Select Page

জাগো: খেলার সাথে জড়িয়ে থাকা দেশপ্রেম আর আবেগের চলচ্চিত্র

জাগো: খেলার সাথে জড়িয়ে থাকা দেশপ্রেম আর আবেগের চলচ্চিত্র

Jaago (4)মনে আছে বন্ধুরা যখন হলে মুভিটা দেখতে যায় আমি যেতে পারিনি। মন খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল। পরে হলে আর দেখা হয়নি। আজ সেই অপূর্ণতা ঘুচল। দেখে ফেললাম জাগো। ভাল লেগেছে। বছর বছর ধরে চলে আসা চিরচেনা সংলাপ, পারিবারিক দন্দ্ব আর প্রেম বিরহের জ্বালায় জ্বলন্ত পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা ছায়াছবির বাইরে যে মুভিগুলোই পাই দেখতে ছুটে যাই আমাদের শত সমস্যায় জর্জরিত প্রেক্ষাগৃহগুলোতে। দীপু নাম্বার টু, এমিলের গোয়েন্দাবাহিনী, মাটির ময়না, নয় নম্বর বিপদ সংকেত, হাজার বছর ধরে, লাল সবুজ, মনপুরা, আমার বন্ধু রাশেদ, জয়যাত্রা, গহীনে শব্দ, স্বপ্নডানায়, মেঘের পরে মেঘ, শ্বশুর বাড়ি জিন্দাবাদ, হঠাৎ বৃষ্টির মতো আরো অনেক চলচ্চিত্র যে গুলো আমাদের চিরাচরিত স্বাদের বাইরে ভিন্নতার আমেজ এনে দেয় ‘জাগো‘ তেমনি এক সেলুলয়েড। প্রেমসর্বস্ব বাণিজ্যিক চলচিত্রের বিপক্ষে নই আমি। এফডিসির ফুলবাগানের, কলেজ সিঁড়ির ধ্রুবক টাইপ ছায়াছবির বাইরেও অনেক বিষয় নিয়ে মুভি বানানো যায়, চিরচেনা কুশীলবের বাইরেও কাস্ট করা যায় এবং সেটাতেও রোমান্সের ছোঁয়া থাকে এই মুভিগুলো দেখলে সেটা হঠাৎ করেই বোঝা যায়।

জাগো ছবিটা দেখতে গিয়ে এক অন্যরকম অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হলাম । খেলাধুলা নিয়ে বাংলাদেশে চলচ্চিত্র অঙ্গনে তেমন একটা মুভি হয়নি। মুভির কাহিনী এবং সমসাময়িকতা সত্যিই চোখে পড়ার মত। এক স্বপ্নবাজ যুবকের ফুটবল নিয়ে ভেঙ্গে যাওয়া স্বপ্ন এবং দেশপ্রেমের আবেগময়তায় ভরা এই “জাগো“। মুভির গল্প হল শামীম এক যুবক তার ধ্যানজ্ঞান ফুটবল এবং সে জেলা ফুটবল দলের ক্যাপ্টেন। স্বাধীনতার পর থেকে চলে আসা ভারতের ত্রিপুরা ও কুমিল্লা ফুটবল দলের প্রতিবছর খেলায় কুমিল্লার পরাজয়ের গ্লানি এটা হল মুভির মূল পয়েন্ট। দেশকে জয়ের স্বাদ দিতে গিয়ে দূর্ঘটনায় প্যারালাইজড শামীমের স্বপ্নকে সত্যি করতে তার ছোটভাই ও পাড়ার ফুটবল পাগল ছেলেরা নামে এক অসাধ্য সাধনের মিশনে।

Jaago (3)

জাগো” ছবিতে খেলা মূল একটা অংশ ধরে রাখলেও প্রেম ভালোবাসা, পারিবারিক অন্তর্দন্দ্ব, দারিদ্রের কশঘাত আর জীবনের কঠিন দিকগুলোর অস্তিত্বও ধরে রেখেছেন পরিচালক। পরিবারের অর্থ সংকুলানে বড় ভাইয়ের চাপে মোটর গ্যারেজে কাজ ও অসুস্থ মায়ের চিন্তায় ক্লিষ্ট মেজবাহ, মার মৃত্যুর জন্য বাবার অবহলাকে দায়ী করা রাফি, পাড়ার সব মেয়ের প্রেমে পড়া জয়, বড় ভাইয়ের অসমাপ্ত স্বপ্নের পূর্ণতার দায়িত্ব নেয়া তুহিন, অসুস্থ শামীমের বেদনামাখা চেহারায় ব্যাথিত তার স্ত্রী ও পাড়ার ফুটবল দলের প্রতিটি ছেলেকে ১৯৭১ এর স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলের প্ররণায় উজ্জীবিত করা ও সাবেক ফুটবলার সাফু ভাই প্রত্যেকে মুভির অবিচ্ছেদ্য অংশ। খেলার নাটকীয়তার সাথে প্রয়াত জনপ্রিয় ভাষ্যকার খোদাবক্স মৃধার বলিষ্ঠ ধারাভাষ্য প্রাণবন্ত করে তুলেছে প্রতিটি মুহুর্তকে। শামীম চরিত্রে ফেরদৌসের সাবলীল পারফর্মেন্স, শামীমের স্ত্রীর ভূমিকায় লাক্স তারকা বিন্দুর অনিন্দ্যসুন্দর উপস্থিতি আর সাফু ভাইয়ের রোলে অপূর্ব অভিনয় করেছেন ডাকসাইটে অভিনেতা তারিক আনাম খান। মুভির গানগুলো এবং ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকও অসাধারণ।

হাসি কান্নায় জড়ানো “জাগো” দেখে কখনো হাসতে হাসতে দূর্বল হয়ে গেছি আবার কখন চোখে পানি চলে এসেছে টেরই পাইনি।

খিজির হায়াত খানের পরিচালনা এবং স্বাধীন বাংলা ফুটবল দলকে উৎসর্গ করা অপূর্ব চলচ্চিত্র”জাগো” সবার মাঝেই দেশের প্রতি টানটা আবার নতুন করে অনুভব করাবে। মনে দোলা দেয়া সব অনুভূতি আর দেশপ্রেমের পরশে অবগাহন করে দুই নয়ন ভরে উপভোগ করলাম “জাগো : Dare To Dream”


অামাদের সুপারিশ

মন্তব্য করুন

ই-বুক ডাউনলোড করুন

BMDb ebook 2017

স্পটলাইট

Saltamami 2018 20 upcomming films of 2019
Coming Soon

[wordpress_social_login]

Shares