Select Page

‘দয়া করে আমার মেয়েটাকে বাঁচতে দিন’ বললেন পূজা চেরির মা

‘দয়া করে আমার মেয়েটাকে বাঁচতে দিন’ বললেন পূজা চেরির মা

শবনম বুবলির বিয়ে আর সন্তানের খবরটি সামনে আসার আগের থেকেই শাকিব খানের সঙ্গে পূজা চেরিকে জড়িয়ে গুঞ্জন রটে। সম্প্রতি বিয়ে ও ধর্ম পরিবর্তনের মতো কথাও রটিয়েছে কোনো কোনো সাংবাদিক। এ নিয়ে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত শিশুশিল্পী থেকে নায়িকা বনে যাওয়া এ তারকা। এ প্রেক্ষিতে গুজব না ছড়াতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন পূজার মা ঝর্ণা রায়।

তিনি বলেন, ‘দয়া করে আমার মেয়েটাকে বাঁচতে দিন। মানুষজন যেভাবে ওকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করছে, তাতে করে ওর মানসিক অবস্থা খুব খারাপ। আমার মেয়েটা ছোট, সারাক্ষণ শুধু কান্না করছে। আমরা তাকে সারাক্ষণ বোঝানোর চেষ্টা করছি কিন্তু কোনো লাভ হচ্ছে না। কোনোভাবেই ওর মন ভালো করতে পারছি না। এসব কথার কারণে পরিবারের অন্যরাও ভালো নেই।’

আরও বলেন, ‘পূজা মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। যে কোনো সময় একটা দুর্ঘটনা ঘটাতে পারে- আমরা এই ভয়েই আছি। আমি মা হয়ে সারাক্ষণ ওর পাশে আছি। বিশ্বাস করেন, প্রেম-বিয়ে এগুলো সব মিথ্যা। মানুষ এভাবে মিথ্যা কথা বলে কি মজা পাচ্ছে। এসব সংবাদের কারণে আমাদের কি অবস্থা- কেউ কি একবার চিন্তা করেছেন। তাই সবার কাছে হাতজোড় করে বলি- আমার মেয়েটা ছোট, দয়া করে মেয়েটাকে বাঁচতে দেন।’

এর আগে গতকাল ‘পোড়ামন ২’ ছবির নায়িকা পূজা তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে লিখেছেন, ‘যারা আমাকে নিয়ে মিথ্যা গুঞ্জন ছড়াচ্ছেন, তাদের কয়েকজন আবার দায়িত্বশীল পদে থেকেও এই কাজ করছেন! কোনো রকম সত্য–মিথ্যা যাচাই-বাছাই ছাড়াই এবং আমার স্টেটমেন্ট ছাড়া আমার নাম জড়িয়ে যদি আগামীতে মিথ্যা গুঞ্জন রটানো হয়, আমি স্পষ্ট করে জানাচ্ছি—দেশের প্রচলিত আইনের মাধ্যমে কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হব।‘

ফেসবুক পোস্টের শুরুতে পূজা লিখেছেন, ‘ছোটবেলা থেকে স্বপ্ন দেখতাম সু-অভিনেত্রী হওয়ার। সেই স্বপ্ন পূরণে আমি একটু একটু এগিয়ে যাচ্ছি। অল্প দিনের ক্যারিয়ারে মানুষ আমাকে যেভাবে ভালোবাসা দিয়েছে, আপন করে নিয়েছে—এতে করে জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত এই কাজটাই করে যেতে চেয়েছি। চলার পথে ভালোর পাশাপাশি কিছু খারাপ মানুষ আমাকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করছে। বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে আমার চলার পথ থামিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু এসবে পাত্তা না দিয়ে আমি সব সময় কাজে মনোযোগী হয়েছি।’

এর আগে এক সাক্ষাৎকারে এ নায়িকা বলেছিলেন, জাজ মাল্টিমিডিয়া ছাড়ার পর থেকে তিনি অপপ্রচারের শিকার হচ্ছেন। ধৈর্য্যের বাধ ভাঙলে তিনি মুখ খুলবেন।

তিনি বলেন, ‘দেখুন, আমি সাড়ে চার বছর একটা প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে কাজ করেছি। ওই প্রতিষ্ঠান থেকে বের হওয়ার পর থেকেই আমাকে নিয়ে এসব গুজব ছড়ানো হচ্ছে। করতে থাকুক। এখন কিছু আর বলব না। আমার ধৈর্যের সীমা অতিক্রম করলে তখন মুখ খুলব।’

মঙ্গলবার পূজা বলেন, ‘কদিন ধরে খেয়াল করছি, আরেকজনের ব্যক্তিগত জীবনে আমার নাম জড়িয়ে বিভিন্ন মিথ্যা গুঞ্জন সৃষ্টি করা হচ্ছে। ফেসবুকের ব্যক্তিগত আইডি-পেজ থেকে পোস্ট কিংবা ইউটিউবসহ বিভিন্ন মাধ্যমে আমাকে টানা হচ্ছে। শুরু থেকে বিষয়টিকে আমি এড়িয়ে গিয়েছি। কারণ, এসবের সঙ্গে আমার কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই—যতটুকু আছে, শিল্পী হিসেবে, শুধুই প্রফেশনাল সম্পর্ক। কিন্তু আমাকে যারা ভালোবাসেন, তাদের মনে কোনো নেতিবাচক ধারণা তৈরি হোক, এটা কোনোভাবেই কাম্য নয়। ব্যক্তিগতভাবেও এই বিষয় নিয়ে আমি ভীষণ বিরক্ত। আমার মনে হয়েছে, এসব বন্ধ হওয়া দরকার।’

এ দিকে চলতি মাসের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ বছরের ভিসা পেয়েছেন পূজা চেরি। ১৬ অক্টোবর কুইন্সের আমাজুরা কনসার্ট হলে ঢালিউড ফিল্ম অ্যান্ড মিউজিক অ্যাওয়ার্ডের আসর বসবে। বাংলাদেশ থেকে ছোট ও বড় পর্দার একঝাঁক তারকা অংশ নেবেন। সেই অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল ঢাকাই ছবির এই নায়িকারও। কয়েক দিন আগে পূজা নিজেও বলেছিলেন আমেরিকায় যাচ্ছেন তিনি। কিন্তু এখন বলছেন যাচ্ছেন না।

একই সময়ে পূজার সঙ্গে শাকিবের প্রেমের গুঞ্জন নেট–দুনিয়ায় ভাসছে। এসব কারণে নাকি শাকিব খান যুক্তরাষ্ট্রে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

এ বিষয়ে পূজা বলেন, ‘এটি এখন নতুন ইস্যু হলো। যা বলা হচ্ছে, তা ঠিক নয়। স্রেফ গুজব। আমি বুঝতে পারছি না, আর কত গুজব হবে। ওই সময় এখানে আমার শুটিংয়ের কাজ পড়ে গেছে। এ কারণে আমি আপাতত না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এর বেশি কিছু নয়।’

পূজা আরও বলেন, ‘“পরী” নামে আমি যে ওয়েব ফিল্মটি করছি, সেটি দিয়ে একটি নতুন ওটিটি প্ল্যাটফর্ম যাত্রা শুরু হবে। অবশ্যই আমার সেখানে থাকতে হবে। না থাকলে অন্যায় হবে। ওয়েব ফিল্মটির প্রচারণার অংশ হিসেবে কয়েক দিনের মধ্যে আমার ফটোশুট হবে। তা ছাড়া ওটিটির উদ্বোধনের আগে ১৬ বা ১৭ অক্টোবরের দিকে একটি অনুষ্ঠান হওয়ার কথা আছে। সেখানে আমাকে থাকতে হবে। সব মিলিয়ে এখন  যুক্তরাষ্ট্রে যাচ্ছি না।’ 


মন্তব্য করুন

Shares