্তর।

প্রথম থেকেই শোনা যাচ্ছিল, নায়িকা সিমলা ও তার সাবেক স্বামীর কাহিনি নিয়ে হচ্ছে সেই ছবি। এ নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী। সেই আপত্তি আমলেই নিয়ে এ পরিবর্তন?

ছবির নাম ‘ময়ূরপঙ্খী’ থেকে হঠাৎ ‘ময়ূরাক্ষী’ করা হলো কেন? কালের কণ্ঠকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ববি বলেন, এর পেছনে অনেক কারণ আছে। শুরুর দিকে প্রচার হয়েছে, ছবির গল্প ২০১৯ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ বিমানের দুবাইগামী উড়োজাহাজ ‘ময়ূরপঙ্খী’কে ঘিরে, আসলে তা নয়। এটি একটি নিটোল প্রেমের গল্প। এখন আবার অনেকে বলছেন, আমার চরিত্রটি আমাদের চলচ্চিত্রেরই একজন নায়িকার জীবন নিয়ে। সেটি নিয়ে তিনি (সিমলা) আপত্তিও তুলেছেন মিডিয়ায়। এসব কারণে পরিচালক ঝুঁকি নেবেন না বলেই নাম পরিবর্তন।

ছবিতে নিজের চরিত্র প্রসঙ্গে ববি বলেন, আমি একজন চলচ্চিত্র তারকা হয়েই পর্দায় হাজির হব। নাম নয়নতারা। সারা দেশে আমার হাজার হাজার ভক্ত-অনুরাগী। অনেকে পাগলের মতো ভালোবাসে, বিয়ে করতে চায়, কিন্তু বাস্তব জীবনটা আমার খুব চ্যালেঞ্জিং। একদিকে ক্যারিয়ার ধরে রাখার স্ট্রাগল, অন্যদিকে সংসারজীবনে থিতু হওয়া নিয়ে নয়নতারা সময় পার করে।

সিমলা

নায়িকা জানান, ‘ময়ূরাক্ষীর’ বড় অংশের দৃশ্যায়ন হবে বিমানের সেটে।

শুটিং ও মুক্তি প্রসঙ্গে জানান, আমরা এক লটেই শুটিং শেষ করব। একদিকে শুটিং হবে, অন্যদিকে হবে পোস্ট-প্রডাকশনের কাজ। পরিচালক জানিয়েছেন, ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছা তার। আমিও আশা করছি, নির্ধারিত দিনে ছবিটি মুক্তি পাবে।

এ ছবিতে টেলিভিশনের জনপ্রিয় এক অভিনেতা থাকার কথা রয়েছে। আরেকটি চরিত্রে আছেন শিরিন শিলা।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares