Select Page

‘দ্য ডিফিকাল্ট ব্রাইড’ ও ‘আগন্তুক’ ফান্ড পেল জার্মানি ও ভারতে

‘দ্য ডিফিকাল্ট ব্রাইড’ ও ‘আগন্তুক’ ফান্ড পেল জার্মানি ও ভারতে

চলতি সপ্তাহে জার্মানি ও ভারতে তহবিল জিতেছে বাংলাদেশের দুই ছবি। এর মধ্যে চিত্রনাট্য নিয়ে বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিয়েছিলেন রুবাইয়াত হোসেন ও গোয়ার ফিল্মবাজারে শুটিং শেষ করে গিয়েছেন বিপ্লব সরকার।

পোস্ট প্রডাকশনে থাকার ‘আগন্তুক’

বার্লিনেলের ডব্লিউসিএফ ফন্ডিংয়ের আওতায় ৫০ লাখ ইউরো জিতেছেন রুবাইয়াত হোসেন। তার ‘দ্য ডিফিকাল্ড ব্রাইড’ প্রজেক্ট এই উৎসবে অংশ নিয়েছে, প্রযোজক হিসেবে রুবাইয়াতের সঙ্গে আছেন আদনান ইমতিয়াজ আহমেদ।

এর আগে বার্লিনেলে ট্যালেন্টে ২০১৭ সালে অংশ নেন ‘আন্ডার কনস্ট্রাকশন’ পরিচালক। এবার ৫১টি দেশের ১৭৬টি প্রজেক্ট থেকে বিভিন্ন বিভাগে ১১টি প্রজেক্ট বেছে নেয়া হয়েছে। সেখানে নিজের বিভাগে সর্বোচ্চ তহবিল পেয়েছেন রুবাইয়াত।

এর আগে ‘দ্য ডিফিকাল্ড ব্রাইড’ সম্পর্কে রুবাইয়াত জানিয়েছিলন, সিনেমার মূল চরিত্র নভেরার বিয়ে হবে শিগগিরই, যিনি তার হবু বরের সঙ্গে প্রেম করছেন এবং রূপকথার মতো একটি বিয়ের আয়োজনের স্বপ্ন দেখছেন।

একইসঙ্গে নভেরা গোপনে তার শরীরের সঙ্গে লড়াই করছেন। বিয়ের আচার-অনুষ্ঠানে সমস্যাটি আরও বেড়ে যায় বা সমস্যাটি নিয়ে বিয়ের আচার-অনুষ্ঠান করা সম্ভব না।

নভেরা নিয়মিত বিউটি সেলুনে যায় এবং তার শরীরকে ‘নিরাময়’ করতে ঘরোয়া প্রতিকার ব্যবহার করেন। মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও মানসিক যন্ত্রণা যখন তার মধ্যে শিকড় গজাতে থাকে তখন সে লম্বা চুলের এক রহস্যময় নারীকে তার কল্পনায় দেখতে শুরু করে।

ভ্যারাইটি বলছে সিনেমাটির বাজেট ৮ লাখ ছিয়াত্তর হাজার মার্কিন ডলার; যা বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে ৮ কোটি টাকারও বেশি। বাজেটের এক-তৃতীয়াংশ বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠান থেকে তোলা হয়েছে।

রুবাইয়াত হোসেন

এ দিকে ভারতের পুরস্কার জিতেছে বাংলাদেশের ছবি ‘আগন্তুক’। গোয়ায় অনুষ্ঠিত ভিউয়িং রুমের ফিল্মবাজারের রিকমেন্ডস বিভাগ থেকে প্রসাদ ল্যাব ডিআই অ্যাওয়ার্ড ও মুভিবাফ অ্যাপ্রিসিয়েশন আওয়ার্ড জিতেছে বিপ্লব সরকারের ছবিটি।

ভিসা জটিলতার কারণে পরিচালক সেখানে উপস্থিত থাকতে পারেননি। গত বৃহস্পতিবার এ পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। ২০ নভেম্বর শুরু হয়ে ২৪ নভেম্বর শেষ হয় এবারের ফিল্মবাজার।

নির্মিতব্য, নির্মাণকাজ শেষ হয়েছে, চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিতে চায়, বিশ্ববাজারে পরিবেশক ও অংশীদার খুঁজছে—ভিউয়িং রুম বিভাগে ভারত বা দক্ষিণ এশিয়ার এমন সিনেমাকে পুরস্কার দেওয়া হয়। নির্মাতা জানান, পুরস্কার পাওয়ায় তিনি প্রসাদ ল্যাবে ডিআই (ডিজিটাল ইন্টারমিডিয়েট) এবং ডিসিপি (ডিজিটাল সিনেমা প্যাকেজ) করার সুযোগ পাবেন।

এবার ফিল্মবাজারে ২৪৭টি ছবি ভিউয়িং রুমে ছিল। তার মধ্যে ফিল্মবাজার রিকমেন্ডস বিভাগে জায়গা করে নেয় ৩০টি ছবি। ফিল্মবাজার তরুণ নির্মাতাদের তাঁদের কাজ এগিয়ে নেওয়ার সুযোগ তৈরি করে দেয়।

আগন্তুক চলচ্চিত্রের গল্প আবর্তিত হয়েছে কাজল নামের ১০ বছর বয়সী এক বালককে ঘিরে। মা ও অসুস্থ দাদিকে নিয়ে কাজলদের সংসার। কাজল তার বাবাকে চিনতে পারে না। কারণ, সে অনেক দিন পর পর বাড়িতে আসে। এ নিয়ে সবার মধ্যে চলে মনস্তাত্ত্বিক লড়াই।

শুটিং ও সম্পাদনা শেষে এখন ছবিটির অন্যান্য পোস্টপ্রোডাকশনের জন্য প্রস্তুত হচ্ছেন নির্মাতা। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন ফেরদৌসী মজুমদার, শাহানা সুমি, রতন দেব, মাহমুদ আলম, এহান, রাফসান, হৃদয়, হাসু মনি ও নাঈমা তাসনিম। আগন্তুক প্রযোজনা করেছেন রম্য রহিম চৌধুরী, তাজুল হক, সাইফুর রহমান লেনিন ও বিপ্লব সরকার।


মন্তব্য করুন

Shares