Select Page

ঈদের তিন ছবি: একটি তুলনামূলক পর্যালোচনা

গতকাল ‪ এক ভাইয়ের সাথে কথা হয়েছিল, কোন ছবিটা আগে দেখব এটা নিয়ে এবং বলেছিলাম সময় নেই, ফ্রেন্ডদের সাথে শুধু একটা ছবি দেখব। তখন তিনি একটা ছবির নাম বলেছিলেন। যাইহোক আজ সেই ছবিটা রাত ৯.৩০ মিনিটের শো তে অভিসার প্রেক্ষাগৃহে ফ্রেন্ডদের সাথে দেখলাম। তার আগে আমরা বলাকা ও মধুমিতায় বাকি দুইটা ছবি দেখেছি। তাই আজ একসাথে তিনটা মুভিই দেখা হল। তিনটা মুভির তুলনামূলক পর্যালোচনা করে এই লেখাটি লিখলাম।

>>ভালবাসা আজকাল :

Bhalobasha Ajkal Poster

১। এই ছবিটা একটু বেশি ভাল লেগেছে কারন গল্পটা একটু অন্য ধরণের।
২। সামান্য যে সব ভুল আছে ,তা বাণিজ্যিক সব ছবিতেই থাকে। তাই এসব ভুল মার্জনীয়।
৩। গান গুলো শ্রুতিমধুর, চিত্রায়নও বেশ ভাল।
৪। ছবির লোকেশন চমৎকার, এই ছবি না হলে বুঝা যেত না যে বাংলাদেশে এত সুন্দর জায়গা আছে।
৫। অ্যানিমেশনও ভাল হয়েছে, বিশেষ করে এই প্রথম একটা মুখ গানটিতে যে অ্যানিমেশন হয়েছে তা সত্যিই পরিচ্ছন্ন ছিল ।
৬। কাবিলা, মাহি এদের অভিনয় ভাল লেগেছে। আর শাকিব খান এর অভিনয় ছিল নজরকাড়া। আরেকটা ব্যাপার শাকিব খান তার ওজন কমিয়েছেন মনে হচ্ছে, তাই তাকে আগের চেয়ে অনেক স্মার্ট লাগছিল।
৭। ছবিতে কমেডির উপস্থিতি দর্শককে ঈদের আনন্দ দিবে ।
৮। সর্বোপরি আমার রেটিং : ৭.৫/১০

>>নিঃস্বার্থ ভালবাসা :

 

Nisshartho Bhalobasha B

১। এই ছবিটিও ভাল লেগেছে, গল্পটা ভাল। ছবিটাতে অনন্ত নিজের জীবনের কাহিনি বলছেন বলে মনে হল। বাস্তবতা কতটুকু তা জানিনা।
২। এই ছবিতে বাণিজ্যিক ছবির সাধারণ ভুলগুলোই বিদ্যমান। তবে অতিরিক্ত স্পেশাল ইফেক্ট এর ব্যবহার আমার নিজের কাছে দৃষ্টিকটু লেগেছে।
৩। গানগুলোও প্রশংসনীয়, চিত্রায়নে বিদেশি লোকেশন এর ব্যবহার বৈচিত্র্য এনে দিয়েছে।
৪। ছবির লোকেশন চমৎকার, বিদেশি লোকেশন এর ব্যবহার রয়েছে।
৫। টাইটেল সং এর অ্যানিমেশন সত্যিই বাজে লেগেছে।
৬। অনন্তর অভিনয় আগের চেয়ে ভাল হয়েছে। বর্ষার অভিনয় নিয়ে আরও অনেক সময় দিতে হবে।
৭। ছবিতে কমেডির উপস্থিতি নাই বললেই চলে।
৮। সর্বপরি আমার রেটিং : ৭/১০

>>মাই নেম ইজ খান :

My-Name-Is-Khan-B-217x275

১। গল্পটা গতানুগতিক তবে কমেডিতে ভরপুর। গল্পের কথা না ভাবলে যে কেউ এই ছবিটি দেখে সবচেয়ে বেশি মজা পাবে।
২। এই ছবিতে বাণিজ্যিক ছবির সাধারণ ভুলগুলোই বিদ্যমান। স্পেশাল ইফেক্ট এর ব্যবহার নাই বললেই চলে ।
৩। গানগুলোও প্রশংসনীয়, চিত্রায়নে বিদেশি লোকেশন এর ব্যবহার বৈচিত্র্য এনে দিয়েছে।
৪। ছবির লোকেশন চমৎকার, বিদেশি লোকেশন এর ব্যবহার রয়েছে।
৫। টাইটেল সং এ কোন অ্যানিমেশন নাই। গানটা বেশ ভাল লেগেছে।
৬। এই ছবির সবার অভিনয় অনেক ভাল হয়েছে। বিশেষ করে কমেডি অভিনয়। আর শাকিব খান এই ছবির গল্প অনুযায়ী ভাল অভিনয় করেছেন।
৭। ছবিতে কমেডির উপস্থিতি বাকি দুই ছবির তুলনায় অনেক বেশি।
৮। সর্বপরি আমার রেটিং: ৬/১০

আশা করি সবাই এই তিনটা ছবিই দেখবেন। যেটা বেশি ভাল লাগবে সেটা নিয়ে লিখুন এবং জানান যে কেন বাকি দুইটা থেকে ভাল। আপনি ব্যক্তিগত ভাবে যেই নায়কেরই ভক্ত হোন না কেন অন্য নায়কের ভাল ছবি দেখুন। এই রিভিউ টা আমার সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত মতামত, কারো কারো সাথে নাও মিলতে পারে। কোন দ্বিমত থাকলে সংযত হয়ে কমেন্ট করুন। কিন্তু দয়া করে গালিগালাজ কিংবা কাউকে উদ্দেশ্য করে আক্রমনাত্নক কথা বলবেন না। কারন আমরা ভাই ভাই। সবাই বাংলা চলচ্চিত্রের উন্নিত চাই। ধন্যবাদ।


অামাদের সুপারিশ

২ টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon
বাংলা সিনেমা ২০১৯ সালে কেমন যাবে?
বাংলা সিনেমা ২০১৯ সালে কেমন যাবে?
বাংলা সিনেমা ২০১৯ সালে কেমন যাবে?

[wordpress_social_login]

Shares