Select Page

দিতির সেরা দশ গান

দিতির সেরা দশ গান

diti 4
নব্বইয়ের দশকের পর্দা কাঁপানো অভিনেত্রী চিত্রনায়িকা পারভীন সুলতানা দিতি দীর্ঘদিন রোগভোগের পর অতি সম্প্রতি সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। ইউটিউব আর টেলিভিশন চ্যানেলের কল্যাণে বর্তমান প্রজন্মের কাছে দিতি মোটেও অপরিচিত কেউ নয়, কিন্তু সেই সময়ের দর্শক যারা দিতিকে ভালোবেসে দিতিকে বড় পর্দায় দেখার জন্য ছবি মুক্তির পরপরই প্রেক্ষাগৃহে ছুটে যেতেন এবং একই ছবি একাধিকবার দেখতেন, তাদের অনুভূতি কেমন ছিল তা জানার জন্য আমরা দিতি অভিনীত চলচ্চিত্রের পছন্দের গানের কথা জানতে চেয়েছিলাম। সেই দর্শকদের মতামতের উপর ভিত্তি করে আমরা তৈরী করেছি দিতির সেরা দশ গানের তালিকা। তবে আমরা অবশ্যই দাবী করবো না – এই গানগুলিই সেরা গান – দর্শকভেদে এই তালিকা ছোট বড় হতে পারে। তাই, কোন ক্রম অনুসরন না করে, দিতি অভিনীত দশটি গান বিএমডিবি-র পাঠকদের জন্য উপস্থাপন করা হল।

ভালোবাসা যত বড় জীবন তত বড় নয়
ভালোবাসা যত বড় জীবন তত বড় নয় – এই গানটি সৈয়দ হারুন পরিচালিত ১৯৯৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘চরম আঘাত’ ছবির, গানে কন্ঠ দিয়েছেন ভারতীয় শিল্পী কুমার শানু এবং মিতালী মুখার্জী। এই গানটির গীতিকার মোহাম্মদ রফিকুজ্জামান এবং সুরকার আলাউদ্দিন আলী। পর্দায় ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন এবং দিতি

আমি একদিন তোমায় না দেখিলে
১৯৮৮ সালে মুক্তি পায় আফজাল হোসেন এবং দিতি অভিনীত চলচ্চিত্র দুই জীবন। আবদুল্লাহ আল মামুন পরিচালিত চলচ্চিত্রের এ গানের শিল্পী রুনা লায়লা ও এন্ড্রু কিশোর, সুর করেছেন আলম খান।

চিঠি কেন আসে না আর দেরী সহে না

চিঠি কেন আসে না আর দেরী সহে না ছবিটি পরিচালনা করেছেন ফজল আহমেদ বেনজীর। ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৯৫ সালে। ছবিতে দিতির বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন পশ্চিম বাংলার জনপ্রিয় চিত্রনায়ক প্রসেনজিৎ।

আজ পাশা খেলবো রে শ্যাম

মানুষ চলচ্চিত্রের গান। এ জে রানা পরিচালিত এ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় ১৯৯৭ সালে। গানে দিতির বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন হুমায়ূন ফরিদী। ছবির আরেক প্রধান অভিনেতা ছিলেন মান্না।

আমার রাত কাটে না

সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত বেনাম বাদশা চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় ১৯৯২ সালে। গানে দিতির বিপরীতে ছিলেন ইলিয়াস কাঞ্চন।

কত যে তোমাকে বেসেছি ভালো

১৯৮৬ সালে মুক্তি পায় মমতাজ আলী পরিচালিত চলচ্চিত্র উসিলা। শ্রেষ্ঠাংশে বাংলাদেশের অন্যতম সুদর্শন চিত্রনায়ক জাফর ইকবাল, তার বিপরীতে চিত্রনায়িকা দিতি

তুমি আজ কথা দিয়েছো

আবারও দুই জীবন চলচ্চিত্রের গান। আবদুল্লাহ আল মামুন পরিচালিত এই চলচ্চিত্রের একাধিক গান এখনো মানুষের মুখে মুখে ফিরে।

তুমি নাই কিছু নাই তুমি আছো সব আছে

চিত্রনায়ক মান্নার বিপরীতে দিতি। ছবিটির প্রযোজকও ছিলেন মান্না, নাম লুটতরাজ। ১৯৯৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এ চলচ্চিত্রের পরিচালক ছিলেন কাজী হায়াৎ।

আমার মনের আকাশে আজ

ইলিয়াস কাঞ্চন ছবি আঁকতে আঁকতে চিত্রনায়িকা দিতির প্রেমে মশগুল। বিখ্যাত এ গানটির শিল্পী কুমার শানু। ছবির নাম প্রেমের প্রতিদান, পরিচালক ফজল আহমেদ বেনজীর। মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯১ সালে। গানটির সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন বিখ্যাত সুরকার শেখ সাদী খান। এই ছবিতে দিতি স্বামী চিত্রনায়ক সোহেল চৌধুরীও অভিনয় করেছিলেন।

 

বেলী ফুলের মালা পড়ে

ইলিয়াস কাঞ্চন অভিনীত বেপরোয়া চলচ্চিত্রের এ গানটিও অনেক দর্শকের সেরা দশের তালিকায় আছে। কবির আনোয়ার পরিচালিত এ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেয়েছিল ১৯৯২ সালে।


মন্তব্য করুন

Shares