Select Page

এসকে মুভিজকে শিডিউল দিতে পারলেন না শাকিব

এসকে মুভিজকে শিডিউল দিতে পারলেন না শাকিব

একদিকে শাপলা মিডিয়ার অপেশাদারি আচরণের কারণে গত মাসে অনেকটা সময় বেকার বসে কাটাতে হয়েছে শাকিব খানকে, অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, শিডিউল না থাকায় এসকে মুভিজকে খালি হাতে ফিরিয়েছেন নায়ক।

কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে মুভিজের ‘শিকারি’ ও ‘নবাব’ দিয়ে শাকিবের অন্যরকম প্রত্যাবর্তন। দর্শকের সাড়াও পান। সে মুনাফার কথা চিন্তা করে প্রতিষ্ঠানটি যৌথর বদলে এককভাবে সিনেমা বানিয়ে বাংলাদেশে রপ্তানি করছে। এর আওতায় পরে একই প্রতিষ্ঠানের ‘চালবাজ’ ও ‘ভাইজান এলো রে’ ছবি দুটিতে অভিনয় করেন শাকিব।

কালের কণ্ঠ এক প্রতিবেদনে জানায়, প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার অশোক ধানুকার সঙ্গে বাবা-ছেলের সম্পর্কও তৈরি হয়। সবাই ধরে নিয়েছিলেন এসকের হাত ধরেই কলকাতায় ‘ব্যাক টু ব্যাক’ ছবি করবেন তিনি। কিন্তু হলো না। শিডিউল জটিলতার কারণে পরপর দুটি ছবি ফিরিয়ে দিলেন ‘খান’ সাহেব।

দুটি ছবিই আগের চার ছবির পরিচালক জয়দীপের পরিচালনা করার কথা। অভিনয় করার কথা শ্রাবন্তী ও মিমির। ভালো বাজেট এবং লন্ডনে শুটিং হওয়ার কথাও ছিল নাকি।

শাকিব বলেন, “কলকাতায় আমার বাজার তৈরি হয়েছে। এসকেও চায় আমার চাহিদাকে কাজে লাগাতে। কিন্তু তারা যে সময়ে শিডিউল চেয়েছিল তখন আমার ‘একটা প্রেম দরকার মাননীয় সরকার’ ও ‘শাহেনশাহ’ শুটিং করার কথা। এরপরই শুরু হবে ‘বীর’। কোনোভাবেই সময় বের করতে পারলাম না। তবে শিগগিরই এসকের সঙ্গে কাজ শুরু হবে বলে মনে করছি।”

এদিকে শোনা যাচ্ছে, কিছুদিন আগে কলকাতার একটি ছবি ফসকে যায় শাকিবের হাত থেকে। বাবা যাদবের পরিচালনায় অভিনয় করতে নাকি ৬০ লাখ টাকা হেঁকেছিলেন তিনি। কিন্তু প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রাজি হয়নি।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Coming Soon
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?
২০২০ সালে বাংলা চলচ্চিত্রের অবস্থা কেমন হবে?

[wordpress_social_login]

Shares