Select Page

খুব শিগগিরই নীতিমালার আওতায় আসবে ওটিটি প্লাটফর্ম

খুব শিগগিরই নীতিমালার আওতায় আসবে ওটিটি প্লাটফর্ম

ওটিটি প্লাটফর্মের বিতর্কিত কনটেন্ট নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। সোমবার সকালে সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ তথ্য জানান।

আশফাক নিপুণ পরিচালিত ওয়েব সিরিজ ‘মহানগর’

ওটিটি বা ‘ওভার দ্য টপ’ প্লাটফর্ম হলো বিনোদনের দুনিয়া। এক সময় এই প্লাটফর্ম বলতে শুধু টেলিভিশনকে বুঝাতো। কিন্তু এখন বায়োস্কোপ, নেটফ্লিক্স, হইচই-এর মতো দেশি বিদেশি মাধ্যমগুলোও এর অন্তর্ভুক্ত।

এ প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ওটিটি প্লাটফর্ম একটি ক্রমবর্ধমান বাস্তবতা। এর কোন কনটেন্ট রিলিজ করতে হলে এখন কোন অনুমোদনের প্রয়োজন নেই। আমি সাম্প্রতিক ভারত সফরে সেখানকার তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রীর সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলাপ করেছি। তারা কিভাবে বিষয়টিকে দেখভাল করছেন জেনেছি।’

‘তারা গত ফেব্রুয়ারি মাসে প্রজ্ঞাপন আকারে একটি নীতিমালা জারি করেছেন। এর আওতায় সেই দেশ থেকে পরিচালিত এবং বিদেশের সব প্লাটফর্মকে এই নীতিমালা অনুসরণ করতে হবে। কোনোটি এর অন্যথা করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয় বা হবে।’

অনন্য মামুন পরিচালিত ‘নবাব এলএলবি’ ছিলে ওটিটিতে মুক্তি পাওয়া প্রথম অরিজিনাল মুভি

তিনি বলেন, ‘আমরাও একটি প্রাথমিক খসড়া তৈরি করেছি। সেটি আমরা সহসাই প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করতে পারব বলে আশা করছি। ওটিটি এতো বিস্তৃত ও ব্যাপক এটিকে সেন্সর বোর্ডের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা একটি বিরাট ও দুরূহ কাজ। এ কারণে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ভারতে বা অন্যান্য দেশে যেভাবে করা হচ্ছে সেভাবেই নীতিমালার খসড়া করা হবে। এটিকে যাচাই বাছাইয়ের পর প্রজ্ঞাপন আকারে প্রচার করা হবে।’

‘আমাদের কৃষ্টি সংস্কৃতি ক্ষতিগ্রস্ত হয় এমন কোনো কনটেন্ট যাতে সেখানে না যায়। আমাদের সমাজকে বা মানুষকে ভুল পথে পরিচালিত করে এমন কোন কনটেন্ট যাতে সেখানে না যায়।’

এর আগে দেশীয় কয়েকটি ওটিটি কনটেন্ট নিয়ে বিতর্ক উঠে। তখন সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেকেই নীতিমালার কথা বলেন। এমনকি ওটিটি কনটেন্টের জন্য নির্মাতাদের জেরা বা জেলে যাওয়ার ঘটনাও আছে।


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

Shares