Select Page

আবার বসন্তের গল্পটা কী? (টিজার)

আবার বসন্তের গল্পটা কী? (টিজার)

কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে বিচারকের কাছে এক ষাটোর্ধ্ব ব্যক্তির বিনীত প্রশ্ন, ‘জীবনের উজ্জ্বল বসন্তগুলো আমার সন্তানদের দিয়েছি। এই শেষ বসন্তে এসে কেন আমি নিজের মতো করে বাঁচতে পারবো না?’

এভাবে জীবনের ৬০ বছর পেরিয়ে আবার বসন্তে ফেরার আকুতি ঝরে পড়ে জ্যেষ্ঠ অভিনেতা তারিক আনাম খানের কণ্ঠে। মাত্র ২৫ বছর বয়সী অর্চিতা স্পর্শিয়ার কাছে সেই বসন্তের খোঁজ করতে গিয়ে সমাজ-সন্তানের কাছে প্রতিনিয়ত অপমানিত হচ্ছেন তিনি। যেতে হলো আদালত পর্যন্ত!

এ ঘটনা অনন্য মামুনের গল্প, চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় ‘আবার বসন্ত’ ছবির। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ছবির টিজার উন্মুক্ত হয়েছে আনলিমিটেড অডিও ভিডিও নামের ইউটিউব চ্যানেলে।

প্রথম থেকে ধারণা ছিল এ ছবি সম্ভবত অসম প্রেমের কমেডি নির্ভর কোনও গল্প। তবে ছবির প্রোমো প্রকাশের পর সেই ধারণাটা পাল্টে গেল।জানা গেল, ছবিতে লুকিয়ে আছে বেশিরভাগ বয়স্ক মানুষের একা ও অসহায়ত্বের অসাধারণ এক না বলতে পারা গল্প।

প্রোমোর শুরুটাই হয় তারিক আনাম খানের একটি ডায়লগ দিয়ে, ‘অদ্ভুত আমার এ জীবন, সন্তানের ভবিষ্যৎ গড়া ছাড়া আমার আর কোনও স্বপ্ন নেই।’

পরিচালক অনন্য মামুন বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করেছি ভিন্ন কিছু করার। জানি না দর্শকরা কীভাবে নেবেন। প্রত্যাশা এটুকুই, পরিবর্তনের হাওয়া লাগুক আমাদের বাংলা চলচ্চিত্রে।’

তারিক আনাম খান বলেন, ‘দর্শক বাংলা চলচ্চিত্রে নতুন ধরনের একটি গল্প পাবে। নতুন ধরনের নির্মাণ পাবে। অসম প্রেমের গল্প বলা হলেও এটি আসলে জীবনবোধের গল্প, মানবিকতার গল্প, পরিবারের গল্প, একাকিত্বের গল্প। যে কোনও গল্পই ভিন্ন মাত্রা পায় যখন সেখানে একটি বার্তা থাকে। পরিচালক অনন্য মামুন এ সময়ে এসে আমাকে উপজীব্য করে একটি সিনেমা করার সাহস করেছেন—এজন্য তাকে সাধুবাদ জানাই।’

অর্চিতা স্পর্শিয়ার ভাষ্য, ‘‘আমার অভিনয় জীবনের একটি বড় অর্জন হতে যাচ্ছে এ ছবিটি। তারিক আনাম খান নিজেই একটি প্রতিষ্ঠান। তাঁর সামনে দাঁড়িয়ে অভিনয় করার জন্য সাহসের প্রয়োজন হয়। আমি নিশ্চিত, ‘আবার বসন্ত’ শুধু আমাদের জীবনে নয়, বাংলা সিনেমার দর্শকের জন্য নতুন কিছু যোগ করবে।’’

‘আবার বসন্ত’তে বিভিন্ন চরিত্রে আরও আছেন মনিরা মিঠু, ইমতু রাতিশ, মুকিত, আনন্দ খালিদসহ অনেকেই। ছবিটি প্রযোজনা করেছে ট্যাম মাল্টিমিডিয়া। ডিজিটাল পার্টনার লাইভ টেকনোলজিস লিমিটেড।

পরিচালক জানান, এ সপ্তাহের মধ্যে ছবিটি জমা পড়ছে সেন্সর বোর্ডে। এরপর মুক্তির সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হবে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

সাম্প্রতিক খবরাখবর

[wordpress_social_login]

Shares