Select Page

‘স্টপ জেনোসাইড’ থেকে নাম সরিয়ে নিল ইমপ্রেস টেলিফিল্ম

‘স্টপ জেনোসাইড’ থেকে নাম সরিয়ে নিল ইমপ্রেস টেলিফিল্ম


# জহির রায়হানের ‘স্টপ জেনেসাইড’কে নিজেদের প্রযোজনা দাবি করে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম
# এ নিয়ে প্রতিবাদ উঠলে নাম প্রত্যাহারে বাধ্য হয়
# জহির রায়হানের ছেলে বিপুল রায়হান বলেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের দলিল ‘স্টপ জেনোসাইড’-এর মালিকানা দাবি করা বা টাইটেলকার্ডে ‘নির্বাহী প্রযোজক’ হিসেবে নিজেদের নাম ব্যবহার করে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ আচরণ করেছেন

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালে জহির রায়হান নির্মাণ করেন কালজয়ী প্রামাণ্যচিত্র ‘স্টপ জেনোসাইড’। সম্প্রতি কয়েকজন চলচ্চিত্র গবেষক ও সংগঠকের নজরে আসে বঙ্গবিডির ইউটিউব চ্যানেলে আপ করা ছবিটিতে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের টাইটেল ব্যবহারের পাশাপাশি নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে যোগ করা হয়েছে ফরিদুর রেজা সাগর ও ইবনে হাসান খানের নাম। এ নিয়ে প্রতিবাদের পর লোগো ও নাম সরিয়ে নিল ইমপ্রেস।

গবেষক বিধান রিবেরু ১৬ জানুয়ারি ফেসবুকে টাইটেল কার্ডের স্ক্রিনশট দিয়ে লেখেন, “জহির রায়হানের প্রখ্যাত ‘স্টপ জেনোসাইড’ প্রামাণ্যচিত্রের নির্বাহী প্রযোজক কি করে ফরিদুর রেজা সাগর ও ইবনে হাসান খান হন? প্রামাণ্যচিত্রটি আপ করেছে বঙ্গবিডি ২০১৫ সালে। আমাদের বোধবুদ্ধি কি সব লোপ পাচ্ছে? জহির রায়হানের ইংরেজি বানানটাও ভুল করেছে। অশিক্ষিত, বর্বর।”

এর পরপরই প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

১৭ জানুয়ারি মুভিয়ানা ফিল্ম সোসাইটির বেলায়াত হোসেন মামুন লেখেন, ‍“বঙ্গবিডি নামের ইউটিউব চ্যানেলে ‘স্টপ জেনোসাইড’ এর ভিডিও ফাইলটি আজ সকালে আর পাচ্ছিলাম না… ভাবলাম সরিয়ে ফেলা হয়েছে। এখন দেখছি তাঁরা সরায় নি। তারা ভিডিওটা থেকে ইমপ্রেসের লোগো এবং ফরিদুর রেজা সাগরের নাম তুলে নিয়েছে। ভালো ব্যাপার। তাঁরা জল অনেক ঘোলা না করেই শুধরে নিলো… তবে…

ইমপ্রেস টেলিফিল্ম কি করে তাদের নাম ‘স্টপ জেনোসাইড’ এর টাইটেলে যুক্ত করেছিল সে ব্যাখ্যা তাঁরা এখনও দেয় নি। আমরা সেই ব্যাখ্যা জানতে চাই।

ইমপ্রেস টেলিফিল্ম কিভাবে স্টপ জেনোসাইডের মালিকানা পায় বা দাবি করে তাও তো জানা দরকার?”

অন্য এক স্ট্যাটাসে জহির রায়হানের ছেলে বিপুল রায়হানের বরাত দিয়ে লেখেন, “শ্রদ্ধেয় চলচ্চিত্রকার জহির রায়হানের জেষ্ঠ্যপুত্র Bipul Raihan বলেছেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের দলিল ‘স্টপ জেনোসাইড’ এর মালিকানা দাবি করা বা টাইটেলকার্ডে ‘নির্বাহী প্রযোজক’ হিসেবে নিজেদের নাম ব্যবহার করে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম চরম ধৃষ্টতাপূর্ণ আচরণ করেছেন। এ কাজের বিষয়ে শহীদ চলচ্চিত্রকার জহির রায়হানের পরিবার অবগত ছিলেন না। তাঁরা পরিবারের পক্ষ থেকে ইমপ্রেস টেলিফিল্মকে এই ধৃষ্টতাপূর্ণ আচরণের জন্য প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

অগ্রজ Bipul ভাইয়ের এই কথায় আমরা বাংলাদেশের চলচ্চিত্র সংসদকর্মীগণ আশ্বস্থ হলাম। আমরাও চাই ইমপ্রেস টেলিফিল্ম তাদের এই কাজের বিষয়ে প্রকাশ্যে ব্যাখ্যা দিন এবং ক্ষমা প্রার্থণা করুন।

আমরা তাদের এবং আরও সবাইকে এই বিষয়ে হুশিয়ার করতে চাই যে, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সকল দলিল বাংলাদেশের মানুষের জাতীয় সম্পদ। এই সম্পদ আমাদের অহংকার এবং গর্বের বিষয়। মুক্তিযুদ্ধের দলিলপত্র ব্যবসাবৃত্তির জন্য নয়।”

অবশ্য এ বিষয়ে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম বা বঙ্গবিডি আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য করেনি।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?
বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের অভিনয়শিল্পী বাছাই কেমন হয়েছে?

[wordpress_social_login]

Shares